জঙ্গি ছিনতাইয়ে জড়িত একজন গ্রেপ্তার

প্রকাশিত: ৭:২২ অপরাহ্ণ, নভেম্বর ২৩, ২০২২

জঙ্গি ছিনতাইয়ে জড়িত একজন গ্রেপ্তার

ঢাকার চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের ফটকের সামনে থেকে পুলিশের ওপর হামলা চালিয়ে জঙ্গি ছিনিয়ে নেওয়ার ঘটনায় একজনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। তার নাম মেহেদী হাসান অমি ওরফে রাফি (২৪)। তিনি জঙ্গি ছিনতাইয়ে অংশ নিয়েছিলেন এবং ওই ঘটনায় করা মামলার আসামি।

বুধবার ডিএমপির মিডিয়া অ্যান্ড পাবলিক রিলেশন্স বিভাগের উপ-পুলিশ কমিশনার মো. ফারুক হোসেন ঢাকা টাইমসকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।
তিনি বলেন, মেহেদী হাসান জঙ্গি ছিনতাইয়ের ঘটনায় সরাসরি অংশ নিয়েছিলেন। মেহেদী হাসান জঙ্গি ছিনতাইয়ের ঘটনায় করা মামলার ১৪ নম্বর আসামি। তবে কখন কোথা থেকে তাঁকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে, সেটি জানাননি তিনি।

সূত্র জানায়, মেহেদী আনসার আল ইসলামের সামরিক শাখার সদস্য। তাঁর বাড়ি সিলেটে। ব্লগার নাজিমউদ্দীন সামাদ হত্যার মিশনেও অংশ নিয়েছিলেন তিনি।

২০১৬ সালের ৬ এপ্রিল পুরান ঢাকার লক্ষ্মীবাজারে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র নাজিমউদ্দীন সামাদকে চাপাতি দিয়ে কুপিয়ে ও গুলি করে হত্যা করেন জঙ্গিরা। হত্যাকাণ্ডের পর তাঁরা দুটি মোটরসাইকেলে করে পালিয়ে যান।

গত রবিবার ঢাকার চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের ফটকে পুলিশকে মারধর ও চোখে পিপার স্প্রে করে নিষিদ্ধ সংগঠন আনসার আল ইসলামের দুই সদস্যকে ছিনিয়ে নিয়ে যান জঙ্গিরা। তাঁরা হলেন মইনুল হাসান শামীম ওরফে সিফাত সামির ও মো. আবু ছিদ্দিক সোহেল ওরফে সাকিব। ওই দুজনসহ ১২ আসামিকে সন্ত্রাসবিরোধী ট্রাইব্যুনাল থেকে ঢাকার চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের (সিএমএম) হাজতখানায় নেওয়া হচ্ছিল। ছিনিয়ে নেওয়া দুই জঙ্গি জাগৃতি প্রকাশনীর প্রকাশক ফয়সল আরেফিন দীপন এবং লেখক ও ব্লগার অভিজিৎ রায় হত্যা মামলার মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত আসামি। এ ছাড়া আরও কয়েকটি হত্যা মামলারও আসামি তাঁরা।