স্বামী হত্যার বিচার চাইলেন সিলামের শিপা বেগম

প্রকাশিত: ৬:৪৫ অপরাহ্ণ, এপ্রিল ১, ২০২৪

স্বামী হত্যার বিচার চাইলেন সিলামের শিপা বেগম

গত ৭ মার্চ নিজ বাড়িতে প্রকাশ্য দিবালোকে কুপিয়ে হত্যা করা হয় যুক্তরাজ্য প্রবাসী আব্দুল কাইয়ুমকে। সিলেটের মোগলাবাজার থানাধীন সিলাম ইউনিয়নের রুস্তমপুর (তালপাড়া) গ্রামস্থ বাড়িতে এ হত্যাকান্ডের পর মামলা দায়ের করা হলেও এখনো পর্যন্ত আসামিদেরকে গ্রেপ্তার করা হয়নি।

সোমবার (১ এপ্রিল) সিলেট জেলা প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলনে এ অভিযোগ করেন আব্দুল কাইয়ুমের স্ত্রী শিপা বেগম। একই সাথে তিনি খুনিদেরকে গ্রেপ্তারপূর্বক দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানান।

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে শিপা বেগম বলেন, রুস্তমপুর (তালপাড়া) গ্রামের আব্দুর মজিদের ছেলে আব্দুল কাইয়ুমের সাথে তার বিয়ে হয়। প্রায় ৫ মাস পূর্বে তাদের জমজ দুটি কন্যাসন্তানের জন্ম হয়। বিয়ের পর সুখেই কাটছিল তাদের সংসার জীবন। কিন্তু হঠাৎ সুখের সংসার তছনছ হয়ে যায়। গত ৭ মার্চ নিজ বাড়িতে খুন হন আব্দুল কাইয়ুম। প্রকাশ্য দিবালোকে একই বাড়ির আব্দুল বাশার সুমেল (২৬), রুমেল (২৪), পাবেল (২২), সুমা বেগম (২১) ও নূরজাহান আক্তার সেলি (৫০) ও পাশের বাড়ির সুরুজ আলী হামলা চালান কাইয়ুমের উপর। এসময় নৃশংসভাবে কুপিয়ে হত্যা করা হয় কাইয়ুমকে।

শিপা বেগম বলেন, এ ঘটনায় মোগলাবাজার থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করা হয়েছে। কিন্তু ঘটনার প্রায় ৩ সপ্তাহ অতিবাহিত হলেও চিহ্নিত আসামিদেরকে গ্রেপ্তার করা হয়নি। তিনি বলেন, আসামিরা প্রভাবশালী হওয়ায় তাদেরকে গ্রেপ্তার করা হচ্ছে না। তবে পুলিশ তৎপর হলে খুনিদেরকে গ্রেপ্তার করা সম্ভব।

শিপা বেগম বলেন, স্বামী হত্যার বিচার চাই। খুনিদেরকে গ্রেপ্তার করে বিচারের আওতায় আনা হোক, দেয়া হোক দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি। এমন নৃশংস ঘটনার পর খুনিরা পার পেয়ে গেলে সমাজে এমন ঘটনা দিন দিন ঘটতেই থাকবে। তাই প্রধানমন্ত্রীসহ প্রশাসনের উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের কাছে অনুরোধ, খুনিরা যাতে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি পায় সেদিকে দৃষ্টি দেয়া হোক।

সংবাদ সম্মেলনে শিপা বেগমের পক্ষে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন মো. শাহ আলম।


 

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

সর্বমোট পাঠক


বাংলাভাষায় পুর্নাঙ্গ ভ্রমণের ওয়েবসাইট