খালেদা জিয়ার মুক্তি ও বিদেশে সুচিকিৎসার ব্যবস্থা করুন : কাহের শামীম

প্রকাশিত: ৭:৩০ অপরাহ্ণ, নভেম্বর ২২, ২০২১

খালেদা জিয়ার মুক্তি ও বিদেশে সুচিকিৎসার ব্যবস্থা করুন : কাহের শামীম

সিলেট জেলা বিএনপির বিক্ষোভ সমাবেশ


বিএনপির কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য ও জেলা বিএনপির আহবায়ক কমিটির ১নং সদস্য আবুল কাহের চৌধুরী বলেছেন, আওয়ামীলীগ আদর্শিক মোকাবেলায় ব্যর্থ হয়ে জাতীয়তাবাদী শক্তিকে নিশ্চিহ্ন করার ষড়যন্ত্র করছে। তারা তিন বারের সাবেক সফল প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে মৃত্যুর মুখে ঠেলে দিতে চায়। গুরুতর অসুস্থ নেত্রীর সুচিকিৎসা নিশ্চিত করতে বিদেশে নিতে বলেছেন বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকগন। কিন্তু সরকার সেই দাবী উপেক্ষা করে আইন ও মানবাধিকারের প্রতি বৃদ্ধাঙ্গুলী প্রদর্শন করছে। এর পরিনতি ভালো হবেনা।
এমন অমানবিক ও জঘন্য কর্মকান্ডের কারণে আওয়ামীলীগকে জাতি কোনদিন ক্ষমা করবেনা। তিনি বলেন, সময় থাকতে সরকারের শুভ বুদ্ধির উদয় না হলে আওয়ামী লীগকে চড়া মূল্য দিতে হবে। মহান স্বাধীনতার ঘোষক বহুদলীয় গণতন্ত্রের প্রবক্তা শহীদ রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের সুযোগ্য সহধর্মিনী তিন বারের সাবেক সফল প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়ার চিকিৎসা নিয়ে আর কোন ষযড়ন্ত্র জাতি বরদাশত করবেনা। ষড়যন্ত্র করে জাতীয়তাবাদী শক্তিকে নিশ্চিহ্ন করা যাবেনা।
সরকারকে ভুলে গেলে চলবেনা ইতিহাস স্বাক্ষী কোন স্বৈরাচারের শেষ পরিনতি ভালো হয়নি। অবিলম্বে দেশনেত্রীর সুচিকিৎসা নিশ্চিত করতে বিদেশ পাঠানোর ব্যবস্থা করুন। তিনি সোমবার বিকেলে নগরীর কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার প্রাঙ্গনে বিএনপি কেন্দ্র ঘোষিত বিক্ষোভ কর্মসূচীর অংশ হিসেবে সিলেট জেলা বিএনপি আয়োজিত বিক্ষোভ সমাবেশে সভাপতির বক্তব্যে উপরোক্ত কথা বলেন।


জেলা বিএনপির আহবায়ক কমিটির সদস্য ও জেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের আহবায়ক আব্দুল আহাদ খান জামালের পরিচালনায়, জেলা বিএনপির সাবেক সহ-দফতর সম্পাদক আব্দুল মালেকের পবিত্র কুরআন তেলাওয়াতের মধ্য দিয়ে অনুষ্ঠিত বিক্ষোভ সমাবেশে বক্তব্য রাখেন, জেলা আহবায়ক কমিটির সদস্য আশিক উদ্দিন চৌধুরী, অধ্যাপিকা সামিয়া বেগম চৌধুরী, ফখরুল ইসলাম ফারুক, শাহ জামাল নুরুল হুদা, মাহবুবুর রব চৌধুরী ফয়সল, ইশতিয়াক আহমদ সিদ্দিকী, মাহবুবুল হক চৌধুরী, আবুল কাশেম, সদর উপজেলা বিএনপির আহবায়ক এ কে এম তারেক কালাম, জেলা বিএনপির সাবেক সহ-সভাপতি জালাল উদ্দিন চেয়ারম্যান, বিএনপি নেতা কামরুল হাসান শাহীন, জেলা শ্রমিক দলের সভাপতি সুরমান আলী, জেলা মহিলা দলের সভানেত্রী সালেহা কবির শেপি, জেলা মুক্তিযোদ্ধা দলের যুগ্ম আহবায়ক এডভোকেট আনোয়ার হোসেন, জেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের সদস্য সচিব দেওয়ান জাকির হোসেন খান, জেলা যুবদলের সদস্য সচিব মকসুদ আহমদ, জেলা ছাত্রদলের সভাপতি আলতাফ হোসেন সুমন, জেলা শ্রমিক দলের সাধারণ সম্পাদক আব্দুর রহমান, জেলা যুবদলের সদস্য এডভোকেট মুমিনুল ইসলাম মুমিন, জেলা শ্রমিক দলের সিনিয়র সহ-সভাপতি মাসুক এলাহী, জেলা ছাত্রদলের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক দেলোয়ার হোসেন নাদিম, স্বেচ্ছাসেবক দলের যুগ্ম আহবায়ক আবু আহমেদ আনসারী, জেলা যুবদলের আহবায়ক কমিটির সদস্য লিটন আহমদ, জেলা ছাত্রদলের সহ-সভাপতি জুবের আহমদ জুবের, সুহেল রানা, সুহেদুল ইসলাম সুহেদ, ১ম যুগ্ম-সম্পাদক সুহেল ইবনে রাজা, যুগ্ম সম্পাদক ইমরানুল ইসলাম জাসিম ও সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুল মুতাকাব্বির চৌধুরী সাকি প্রমূখ।


  •