বিএনপির ১২১ নেতাকর্মীর কারাদণ্ড

প্রকাশিত: ১০:৩৩ অপরাহ্ণ, ডিসেম্বর ২১, ২০২৩

বিএনপির ১২১ নেতাকর্মীর কারাদণ্ড

নাশকতার তিন মামলায় বিএনপির ১২১ নেতাকর্মীকে বিভিন্ন মেয়াদে কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত।

বৃহস্পতিবার (২১ ডিসেম্বর) ঢাকার তিন মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আদালত এসব রায় দেন।

রায়ে ২০১৮ সালের সেপ্টেম্বরে রাজধানীর তুরাগ থানায় দায়েরকৃত নাশকতার মামলায় বিএনপির ৯৩ নেতাকর্মীকে তিন বছরের কারাদণ্ড দিয়েছেন ঢাকার মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট মো. শেখ সাদীর আদালত।

দণ্ডপ্রাপ্ত আসামিদের মধ্যে উল্লেখযোগ্যরা হলেন আব্দুর রশিদ, আলম মিয়া, কামাল হোসেন, মোজাম্মেল, নুরুল সিলাম, সুরুজ মিয়া, বোরহান উদ্দিন মনু, হালিম, বারী হুজুর, শাহ আলম, বাদশা, নেছার আহাম্মেদ টুটুল, আবু বক্কা সিদ্দিক, বশির, আমির, কবির হোসেন, খলিলুর রহমান, জলিল মিয়া, সরোয়ার হোসেন, মো. দুলাল মিয়া।

আসামিদের দণ্ডবিধির ১৪৩ ধারায় ৬ মাসের সশ্রম কারাদণ্ড ও দুই হাজার টাকা জরিমানা, অনাদায়ে ৭ দিনের বিনাশ্রম কারাদণ্ড এবং ৩৫৩ ধারায় আড়াই বছরের সশ্রম করাদণ্ড, দুই হাজার টাকা জরিমানা, অনাদায়ে ৭ দিনের বিনাশ্রম কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত।

একই বছরে ২০১৮ সালের অক্টোবরে রাজধানীর রামপুরা থানার দায়ের করা নাশকতার বিএনপির ১৩ জনকে দুই বছর করে কারাদণ্ড এবং প্রত্যেককে ৫ হাজার টাকা অর্থদণ্ড অনাদায়ে এক মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ড দিয়েছেন ঢাকার মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আতাউল্লাহর আদালত।

কারাদণ্ডপ্রাপ্তরা হলেন আব্দুল কাদের, ডা. খান মতিউর রহমান, লোকমান খান, জহিরুল ইসলাম, মাইনউদ্দিন, আহসান হাবিব, হাফেজ আব্দুল কাইউম ভাই, ইকবাল কবির নিপু, সাখাওয়াত হোসেন রিফাত, মিজানুর রহমান গালিব ওরফে গালিব হাসান ওরফে চৌধুরী ইভান, আজিজুল্লাহ ভূঁইয়া, সালেহ আহমেদ ও লুৎফর রহমান।

এ ছাড়া ২০১৩ সালে নভেম্বরে রাজধানীর বংশাল থানার দায়েরকৃত নাশকতার মামলায় বিএনপির ১৫ জনকে ৬ মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ড এবং অভিযোগ প্রমাণিত না হওয়ায় ৪৬ জনকে খালাসের আদেশ দিয়েছেন ঢাকার অতিরিক্ত মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট মো. সুলতান সোহাগ উদ্দিনের আদালত।

কারাদণ্ডপ্রাপ্তরা হলেন মোহন, তাইজুদ্দিন ওরফে লম্বা তাইজু, শাহাজাহান,মাসুম, ডলার ইকবাল, ইয়াকুব সরকার, হাজী মো. আদিল, মীর মোহাম্মাদ আলী প্রমুখ। কারাদণ্ডের পাশাপাশি তাদেরকে দুই হাজার টাকা অর্থদণ্ড অনাদায়ে এক মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে।


 

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

সর্বমোট পাঠক


বাংলাভাষায় পুর্নাঙ্গ ভ্রমণের ওয়েবসাইট