গোলাপগঞ্জে কফি ও আনসরস বাগান পরিদর্শণে কৃষি সচিব

প্রকাশিত: ১০:১৩ অপরাহ্ণ, ডিসেম্বর ২, ২০২৩

গোলাপগঞ্জে কফি ও আনসরস বাগান পরিদর্শণে কৃষি সচিব

সিলেটের গোলাপগঞ্জে কফি ও আনারস বাগান পরিদর্শন করেছেন কৃষি মন্ত্রণালয়েরের সচিব ওয়াহিদা আক্তার।

শনিবার (২ ডিসেম্বর) বিকেলে আমুড়া ইউনিয়নের কদম রসুলে ‘কদমরসুল কফি গার্ডেন’ ও লক্ষণাবন্দ ইউনিয়নে অবস্থিত বিশাল আনারস বাগান আলভিনা গার্ডেন পরিদর্শন করেন তিনি। কফি গার্ডেনে পরিদর্শনে যাওয়ার পর কফি দিয়ে তাকে বরণ করে শুভেচ্ছা জানান গার্ডেনের সংশ্লিষ্টরা।

এসময় তার সাথে ছিলেন কৃ্যি গবেষণা কাউন্সিলের নির্বাহী পরিচালক ড. শেখ মোহাম্মদ বখতিয়ার, কৃষি গবেষণা ইন্সটিটিউটের মহাপরিচালক ড. দেবাশীষ সরকার, কৃসি মন্ত্রণালয়ের যুগ্ন সচিব ( গবেষণা অনুবিভাগ) রেহানা ইয়াছমিন, সিলেট কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের অতিরিক্ত পরিচালক (ভারপ্রাপ্ত) খয়ের উদ্দিন মোল্লা, সিলেটের স্থানীয় সরকার বিভাগের উপপরিচালক সুবর্পণা সরকার, গোলাপগঞ্জ উপজেলা চেয়ারম্যান মঞ্জুর কাদির শাফি চৌধুরী এলিম, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মৌসূমী মান্নান, প্রকল্প পরিচালক (লেবু জাতীয়) ফারুক আহমদ, আনিছুজ্জামান ও উপজেলা কৃসি কর্মকর্তা মাশরেফুল আলম।
এরপর উপজেলার লক্ষণাবন্দে অবস্থিত বিশাল আনারস বাগান ‘আলভিনা গার্ডেনে যান। সেখানে তিনি বাগাব পরিদর্শনের পর কৃষক সমাবেশ ও মতবিনিময় সভায় যোগ দেন।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন কৃষি মন্ত্রণালয়েরের সচিব ওয়াহিদা আক্তার।এতে সভাপতিত্ব করেন এতে সভাপতিত্ব করেন কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের মহাপরিচালক বাদল চন্দ্র বিশ্বাস। বক্তব্য রাখেন কৃ্যি গবেষণা কাউন্সিলের নির্বাহী পরিচালক ড. শেখ মোহাম্মদ বখতিয়ার, কৃষি গবেষণা ইন্সটিটিউটের মহাপরিচালক ড. দেবাশীষ সরকার, কৃসি মন্ত্রণালয়ের যুগ্ন সচিব ( গবেষণা অনুবিভাগ) রেহানা ইয়াছমিন, সিলেট কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের অতিরিক্ত পরিচালক (ভারপ্রাপ্ত) খয়ের উদ্দিন মোল্লা, সিলেটের স্থানীয় সরকার বিভাগের উপপরিচালক সুবর্পণা সরকার, গোলাপগঞ্জ উপজেলা চেয়ারম্যান মঞ্জুর কাদির শাফি চৌধুরী এলিম, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মৌসূমী মান্নান, প্রকল্প পরিচালক (লেবু জাতীয়) ফারুক আহমদ, আনিছুজ্জামান, উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা মাশরেফুল আলম ও আলভিনা গার্ডেনের সত্বাধিকারী আব্দর রব রুবেল। অনুষ্টানের পর লেবু বাগান, আনারস বাগান, কাজুবাদাম বাগার ঘুরে ঘুরে দেখেন সচিবসহ অতিথিরা।

আমুড়া এলাকার কদমরসুলে বিশাল এলাকাজুড়ে গড়ে উঠা কফি বাগানটি ৬০ বিঘা ভূমির ওপর অবস্থিত। বাগানে রয়েছে প্রায় ৫হাজার কপি চারা। ৫ কোটি টাকার এ প্রকল্প ছরে আয় হয় প্রায় ১০ লক্ষ টাকা। শনিবার বিকেলে বাগান পরিদর্শনে গেলে কৃষি সচিবকে বসগানের কফি দিয়ে বরণ করেন বাগানে কর্মরত শিউলি আক্তার, সুফিয়া বেগম, শেফালী আক্তার, আবু সুফিয়ান সংশ্লিষ্টরা।


 

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

সর্বমোট পাঠক


বাংলাভাষায় পুর্নাঙ্গ ভ্রমণের ওয়েবসাইট