হতাশা নিয়ে দেশে ফিরছে টাইগাররা

প্রকাশিত: ৩:৩০ অপরাহ্ণ, নভেম্বর ৫, ২০২১

হতাশা নিয়ে দেশে ফিরছে টাইগাররা

হতাশার বিশ্বকাপ মিশন শেষে আজ ঢাকায় ফিরছেন ক্রিকেটাররা। তবে অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ, মুশফিকুর রহিম, লিটন দাস, আর তাসকিন আহমেদ ছুটি কাটিয়ে ফিরবেন ১১ নভেম্বর।

হেড কোচ রাসেল ডমিঙ্গোসহ বাকি কোচিং স্টাফরা ফিরছেন নিজ নিজ দেশে। ঢাকা ফেরত ক্রিকেটাররা আসছেন দুই ভাগে ভাগ হয়ে। বিকেল ৫টা আর রাত ১১টায় দুটি আলাদা ফ্লাইটে দুবাই থেকে ঢাকা ফিরবেন নাসুম-শরিফুলরা। ইনজুরিতে ছিটকে যাওয়া সাকিব আছেন যুক্তরাষ্ট্রে। সবার আগে ঢাকায় ফিরেছেন চোটাক্রান্ত সাইফউদ্দিন। বিশ্বকাপ শেষেই বাংলাদেশ সফরে আসবে পাকিস্তান। মিরপুরে ১৯ নভেম্বর প্রথম টি-টোয়েন্টি দিয়ে শুরু হবে সিরিজ।

প্রসঙ্গত, টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের সপ্তম আসরে ভালো খেলার প্রত্যাশা নিয়ে ওমান-আরব আমিরাত গেলেও হতাশ করেছে বাংলাদেশ দল। বাছাইপর্বে শুরুর ম্যাচেই হেরে যায় স্কটল্যান্ডের কাছে। এরপর ওমান ও পাপুয়া নিউগিনির বিপক্ষে জিতে সুপার টুয়েলভে গিয়ে আবারও হতাশ করে টাইগাররা। ৫ ম্যাচ খেলে জিততে পারেনি একটি ম্যাচেও। শ্রীলঙ্কা-ওয়েস্ট ইন্ডিজের সাথে লড়াই করতে পারলেও অসহায় আত্মসমর্পণ করেছে ইংল্যান্ড,অস্ট্রেলিয়া ও দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে। ব্যাটে-বলে চূড়ান্ত ব্যর্থ দলের খেলোয়াড়রা। তবে এমন হতাশাজনক টুর্নামেন্টেও খালি হাতে ফিরতে হচ্ছে না বাংলাদেশকে। আসরে কোটি টাকারও বেশি পাচ্ছে বাংলাদেশ দল।

আসর শুরুর আগেই ক্রিকেটের সর্বোচ্চ নিয়ন্ত্রক সংস্থা আইসিসি ৫৬ লাখ মার্কিন ডলার প্রাইজমানি ঘোষণা করে। যেখানে টুর্নামেন্টের চ্যাম্পিয়ন দল পাবে প্রায় ১৪ কোটি আর রানার্সআপ দল পাবে ৭ কোটি টাকা। সবমিলিয়ে এ টুর্নামেন্টের প্রাইজমানি ধরা হয়েছে ৫৬ লাখ ইউএস ডলার। এর বাইরেও প্রতিটি বিজয়ী দলের জন্যও থাকছে অর্থ বরাদ্দ।

টুর্নামেন্টের নিয়ম অনুযায়ী বাছাইপর্বে জেতা প্রত্যেকটি দল পাবে ৪০ হাজার ডলার করে। বাংলাদেশ বাছাইপর্বে জেতে দুইটি ম্যাচ। হারায় পাপুয়া নিউগিনি ও ওমানকে। সেই হিসেবে দুই ম্যাচ জয়ের কারণে ৮০ হাজার ডলার পাবে বাংলাদেশ। আর সুপার টুয়েলভে ওঠার কারণে প্রত্যেক দল পাবে আরও ৭০ হাজার ডলার। তাই সুপার টুয়েলভে কোনো ম্যাচ না জিতলেও এই টাকা পাবে বাংলাদেশ।

বাছাইপর্বে ৮০ হাজার ইউ এস ডলার ও সুপার টুয়েলভে খেলার জন্য ৭০ হাজার ইউএস ডলার, মোট ১ লক্ষ ৫০ হাজার ইউএস ডলার পাচ্ছে বাংলাদেশ দল। বাংলাদেশি মুদ্রায় যা প্রায় ১ কোটি ২৮ লক্ষ টাকা।


  •