দারুণ শুরুর পর অস্বস্তিতে দিন শেষ

প্রকাশিত: ৫:১৬ অপরাহ্ণ, নভেম্বর ২৮, ২০২১

দারুণ শুরুর পর অস্বস্তিতে দিন শেষ

আগের দুদিনের তুলনায় জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামের গ্যালারী পূর্ণতা পায়নি। প্রতিদিন পাঁচ হারাজ টিকিট বিক্রি হলেও চট্টগ্রাম টেস্টের তৃতীয় দিন সব মিলিয়ে হাজার দেড়েক দর্শকের বেশি হওয়ার কথা নয়। দিনের প্রথম দুই সেশনে সংখ্যাটা আরো কম ছিল। সমর্থক কম থাকলেও মুমিনুল হকের দলকে উৎসাহিত করতে গোটা স্টেডিয়ামে কম্পন উঠে বাংলাদেশ-বাংলাদেশ ধ্বনিতে। শেষ বিকেলে এসে ক্রমশ মিলিয়ে গেল সেই আওয়াজ।


তাইজুল ইসলামের খুরধার বোলিংয়ে ২৮৬ রানেই মাঠ ছাড়তে হয় পাকিস্তানকে। একাই ৭ উইকেট নিয়েছেন তিনি। প্রথম ইনিংসেই বাংলাদেশ লিড নিয়েছে ৪৪ রানের।

চট্টগ্রাম টেস্টের তৃতীয় দিনের পুরো গল্পের এ পর্যন্ত সুখকরই ছিল বাংলাদেশের জন্য। কিন্তু দ্বিতীয় ইনিংসে ব্যাট করতে নেমে চরম হতাশা উপহার দিয়েছে টাইগার ব্যাটাররা। ২৫ রানেই ৪ উইকেট হারিয়ে ব্যাটিং বিপর্যয়ে পড়ে যায় স্বাগতিকরা।

শেষ পর্যন্ত মুশফিকুর রহীম এবং ইয়াসির আলি রাব্বির ব্যাটে দিন শেষ করেছে বাংলাদেশ। স্কোরবোর্ডে সংগ্রহ দাঁড়িয়েছে ৪ উইকেটে ৩৯। মোট লিড দাঁড়িয়েছে ৮৩ রানের। ১২ রান নিয়ে ব্যাট করছেন মুশফিকুর রহিম এবং ইয়াসির আলি রাব্বি উইকেটে আছেন ৮ রান নিয়ে।

তৃতীয় দিন শেষ হওয়ার আগে ১৫ রানে তিন সেরা ব্যাটারকে হারিয়ে যখন ধুঁকছিল বাংলাদেশ তখন কিছুটা আশার প্রদীপ জ্বালিয়ে রেখেছিলেন ওপেনার সাইফ হাসান। অন্য তিনজনের আসা-যাওয়া দেখার মাঝে তিনি ছিলেন কিছুটা অবিচল।

কিন্তু শেষ পর্যন্ত আর অবিচল থাকতে পারলেন না। মুশফিকুর রহীমের সাথে জুটি বেঁধেছেন কেবল ১০ রানের। ব্যক্তিগত ১৮ রানের মাথায় শাহিন শাহ আফ্রিদির হাতে রিটার্ন ক্যাচ দিয়ে ফিরে গেলেন তিনিও। ২৫ রানে পড়লো ৪ উইকেট। বলাই যায়, চরম ব্যাটিং বিপর্যয়ে পড়েছে বাংলাদেশ।

এর আগে চট্টগ্রাম টেস্টের প্রথম ইনিংসে ৪৪ রানের লিড নিয়ে দ্বিতীয় ইনিংসে ব্যাট করতে নেমে দারুণ ব্যাটিং বিপর্যয়ে পড়েছে বাংলাদেশ। শুরুতেই হারিয়ে বসেছে দলের সেরা তিন ব্যাটার সাদমান ইসলাম, নাজমুল হোসেন শান্ত এবং অধিনায়ক মুমিনুল হকের উইকেট।


 

সর্বমোট পাঠক


বাংলাভাষায় পুর্নাঙ্গ ভ্রমণের ওয়েবসাইট