২ উইকেটেই ১৫৮ রানের ইনিংস বাংলাদেশের

প্রকাশিত: ৫:০১ অপরাহ্ণ, মার্চ ১৪, ২০২৩

২ উইকেটেই ১৫৮ রানের ইনিংস বাংলাদেশের

ওয়ানডে সিরিজে মোটে ৭ রান আর টি-টোয়েন্টি সিরিজের প্রথম দুই ম্যাচে করেন ২১ রান; তবে ব্যর্থতার বেড়াজাল ভেঙে সিরিজের শেষ ম্যাচে রানে ফিরেছেন লিটন দাস। আজ মঙ্গলবার ইংল্যান্ডের বিপক্ষে খেলেছেন ক্যারিয়ার সেরা ৭৩ রানের ইনিংস। তার এই ইনিংসে ভর করে ২ উইকেটে ১৫৮ রানের সংগ্রহ পেয়েছে বাংলাদেশ।

রানের পরিমাণ আরো বেশি হতো নিঃসন্দেহে। ১৫ ওভারে ১৩১ রান করে বাংলাদেশ খেই হারিয়ে ফেলে। হঠাৎই কমে আসে রানের গতি, ৯ উইকেট হাতে রেখেও শেষ ৫ ওভারে মাত্র ২৭ রান যোগ করে টাইগাররা; আসে মাত্র ১টি বাউন্ডারি! মাঠে থেকেও কিছু করতে পারেননি অধিনায়ক সাকিব আল হাসান। তিনি ৬ বলে ৪ আর শান্ত অপরাজিত থাকেন ৩৬ বলে ৪৭ রানে।

অবশ্য টসে হেরে ব্যাট করতে নেমে এদিন ভালো শুরু পায় বাংলাদেশ। জমে উঠে উদ্বোধনী জুটি, দুই ওপেনার লিটন দাস ও রনি তালুকদার মিলে পাওয়ার প্লেতে যোগ করেছেন ৪৬ রান। অবশ্য পাওয়ার প্লের শেষ ওভারে এসে ভেঙে যেতে পারতো এই জুটি, আউট হয়ে যেতে পারতেন রনি তালুকদার। তবে রেহান আহমেদ সহজ ক্যাচ মিস করায় পাওয়ার প্লে শেষেও উইকেটবিহীন থাকে বাংলাদেশ।

পাওয়ার প্লে শেষ হতেই ভেঙেছে উদ্বোধনী জুটি। জীবন পেয়েও ইনিংসটা বড় করতে পারেননি রনি তালুকদার। আদিল রাশিদের বলে ফিরতি ক্যাচ দিয়ে ফিরেছেন তিনি। আউট হবার আগে খেলেছেন ২২ বলে ২৪ রানের ইনিংস। রনির বিদায়ে ভাঙে ৫৫ রানের উদ্বোধনী জুটি। তবে একপ্রান্ত আগলে রেখে দারুণ খেলতে থাকেন আরেক ওপেনার লিটন দাস।

পুরো সিরিজ নিস্প্রভ থাকা লিটন দাস এদিন জ্বলে উঠেন স্বরূপে। রনি তালুকদারের পর নাজমুল হোসেন শান্তকে নিয়ে দলীয় শতক পূরণ করেন তিনি, সেই সাথে তুলে নেন টি-টোয়েন্টি ক্যারিয়ারে নিজের নবম অর্ধশতক। লিটনকে যোগ্য সঙ্গ দিতে থাকেন নাজমুল শান্ত। সিরিজে বাংলাদেশের সেরা এই পারফর্মার এদিনও জ্বলে উঠেন ধারাবাহিকতা ধরে রেখে। ফলে ইংল্যান্ডের জন্যে ভয়ের কারণ হয়ে উঠতে থাকে লিটন-শান্ত জুটি।

এই জুটি ভাঙে ১৭তম ওভার শেষে দলীয় ১৩৯ রানে। ক্যারিয়ার সেরা ৭৩ রান করে আউট হন লিটন, ১০ চার আর ১ ছক্কায় ৫৭ বলে এই রান করেন তিনি। লিটন আউট হওয়ার আগের ওভার থেকেই অবশ্য কমে আসতে থাকে রানের গতি। নবম ওভারে ১০ রান আসলেও অবিশ্বাস্যভাবে মাত্র ১৫৮ রানেই থামে বাংলাদেশের ইনিংস। ইংল্যান্ডের হয়ে একটি করে উইকেট নেন ক্রিস জর্ডান ও আদিল রাশিদ।


এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

সর্বমোট পাঠক


বাংলাভাষায় পুর্নাঙ্গ ভ্রমণের ওয়েবসাইট