জকিগঞ্জে অজ্ঞাত ৫শ’ জনের বিরুদ্ধে পুলিশ এসল্ট মামলা

প্রকাশিত: ৭:২০ পূর্বাহ্ণ, অক্টোবর ১৫, ২০২১

জকিগঞ্জে অজ্ঞাত ৫শ’ জনের বিরুদ্ধে পুলিশ এসল্ট মামলা

কুমিল্লায় পূজামন্ডপে পবিত্র কুরআন শরীফ অবমাননার জের ধরে সিলেটের জকিগঞ্জের কালিগঞ্জে পুলিশ-জনতা সংঘর্ষের ঘটনায় ৩ জনের নামোল্লেখসহ অজ্ঞাত ৪৫০-৫শ’ লোককে আসামি করে পুলিশ এসল্ট মামলা দায়ের করা হয়েছে। সিলেটের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (মিডিয়া) লুৎফুর রহমান বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, এ ঘটনায় বুধবার দিবাগত গভীর রাতে অভিযান চালিয়ে হান্নান আলী, রেজা হোসেন ও ফয়েজ আহমদ নামের তিন আসামীকে গ্রেফতার করা হয়েছে। মামলায় এ তিনজনের নামোল্লেখ করা হয়েছে।  তিনি জানান, জকিগঞ্জ থানার এস.আই আমিরুল ইসলাম শিকদার বাদী হয়ে বৃহস্পতিবার বিকেলে  এ ঘটনায় মামলা দায়ের করেন।

পুলিশ জানিয়েছে, কালিগঞ্জ বাজারে তান্ডব চালিয়ে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি নষ্ট করার চেষ্টার পরপরই উপজেলার প্রতিটি পূজামন্ডপে নিরাপত্তা জোরদার করা হয়েছে। যেকোন অপ্রীতিকর ঘটনা এড়াতে আইন শৃঙ্খলা বাহিনী কঠোর অবস্থানে রয়েছে। বাড়ানো হয়েছে গোয়েন্দা নজরদারি। পূজা মন্ডপে যেকোন নাশকতা রোধে সর্তক রয়েছে প্রশাসন।

স্থানীয় সূত্র জানায়, কুমিল্লার ঘটনা শোনার পর বুধবার সন্ধ্যায় জকিগঞ্জের কালিগঞ্জে মাইকিং করা হয়। এরপর এশার নামাজের পর তারা সেখানে মিছিল বের করে। মিছিলটি বাজার থেকে মানিকপুর ইউনিয়ন পরিষদের সামনে গিয়ে ইউএনও, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ও উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যানের গাড়িতে হামলাÑভাংচুর করা হয়। হামলার সময় উপজেলা চেয়ারম্যান লোকমান উদ্দিন চৌধুরী, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সুমী আক্তার, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার জাকির হোসেন, ওসি আবুল কাসেম ইউনিয়ন পরিষদের ভিতরে অবস্থান করছিলেন।  রাতেই অতিরিক্ত পুলিশ ও র‌্যাব সদস্য মোতায়েন করা হয় ঘটনাস্থলে। গভীর রাতে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন সিলেটের জেলা প্রশাসক কাজী এম এমদাদুল ইসলাম, জেলা পুলিশ সুপার ফরিদ উদ্দিন পিপিএম। তারা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে তান্ডবে জড়িতদের  দ্রæত আইনের আওতায় আনার নির্দেশ দেন।


 

  •