দেশের ২২ জেলায় শৈত্যপ্রবাহ অব্যাহত

প্রকাশিত: ৫:৪৪ অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ২৭, ২০২৪

দেশের ২২ জেলায় শৈত্যপ্রবাহ অব্যাহত

মৌসুমের স্বাভাবিক লঘুচাপ দক্ষিণ বঙ্গোপসাগরে অবস্থান করছে। এর একটি বাড়তি অংশ উত্তর বঙ্গোপসাগর পর্যন্ত বিস্তৃত রয়েছে। এ অবস্থায় দেশের ৫ বিভাগের ২২ জেলায় বয়ে যাওয়া শৈত্যপ্রবাহ অব্যাহত থাকতে পারে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া অফিস।

শনিবার (২৭ জানুয়ারি) সকাল ৯টা থেকে পরবর্তী ৭২ ঘণ্টার আবহাওয়ার পূর্বাভাসে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

আবহাওয়াবিদ মো. ওমর ফারুক স্বাক্ষরিত বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, সিলেট বিভাগের মৌলভীবাজারসহ কিশোরগঞ্জ, গোপালগঞ্জ, যশোর, কুষ্টিয়া ও চুয়াডাঙ্গা জেলাসহ রংপুর ও রাজশাহী বিভাগের ওপর দিয়ে মৃদু থেকে মাঝারি ধরনের শৈত্যপ্রবাহ বয়ে যাচ্ছে। সেটি অব্যাহত থাকতে পারে।

এতে বলা হয়, পঞ্চগড়ের তেঁতুলিয়ায় শনিবার দেশের সর্বনিম্ন ৭.২ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে। এ ছাড়া যশোর, চুয়াডাঙ্গা, গোপালগঞ্জ, রাজশাহী, বগুড়া, রংপুর, দিনাজপুর, নীলফামারীর সৈয়দপুর ও ডিমলা, কুড়িগ্রামের রাজারহাট, নওগাঁর বদলগাছী, সিরাজগঞ্জের তাড়াশ, কিশোরেগঞ্জের নিকলি, পাবনার ঈশ্বরদী এবং কুষ্টিয়ার কুমারখালীতে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ১০ ডিগ্রি সেলসিয়াসের নিচে বিরাজ করছে। এদিন ঢাকায় সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ১৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

আবহাওয়া অফিস বলছে, সারাদেশে শনিবার দিনের তাপমাত্রা অপরিবর্তিত থাকতে পারে এবং রাতের তাপমাত্রা সামান্য কমতে পারে। তবে রোববার (২৮ জানুয়ারি) সারাদেশে দিন ও রাতের তাপমাত্রা সামান্য বাড়তে পারে। পরদিন সোমবার (২৯ জানুয়ারি) সারাদেশে দিনের তাপমাত্রা অপরিবর্তিত থাকলেও রাতের তাপমাত্রা আরও বাড়তে পারে।

আবহাওয়া অফিসের তথ্যানুযায়ী, আগামী কয়েক দিন মধ্যরাত থেকে সকাল পর্যন্ত দেশের নদী-অববাহিকার কোথাও কোথাও মাঝারি থেকে ঘন কুয়াশা পড়তে পারে এবং দেশের অন্যান্য জায়গায় কোথাও কোথাও হালকা থেকে মাঝারি কুয়াশা পড়তে পারে। ঘন কুয়াশার কারণে অভ্যন্তরীণ নৌপরিবহন চলাচল ব্যাহত হতে পারে।

এদিকে, আগামী মঙ্গলবার (৩০ জানুয়ারি) সকাল পর্যন্ত অস্থায়ীভাবে আংশিক মেঘলা আকাশসহ সারাদেশে আবহাওয়া শুষ্ক থাকতে পারে বলছে আবহাওয়া অফিস। তবে বর্ধিত ৫ দিনের আবহাওয়ার অবস্থায় বলা হয়েছে, বৃষ্টিপাতের প্রবণতা রয়েছে।


 

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

সর্বমোট পাঠক


বাংলাভাষায় পুর্নাঙ্গ ভ্রমণের ওয়েবসাইট