৫ মে সংঘটিত খুন ও নির্যাতনের বিচারের দাবি বহাল আছে ও থাকবে : হেফাজত আমির

প্রকাশিত: ৫:৪৭ অপরাহ্ণ, মে ৫, ২০২৩

৫ মে সংঘটিত খুন ও নির্যাতনের বিচারের দাবি বহাল আছে ও থাকবে : হেফাজত আমির

৫ মে সংঘটিত খুন ও নির্যাতনের বিচারের দাবি বহাল আছে ও থাকবে বলে বিবৃতি জানিয়েছেন হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশের আমির ও প্রবীণ আলেম আল্লামা শাহ মুহিব্বুল্লাহ বাবুনগরী।

শুক্রবার (৫ মে) দেয়া এক বিবৃতিতে তিনি বলেন, আমরা ২০১৩ সাল থেকেই ৫ মে শাপলা চত্বরের গণহত্যা, খুন ও নির্যাতনের বিচার দাবি করে আসছি। এখনো করছি এবং করতেই থাকব। শহিদদের রক্তের বিনিময়ে এ দেশে আল্লাহর দ্বীনের বিজয় পতাকা অবশ্যই উড়বে ইনশাআল্লাহ।

হেফাজত আমির বলেন, আজ ঐতিহাসিক ৫ মে। শাপলা চত্বরে আশেকে রাসূলদের শাহাদাতের দিন। যারা ইসলাম ও প্রিয় নবীর ইজ্জতের হেফাজতে শহীদ হয়েছেন, রক্ত ঝরিয়েছেন, আমরা তাদের ভুলতে পারি না। আমরা ভুলতে পারি না নির্যাতিতদের কথা, মিথ্যা মামলায় গ্রেফতারদের কষ্টের কথা। ভুলতে পারি না গত ১০ বছর ধরে মিথ্যা ও ষড়যন্ত্রমূলক মামলায় হয়রানির শিকার ও নির্যাতিত মজলুম ভাইদের কথা।

ঐতিহাসিক ৫ মে শাপলা চত্বরের শহীদ দিবসকে স্মরণ করে তিনি আরো বলেন, এই ইসলাম বিদ্বেষী জালিম সরকার সেদিন আলেম-উলামা ও তৌহিদী জনতার উপর গণহত্যা চালিয়েছিল। রাতের আঁধারে গুলি করে হত্যা করেছিল অসংখ্য তলাবা, উলামা ও তৌহিদী জনতাকে।

তিনি বলেন, হেফাজতে ইসলামের কর্মীরা ১৩ দফা ঈমানী দাবি নিয়ে শাপলা চত্বরে অবস্থান করছিল। ইসলাম বিদ্বেষী ও নাস্তিক্যবাদী জালেম শান্তিপূর্ণ সমাবেশে বর্বরোচিত হামলা চালিয়েছে। রক্ত ঝরিয়েছিল হাজারো আশেকে রাসূলের। শাপলার এই গণহত্যার ইতিহাস দেশপ্রেমিক ঈমানদার জনতা কখনো ভুলবে না। আল্লাহর জমিনে এক দিন এই গণহত্যার বিচার হবেই ইনশাআল্লাহ।

হেফাজত আমির বলেন, আমরা সব সময়ই তাদের জন্য আল্লাহ রাব্বুল আলামিনের দরবারে দোয়া করছি। মহান আল্লাহ পাকের কাছে খুনিদের বিচারের জন্য ফরিয়াদ জানিয়েছে। বাংলাদেশের মুসলিমদের উপর যে অত্যাচার জুলুম নির্যাতন চলছে, তার ইহলৌকিক ফায়সালার জন্য সবাইকে কায়মনোবাক্যে মহান রাব্বুল আলামিনের দরবারে দোয়া করার জন্য আহ্বান জানাচ্ছি।