রংপুরে দুই বাসের সংঘর্ষে নিহতের সংখ্যা বেড়ে ৯

প্রকাশিত: ১১:৪১ পূর্বাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ৫, ২০২২

রংপুরে দুই বাসের সংঘর্ষে নিহতের সংখ্যা বেড়ে ৯

রংপুরে যাত্রীবাহী দুই বাসের মুখোমুখি সংঘর্ষে নিহত বেড়ে নয়জনে দাঁড়িয়েছে। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন প্রায় অর্ধশত।

রোববার দিবাগত রাত সাড়ে ১২টার দিকে রংপুর-দিনাজপুর মহাসড়কের তারাগঞ্জে খারুভাজ সেতুর কাছে এ দুর্ঘটনা ঘটে। এতে ঘটনাস্থলে পাঁচজন ও হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় আরো চারজন মারা গেছেন।

রমেক হাসপাতালের জরুরি বিভাগের চিকিৎসক মোঃ ফরহাদুজ্জামান জানান, রাত ৩টার দিকে চিকিৎসাধীন অবস্থায় দু’জন এবং ভোরে একজনের মৃত্যু হয়েছে। আহত বাকিদের মধ্যে আরো দু’জনের অবস্থা আশঙ্কাজনক।

স্থানীয় সূত্র জানায়, প্রবল বৃষ্টির মধ্যে রাত সোয়া ১২টার দিকে রংপুর-দিনাজপুর মহাসড়কের শলেয়াশাহ খারুভাজ সেতুর কাছে জোয়ানা পরিবহনের একটি বাসের সাথে ইসলাম পরিবহনের একটি বাসের মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। দুর্ঘটনার খবর পেয়ে পুলিশ, ফায়ার সার্ভিস ও স্থানীয়রা উদ্ধারকাজে অংশ নেয়।

যাত্রীদের অভিযোগ, বেপরোয়া গাড়ি চালানো আর নেশার ঘোরে এ দুর্ঘটরা ঘটেছে। রং সাইডে গাড়ি চালোনোর কারণে এ দুর্ঘটনা বলেও অভিযোগ তাদের।

তারাগঞ্জ ফায়ার সার্ভিস অ্যান্ড সিভিল ডিফেন্সের ভারপ্রাপ্ত স্টেশন ইনচার্জ খতিবুর রহমান বলেন, দুর্ঘটনায় আহত ব্যক্তিদের উদ্ধার করে তারাগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স এবং রংপুর মেডিক্যাল কলেজ (রমেক) হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। এছাড়া ঘটনাস্থল থেকে পাঁচজনের লাশ উদ্ধার করে মর্গে পাঠানো হয়।

তারাগঞ্জ হাইওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শেখ মোহাম্মদ মাহবুব মোর্শেদ বলেন, রাত সোয়া ১২টার দিকে রংপুর-দিনাজপুর আঞ্চলিক সড়কের শলেয়াশাহ খারুভাজ সেতুর কাছে যাত্রীবাহী জোয়ানা পরিবহনের সাথে ইসলাম পরিবহনের একটি বাসের সংঘর্ষ হয়। এতে ঘটনাস্থলেই পাঁচজন নিহত হয়। দুর্ঘটনায় অন্তত ৫০ জন আহত হন।

দুর্ঘটনার খবর পেয়ে পুলিশ, ফায়ার সার্ভিস ও স্থানীয় ব্যক্তিরা উদ্ধার কাজ শুরু করেন। হতাহত ব্যক্তিদের উদ্ধার করে হাসপাতালে পাঠানো হয়। হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় আরো চারজনের মৃত্যু হয়েছে। তিনি নিহত ও আহতদের নাম পরিচয় জানাতে পারেননি।


সর্বমোট পাঠক


বাংলাভাষায় পুর্নাঙ্গ ভ্রমণের ওয়েবসাইট