এমবিবিএস-বিডিএস ছাড়া কেউ ডাক্তার লিখতে পারবে না

প্রকাশিত: ৬:১৭ অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ৮, ২০২২

এমবিবিএস-বিডিএস ছাড়া কেউ ডাক্তার লিখতে পারবে না

বাংলাদেশ মেডিকেল অ্যান্ড ডেন্টাল কাউন্সিলের (বিএমডিসি) নিবন্ধনভুক্ত মেডিকেল বা ডেন্টাল ইনস্টিটিউট কর্তৃক এমবিবিএস বা বিডিএস ডিগ্রিধারী ছাড়া কেউ নামের পূর্বে ডাক্তার (ডা.) পদবি ব্যবহার করতে পারবেন না।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক ডা. পরিমল কুমার পালের সই করা এক নির্দেশনায় এ তথ্য জানানো হয়েছে।

নির্দেশনাটি সারা দেশের সিভিল সার্জন বরাবর পাঠানো হয়েছে।

নির্দেশনায় বলা হয়েছে, মহামান্য সুপ্রিম কোর্টের হাইকোর্ট বিভাগের রিট পিটিশন নং-৫৩৫/২০১৯ মোকদ্দমার রায় অনুসারে বিকল্প ধারার চিকিৎসা পদ্ধতির পেশাধারীরা নামের পূর্বে- ডাক্তার লিখতে পারবেন না। বিএমডিসি আইন-২০১০ এর ২৯ ধারা মোতাবেক নিবন্ধনভুক্ত মেডিকেল বা ডেন্টাল ইনস্টিটিউট কর্তৃক এমবিবিএস অথবা বিডিএস ডিগ্রিধারী ছাড়া কেউ (ডা.) পদবি ব্যবহার করতে পারবেন না।

তবে, বিকল্প ধারার চিকিত্সা পদ্ধতির পেশাধারীরা নামের পূর্বে ইন্টিগ্রেটেড ফিজিশিয়ান, কমপ্লিমেন্টারি ফিজিশিয়ান, ইন্টিগ্রেটেড মেডিসিন প্র্যাকটিশনার, কমপ্লিমেন্টারি মেডিসিন প্র্যাকটিশনার- পদবি ব্যবহার করতে পারেন বলেও নির্দেশনায় জানানো হয়েছে।

এতে আরও বলা হয়েছে, আপিল মামলা নিষ্পত্তি না হওয়া পর্যন্ত বর্তমান রিট মামলা নং ৫৩৫/২০১১ এর রায় বহাল থাকবে মর্মে প্রতীয়মান হয়।

উল্লেখ্য, ‘বাংলাদেশ মেডিকেল ও ডেন্টাল কাউন্সিল আইন, ২০১০’-এর ‘ভুয়া পদবি, ইত্যাদি ব্যবহার নিষিদ্ধ’ অংশের ২৯ ধারায় বলা আছে- (১) এই আইনের অধীন নিবন্ধনকৃত কোন মেডিকেল চিকিৎসক বা ডেন্টাল চিকিৎসক এমন কোন নাম, পদবি, বিবরণ বা প্রতীক এমনভাবে ব্যবহার বা প্রকাশ করিবেন না যাহার ফলে তাহার কোন অতিরিক্ত পেশাগত যোগ্যতা আছে মর্মে কেহ মনে করিতে পারে, যদি না উহা কোন স্বীকৃত মেডিকেল চিকিৎসা-শিক্ষা যোগ্যতা বা স্বীকৃত ডেন্টাল চিকিৎসা-শিক্ষা যোগ্যতা হইয়া থাকে। ন্যূনতম এমবিবিএস অথবা বিডিএস ডিগ্রি প্রাপ্তগণ ব্যতীত অন্য কেহ তাহাদের নামের পূর্বে ডাক্তার পদবি ব্যবহার করিতে পারিবে না।

(২) কোন ব্যক্তি উপ-ধারা (১) এর বিধান লঙ্ঘন করিলে উক্ত লঙ্ঘন হইবে একটি অপরাধ, এবং তজ্জন্য তিনি ৩ (তিন) বৎসর কারাদণ্ড বা ১ (এক) লক্ষ টাকা অর্থ দণ্ড অথবা উভয় দণ্ডে দণ্ডনীয় হইবেন, এবং উক্ত অপরাধ অব্যাহত থাকিলে, প্রত্যেকবার উহার পুনরাবৃত্তির জন্য অন্যূন ৫০ (পঞ্চাশ) হাজার টাকা অর্থ দণ্ডে, বর্ণিত দণ্ডের অতিরিক্ত হিসাবে, দণ্ডনীয় হইবেন।


 

  •  

সর্বমোট পাঠক


বাংলাভাষায় পুর্নাঙ্গ ভ্রমণের ওয়েবসাইট