তিন দশক পর নারী প্রধানমন্ত্রী পেল ফ্রান্স

প্রকাশিত: ১০:১৫ পূর্বাহ্ণ, মে ১৭, ২০২২

তিন দশক পর নারী প্রধানমন্ত্রী পেল ফ্রান্স

ফ্রান্সের শ্রম ও কর্মসংস্থান বিষয়ক মন্ত্রী এলিজাবেথ বর্নিকে দেশটির নতুন প্রধানমন্ত্রী হিসেবে নিয়োগ দিয়েছেন ফরাসি প্রেসিডেন্ট এমানুয়েল মাখোঁ। এর মধ্য দিয়ে ৩ দশকের বেশি সময় পর দেশটিতে একজন নারী সরকারপ্রধানের দায়িত্ব নিতে যাচ্ছেন।

ফরাসি প্রেসিডেন্টের সরকারি দফতর এলিসি প্রাসাদ থেকে সোমবার (১৬ মে) এক বিবৃতিতে বিষয়টি নিশ্চিত করা হয়।

৬১ বছর বয়সী এলিজাবেথ বর্নি বর্তমান প্রধানমন্ত্রী জ্যঁ ক্যাসটেক্সের স্থলাভিষিক্ত হবেন। এর আগে বর্তমান প্রধানমন্ত্রী জ্যঁ ক্যাসটেক্স দেশটির প্রেসিডেন্টের কাছে পদত্যাগপত্র জমা দেন। গত এপ্রিলে প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে দ্বিতীয়বার জয়ী হন এমানুয়েল ম্যাক্রোঁ। জানা গেছে, ম্যাক্রোঁর নতুন সরকারে ব্যাপক রদবদল ঘটছে এবার।

এর আগে নারী সরকারপ্রধান হিসেবে ফ্রান্সে দায়িত্ব পালন করেছিলেন এডিথ ক্রেসন। তিনি ১৯৯১ সালের মে মাস থেকে পরের বছরের এপ্রিল পর্যন্ত দেশটির প্রধানমন্ত্রীর দায়িত্বে ছিলেন।

গত ২৪ এপ্রিল ৪৪ বছর বয়সী এমানুয়েল ম্যাক্রোঁ প্রেসিডেন্ট পদে জয়ী হন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী ছিলেন মেরিন লে পেন। নির্বাচনী প্রচারণায় এমানুয়েল ম্যাক্রোঁ প্রতিশ্রুতি দিয়ে বলেন, জ্বালানি খাতে খরচ নাগালের ভেতরে রাখার জন্য তার সরকার ইতোমধ্যে কোটি কোটি ইউরো খরচ করেছে। এছাড়া তিনি চাকরিদাতাদের প্রস্তাব দিয়েছেন তাদের কর্মীদের ৬০০০ ইউরো পর্যন্ত বোনাস হিসেবে দেওয়ার জন্য। তিনি শিক্ষকদের বেতন বাড়াতে চান এবং টিভি লাইসেন্স ফি বাতিল করতেও প্রস্তুত।

এ ছাড়া নিরাপত্তা ব্যবস্থা আরও জোরদার করার কথা বলেছেন ম্যাক্রোঁ। তিনি এটাও দাবি করেন যে, তার সময়ে অপরাধ কমেছে দেশটিতে। তাছাড়া সামাজিক সংস্কার বাস্তবায়ন এবং নারীদের বিভিন্ন বিষয়ে উন্নয়নেরও প্রতিশ্রুতি দেন তিনি।

আগামী জুনে ফরাসি পার্লামেন্টে গুরুত্বপূর্ণ নির্বাচন হবে। ধারণা করা হচ্ছে, এর আগে বামপন্থী জোট ও কট্টর ডানপন্থীরা মাক্রোঁর সামনে বড় চ্যালেঞ্জ ছুঁড়ে দিতে পারেন। এসব চ্যালেঞ্জ মোকাবিলায় তিনি একজন অভিজ্ঞ ও দক্ষ নারীকে প্রধানমন্ত্রী হিসেবে নিয়োগ দিলেন।

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

সর্বমোট পাঠক


বাংলাভাষায় পুর্নাঙ্গ ভ্রমণের ওয়েবসাইট