কুলাউড়ায় কৃষকদের রাস্তা বন্ধ করে প্রতিবন্ধকতার সৃষ্টি

প্রকাশিত: ১১:১৩ পূর্বাহ্ণ, আগস্ট ২৪, ২০২১

কুলাউড়ায় কৃষকদের রাস্তা বন্ধ করে প্রতিবন্ধকতার সৃষ্টি

মৌলভীবাজারের কুলাউড়া উপজেলার বরমচাল ইউনিয়নের জনৈক হবিব উল্ল্যা ইছলাছড়ার পাড় জবরদখল করে। পরে কৃষকদের যাতায়াতের রাস্তা বন্ধ করে দিয়ে প্রতিবন্ধকতার সৃষ্টি করার অভিযোগ পাওয়া গেছে তার বিরুদ্ধে। এ নিয়ে ভুক্তভোগী গ্রামবাসীর মধ্যে উত্তেজনা বিরাজ করছে।

গত রবিবার (২২ আগস্ট) ইউএনও বরাবরে এক অভিযোগ দায়ের করেন ভুক্তভোগী আব্দুর রহিম ও আব্দুল লতিফ লাকী গং।

ইউএনও এটিএম ফরহাদ চৌধুরী মঙ্গলবার ২৪ আগস্ট সকাল ১১টায় তার অফিসে চেয়ারম্যানকে সাক্ষাৎ করার জন্য জানিয়েছেন বলে জানান চেয়ারম্যান মো. খোরশেদ আহমদ খান সুইট। এ ব্যাপারে কুলাউড়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কাছে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য ভুক্তভোগীরা অভিযোগ করেছেন।

অভিযোগে জানা যায়, বরমচাল ইউনিয়নের ইছলাছড়ার পার্শ্ববর্তী খাদিমপাড়া গ্রামের হবিব উল্ল্যা সম্প্রতি ইছলাছড়ার পাড় সংযুক্ত করে তার বাড়ির বাউন্ডারি দেয়াল নির্মাণ করে এলাকার কৃষকদের যাতায়াতের রাস্তা বন্ধ করে দেন।

অথচ উক্ত ইছলাছড়ার পাড় দিয়ে সিংগুর ও খাদিমপাড়া এলাকার মানুষ দীর্ঘদিন যাবত তাদের ৩/৪শ একর জমিতে সাইল ও আউশ ধানসহ বিভিন্ন জাতের শাকসবজির ফসল চাষাবাদ করে ছড়ার পাড় দিয়ে যাতায়াত করে আসছে।

এমতাবস্থায় বাউন্ডারি দেয়াল নির্মাণ করে এলাকার কৃষকদের যাতায়াতের রাস্তা বন্ধ করে দেয়া হয়। বর্তমানে ধানী জমির ফসলাদি নিয়ে আসতে না পারায় ক্ষেতের মধ্যে পাকা ধান বিনষ্ট হচ্ছে বলে অভিযোগে উল্লেখ করা হয়।

এ ব্যাপারে বরমচাল ইউপি চেয়ারম্যান মো. খোরশেদ আহমদ খান সুইট জানান, উক্ত ইছলাছড়ার পাড় দিয়ে এলাকার শত শত মানুষ যুগ যুগ ধরে তাদের কৃষি জমিতে যাতায়াত করে আসছে। তিনি বাউন্ডারি নির্মাণকালে হবিব উল্ল্যাকে বাধা-নিষেধ করা সত্ত্বেও হবিব উল্ল্যা তার নিষেধ উপেক্ষা করেন বলে জানান।

তিনি আরও বলেন, জরুরি ভিত্তিতে ব্যবস্থা গ্রহণ করা না হলে একদিকে কৃষকদের ক্ষেতের ফসল জমিতে বিনষ্ট হওয়ার ও অপরদিকে ভুক্তভোগীদের মধ্যে উত্তেজনার সৃষ্টি হয়ে দাঙ্গা হাঙ্গামার আশঙ্কা রয়েছে।