প্রকাশিত সংবাদের প্রতিবাদ

প্রকাশিত: ১২:০৬ পূর্বাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ২৫, ২০২২

প্রকাশিত সংবাদের প্রতিবাদ


ত ২৩ সেপ্টেম্বর শুক্রবার দৈনিক হবিগঞ্জের জনতার এক্সপ্রেস ও গতকাল শনিবার ২৪ সেপ্টেম্বর দৈনিক বিজয়ের প্রতিধ্বনী, দৈনিক হবিগঞ্জ সময়, দৈনিক হবিগঞ্জের বাণী সহ বিভিন্ন স্থানীয় পত্রিকার ১ম পৃষ্টায় নবীগঞ্জে ফুচকা হাটে বার্গার খেয়ে ৬ এসএসসি পরীক্ষার্থী গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়েছেন শিরোনামে সংবাদটি আমার দৃষ্টি গোছর হয়েছে। সংবাদটি সম্পূর্ন মিথ্যা, বানোয়াট, ভিত্তিহীন, মানহানীকর, উদ্দেশ্য প্রনোদিত ও কাল্পনিক বটে। আমি আঃ কায়ুম, পিতা- মোঃ মহরম আলী, সাং কামালপুর, ৭নং করগাঁও ইউপি, নবীগঞ্জ, গত মঙ্গলবার ২০ সেপ্টেম্বর (দুপুরের দিকে) আমার ভাগনী, ভাতিজা, ভাতিজীসহ ৬ জন মিলে নবীগঞ্জের ওসমারী রোডস্থ ফুচকা হাটে বার্গার খাই এবং ১টি বার্গার পার্সেলও নেই। খাওয়া দাওয়া শেষে সুস্থ শরীরে আমরা সবাই নিজ বাড়ীতে চলে যাই। পরদিন অর্থাৎ ২১ সেপ্টেম্বর বুধবার দিবাগত রাত অনুমান দেড়টায় (অর্থাৎ ২২ সেপ্টেম্বর বৃহস্পতিবার) রাতে আমি ওই প্রতিষ্ঠানের মালিক ফাহিম চৌধুরীকে আমার ভাগনী, ভাতিজা, ভাতিজী অসুস্থ্য হওয়ার বিষয়টি জানাই ও পরে তাদের প্রাথমিক চিকিৎসা করাই এবং পরবর্তীতে তারা সবাই সুস্থ্য হয়ে ২২ সেপ্টেম্বর বৃহস্পতিবার এসএসসি পরীক্ষায় অংশ করে। আমাদের মনের ধারনা ছিল যে হয়তোবা ফুচকা হাটে বার্গার খেয়ে তারা অসুস্থ হয়েছে। প্রকৃতপক্ষে আমাদের ওই বিষয়টি সম্পূর্নরূপে ভুলবুঝাবুঝি ছিল। উল্লেখ্য, একটি কু-চক্রি মহলের কোন লোক আমার বা আমার আত্মীয় স্বজনের এবং স্বনামধন্য প্রতিষ্ঠান ফুচকা হাটে’র সুনাম নষ্ট করার হীন উদ্দেশ্যে সাংবাদিক ভাইদের ভুল তথ্য দিয়ে সংবাদটি প্রকাশ করেছে। তাই সংগত কারণে আমি নিজ ইচ্ছায়, স্ব-উদ্যোগে প্রকাশিত সংবাদটির তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাই।


প্রতিবাদকারী
আঃ কায়ুম,
পিতা- মোঃ মহরম আলী,
সাং কামালপুর, ৭নং করগাঁও ইউপি,
নবীগঞ্জ, হবিগঞ্জ।