ছাতকে নদী ভাঙনের কারনে লক্ষাধিক মানুষ দুর্ভোগে

প্রকাশিত: ৪:৫৩ অপরাহ্ণ, ডিসেম্বর ৮, ২০২৩

ছাতকে নদী ভাঙনের কারনে লক্ষাধিক মানুষ দুর্ভোগে

সুনামগঞ্জের ছাতকে অসময়ে নদী ভাঙনের কবলে পড়েছে নদীর তীরবর্তী গোবিন্দগঞ্জ-বিনদপুর পাকা সড়ক। সড়কটির পাকা অংশ নদীতে ভেঙে পড়ার কারনে গাড়ি চলাচল বন্ধ হয়ে গেছে।

গত বৃহস্পতিবার (৭ ডিসেম্বর) সারাদিন বৃষ্টির কারনেই গোবিন্দগঞ্জ-বিনন্দপুর সড়কটি নদীতে ধসে পড়ে যায়। এতে চরম ভোগান্তিতে রয়েছেন তিনটি ইউনিয়নের ২৫টি গ্রামের স্কুল, কলেজ পড়ুয়াসহ লক্ষাধিক জনসাধারণ।

এ সড়ক ভাঙ্গনের ঘটনায় সাবেক উপজেলা প্রকৌশলী আফছর আহমেদ সরেজমিন তদন্ত করে গত ৫ জানুয়ারী সুনামগঞ্জের নির্বাহী প্রকৌশলীকে লিখিত ভাবে অবগত করেছেন। এলজিইডি ও পানি উন্নয়ন বোর্ড এখনো কোন পদক্ষেপ নেয়া হয়নি বলে এলাকাবাসী অভিযোগ করেছেন।

জানা যায়, উপজেলার গোবিন্দগঞ্জ-বিনদপুর সড়কের গোবিন্দনগর ফজলিয়া আলীয়া মাদ্রাসা থেকে সিংঙ্গুগুয়া গ্রাম পর্যন্ত ৫০০ গজ পাকা সড়ক অসময়ে ভেঙে নদীর গর্ভে বিলীন হয়ে গেছে। এ নদীর আগ্রাসী ভাঙনে অনেকেই সর্বস্ব হারিয়ে নিঃস্ব হয়ে গেছেন। বটের খাল নদীর তীরে গোবিন্দনগর এলাকাবাসীর উদ্যোগে সড়কে সংস্কার কাজ করেও সড়কটি সচল রাখতে পারেনি।

এব্যাপারে সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান অলিউর রহমান চৌধুরী বকুল, শিক্ষক রেজাদ্দ আহমদ ও যুবসংহতি নেতা ছাহেদ জানান, গত কয়েক দিন ধরে ভাঙন চললেও এলজিইডি ও পানি উন্নয়ন বোর্ড এখনো ব্যবস্থা গ্রহণ করেনি। দ্রুত ভাঙন রোধ করা সম্ভব না হলে অনেক ঘরবাড়ি ও নানা স্থাপনা নদীর গর্ভে বিলীন হয়ে যাবে।


 

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

সর্বমোট পাঠক


বাংলাভাষায় পুর্নাঙ্গ ভ্রমণের ওয়েবসাইট