শান্তিগঞ্জে ঘোড়ার লাথিকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষে নিহত ২

প্রকাশিত: ৪:৪৭ অপরাহ্ণ, এপ্রিল ২, ২০২৪

শান্তিগঞ্জে ঘোড়ার লাথিকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষে নিহত ২

সুনামগঞ্জের শান্তিগঞ্জ উপজেলার শিমুলবাঁক ইউনিয়নের থলেরবন্দ গ্রামে ঘোড়ার লাথি মারাকে কেন্দ্র করে দু’পক্ষের সংঘর্ষে উভয়পক্ষের দুইজন নিহত হওযার খবর পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় উভয়পক্ষের ৬ জনকে আটক করা হয়েছে।

সোমবার (১ এপ্রিল) রাতে তারাবির নামাজের পর উপজেলার শিমুলবাঁক ইউনিয়নের থলেরবন্দ গ্রামের আশিক আলীর পক্ষ এবং শের আলীর পক্ষের লোকজনের মাঝে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলেন- থলেরবন্দ গ্রামের মৃত রহিম উদ্দিনের ছেলে নুর মোহাম্মদ (২২) এবং একই গ্রামের মৃত নইমুল্লার ছেলে আব্দুল আউয়াল (৫৫)।

জানা যায়, বিনা অনুমতিতে গৃহপালিত একটি ঘোড়া শের আলীর বাড়ির সামনে বেধে রাখে আশিক আলীর লোকজন। এময় বেঁধে রাখা ঘোড়ার লাথিতে আশিক মিয়ার ছেলে ফরিদ আঘাতপ্রাপ্ত হয়। এতে আশিক আলীর ভাই সাহার আলী, শের আলীকে আশিক আলীর বাড়ির সামনে ঘোড়া বেঁধে রাখার কারণ জিজ্ঞাস করলে শের আলীর লোকজন সাহার আলীকে মারধর করেন।

এ ঘটনার জের ধরে রাত ১২টার দিকে দেশীয় অস্ত্র নিয়ে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়েন উভয়পক্ষের লোকজন। সংঘর্ষকালে আশিক আলীর নূর মোহাম্মদ ও শের আলীর পক্ষের আব্দুল আউয়াল গুরুতর আহত হলে স্থানীয়রা তাদের উদ্ধার করে সুনামগঞ্জ সদর হাসপাতালে নিয়ে গেলে আশঙ্কাজনক অবস্থায় আহত নূর মোহাম্মদকে সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠালে রাত ২টায় চিকিৎসাধীন অবস্থায় তাঁর মৃত্যু হয়।

এদিকে, মঙ্গলবার সকালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় সুনামগঞ্জ সদর হাসপাতালে অপর আহত আব্দুল আউয়ালের মৃত্যু হয়।

সংঘর্ষে ঘটনায় উভয় পক্ষের অন্তত ১০ জন আহত হয়েছেন বলে জানা গেছে।

এ ঘটনায় এলাকা থমথমে পরিস্থিতি বিরাজ করছে। আইনশৃংখলা পরিস্থতির নিয়ন্ত্রণে এলাকায় পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। ঘটনার সাথে জড়িতদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে বলে জানিয়েছেন শান্তিগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোক্তাদির হোসেন।


 

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

সর্বমোট পাঠক


বাংলাভাষায় পুর্নাঙ্গ ভ্রমণের ওয়েবসাইট