রাজপথের দুর্বার আন্দোলনে ফ্যাসিস্ট সরকারের পতন হবে : কাইয়ুম চৌধুরী

প্রকাশিত: ৩:০৩ অপরাহ্ণ, মে ৩১, ২০২৩

রাজপথের দুর্বার আন্দোলনে ফ্যাসিস্ট সরকারের পতন হবে : কাইয়ুম চৌধুরী

সিলেট জেলা বিএনপির সভাপতি আব্দুল কাইয়ুম চৌধুরী বলেছেন, শহীদ জিয়ার প্রবর্তিত কালজয়ী দর্শন ‘বাংলাদেশী জাতীয়তাবাদ’ ও তাঁর কালোত্তীর্ণ আদর্শ বাংলাদেশের মানুষের মনে প্রবল উদ্দীপনা জাগিয়ে তোলে। তিনি জাতীয় সকল সংকটে দেশ ও জনগণের পক্ষে অবস্থান গ্রহণ করেন। ফিরিয়ে দেন বহুদলীয় গণতন্ত্র এবং সংবাদপত্র ও নাগরিক স্বাধীনতা। জাতীয় জীবনের চলমান সংকটে শহীদ জিয়ার প্রদর্শিত পথ ও আদর্শ বুকে ধারণ করেই আমাদের সামনে এগিয়ে যেতে হবে এবং জাতীয় স্বার্থ, বহুমাত্রিক গণতন্ত্র এবং জনগণের অধিকার সুরক্ষায় ইস্পাতকঠিন গণঐক্য গড়ে তুলতে হবে। বক্তব্যে আরো বলেন বর্তমান সরকার দেশে একদলীয় শাসনব্যবস্থা পুন:প্রতিষ্ঠা করেছে। কর্তৃত্ববাদী শাসনের নির্মমতা চারদিকে বিদ্যমান। নির্বিচারে গ্রেফতার, মিথ্যা মামলা ও পুলিশি হয়রানী, বিরোধী দলের অধিকার, চিন্তা ও মত প্রকাশের স্বাধীনতাকে সবচেয়ে বড় শত্রু মনে করে বর্তমান সরকার। এই ফ্যাসিস্ট সরকার জনগনের কথা ভাবে না বলে দ্রব্যমূল্যের উর্ধ্বগতি হ্রাস করছে না। গ্যাস ও বিদ্যুৎ সহ নিত্য প্রয়োজনীয় পণ্যের মূল্য বার বার বৃদ্ধি করছে। দেশের সাধারণ মানুষ অর্থ সংকটে কষ্টে দিনযাপন করছে। প্রকারন্তরে সরকার দলের নেতারা লুটপাট করে দেশের লক্ষ লক্ষ কোটি টাকা বিদেশে পাচার করছে। জনগনের ন্যায্য দাবী আদায়ে রাজপথে গণতান্ত্রিক আন্দোলন চলছে। কোন বাঁধা বিপত্তি চলমান আন্দোলন থামবেনা। ফ্যাসিস্ট সরকারের পতন রাজপথের দুর্বার আন্দোলনে নিশ্চিত হবে ইনশাআল্লাহ।

বুধবার (৩১ মে) দুপুরে বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা শহীদ রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমান (বীর উত্তম) এর ৪২তম শাহাদাত বার্ষিকী উপলক্ষে সিলেট জেলা বিএনপি আয়োজিত দুই দিনের কর্মসূচির শেষ দিনে দক্ষিণ সুরমার চন্ড্রিপুল এালাকায় সুবিধা বঞ্চিত মানুষদের মাঝে খাবার বিতরণ কালে সভাপতির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

সিলেট জেলা বিএনপির সভাপতি আব্দুল কাইয়ুম চৌধুরীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সংক্ষিপ্ত সভাটি সঞ্চালনা করেন জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট এমরান আহমদ চৌধুরী।

সিলেট জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট এমরান আহমদ চৌধুরী বলেন, সরকার বিএনপির কর্মসূচি সমূহে জনগনের অংশগ্রহণ দেখে ভীতসন্ত্রস্ত হয়ে পড়েছে। আমাদের নিয়মতান্ত্রিক ও গণতান্ত্রিক আন্দোলন কর্মসূচিতে বাঁধা দিচ্ছে। সিলেট মুক্তিকামী মানুষ সকল বাঁধা বিপত্তি ডিঙ্গিয়ে বিএনপি ঘোষিত ১০ দফা দাবী বাস্তবায়ন করতে রাজপথে ঐক্যবদ্ধভাবে এসব কর্মসূচি সফল করছে। এই ফ্যাসিস্ট সরকারের পতন নিশ্চিত না হওয়া পর্যন্ত জিয়ার সৈনিকরা ঘরে ফিরে যাবে না।

সংক্ষিপ্ত সভায় বক্তব্য রাখেন সিলেট জেলা বিএনপি সিনিয়র সহসভাপতি এডভোকেট আশিক উদ্দিন আশুক, সহ সভাপতি মামুনুর রশিদ মামুন (চাকশু), ড্যাব, সিলেটের সভাপতি ডাঃ নাজমুল ইসলাম, জেলা বিএনপির সহ সভাপতি হাজী শাহাব উদ্দিন আহমদ, ফখরুল ইসলাম ফারুক, গোলাম রব্বানী, যুগ্ম সম্পাদক ইশতিয়াক আহমদ সিদ্দিকী, তাজরুল ইসলাম তাজুল, এডভোকেট আবু তাহের, ওয়াহিদুজ্জামান চৌধুরী সুফি, এডভোকেট মোমিনুল ইসলাম মোমিন, কোহিনুর আহমদ, রফিকুল ইসলাম শাহপরান, কেন্দ্রীয় যুবদলের সহ সাধারণ সম্পাদক মকসুদ আহমদ।


এতে উপস্থিত ছিলেন- সিলেট জেলা বিএনপির সাংগঠনিক এডভোকেট আল আসলাম মুমিন, শ্রম বিষয়ক সম্পাদক আব্দুর রহমান, মৎস উন্নয়ন বিষয়ক সম্পাদক জালাল খান, সহ দপ্তর সম্পাদক মাহবুব আলম, সহ সাংগঠনিক সম্পাদক অর্জুন ঘোষ ও মনিরুল ইসলাম তুরন, সহ আইন বিষয়ক সম্পাদক এডভোকেট ওবায়দুর রহমান ফাহমী, সহ কৃষি বিষয়ক সম্পাদক শামসুর রহমান সুজা, সহ ধর্ম বিষয়ক আহমদ সোলায়মান, সহ ক্রীড়া সম্পাদক সুমেল আহমদ চৌধুরী, সহ সাংস্কৃতিক সম্পাদক রায়হান এইচ খাঁন, জেলা বিএনপির উপদেষ্টা নুরুল আমিন দুলু, সদস্য রেজাউল করিম রায়হান, সাদিকুর রহমান টিপু, সুহেল ইবনে রাজা, বিএনপি নেতা আব্দুল লতিফ খাঁন, মযনুল ইসলাম মঞ্জু, এনামুল হক, মকসুদুল করিম নুহেল, রায়হানুল হক, তোফায়েল আহমেদ, আবু বকর সিদ্দিক, আব্দুল মজিদ, এড. মোবারক হোসেন, রিফল আহমদ, রাসেল আহমদ, শ্রমিক নেতা ফয়সাল আহমদ, আব্দুর রহমান, জীলানী আহমেদ, ইলাছ মিয়া প্রমূখ।


 

সর্বমোট পাঠক


বাংলাভাষায় পুর্নাঙ্গ ভ্রমণের ওয়েবসাইট