৫ দিন পরও ইসলামী বক্তা আবু ত্ব-হা আদনানের খোঁজ নেই, উদ্বিগ্ন পরিবার

প্রকাশিত: ১১:০০ অপরাহ্ণ, জুন ১৫, ২০২১

৫ দিন পরও ইসলামী বক্তা আবু ত্ব-হা আদনানের খোঁজ নেই, উদ্বিগ্ন পরিবার

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে আলোচিত একজন ইসলামী বক্তা আবু ত্ব-হা মুহাম্মদ আদনান নিখোঁজ হওয়ার পাঁচ দিন পরও পুলিশ তার কোনো হদিস করতে পারেনি। তার পরিবারের পক্ষ থেকে প্রধানমন্ত্রী, পুলিশ ও র‍্যাবের প্রধানদের বরাবরে চিঠি দিয়ে আদনানকে খুঁজে বের করার দাবি জানানো হয়েছে।

আদনানের স্ত্রী বলেছেন, পুলিশ ও র‍্যাবের সাথে দফায় দফায় যোগাযোগ করার পরও তারা কিছু জানতে পারছে না।
বৃহস্পতিবার রাতে রংপুর থেকে ঢাকায় ফেরার পথে আদনান, তার দু’জন সহকর্মী ও গাড়িচালকসহ চারজন নিখোঁজ হন। তাদের বহনকারী গাড়িটিরও কোনো খোঁজ মেলেনি।
নিখোঁজ আবু ত্ব-হা মুহাম্মদ আদনানের স্ত্রী সাবেকুন নাহার মঙ্গলবার ঢাকায় পুলিশ ও র‍্যাব সদরদফতরে গিয়ে বাহিনী দু’টির প্রধানদের বরাবরে চিঠি জমা দিয়েছেন।
এর আগে সোমবার প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের গেটে দায়িত্বরত পুলিশ সদস্যদের কাছে প্রধানমন্ত্রী বরাবরেও চিঠি তিনি দিয়েছেন বলে জানিয়েছেন।
সাবেকুন নাহার বলেছেন, তিনি স্বামী নিখোঁজ হওয়ার পর থেকে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর কাছ থেকে কিছুই জানতে পারছেন না। এজন্য ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের সহযোগিতা চেয়ে চিঠিগুলো লিখেছেন। তিনি বলেন, চিঠিতে আমার বক্তব্য হচ্ছে, আমি আমার স্বামীকে ফেরত চাই। যদি আমার স্বামী কোনো ভুল করে থাকেন বা তার যদি কোনো অন্যায় থাকে, তারপরও তো আমাকে তথ্য জানাতে হবে যে তিনি কোথায় আছেন। আমার তো এতটুকু জানার অধিকার আছে। কিন্তু আমি কোনো কিছু জানতে পারছি না।
তিনি অভিযোগ করেছেন, তার স্বামী নিখোঁজ হওয়ার পর মামলা করার জন্যও তাকে থানায় থানায় ঘুরতে হয়েছে। আবু ত্ব-হা মোহাম্মদ আদনান রংপুর থেকে ঢাকায় আসার পথে নিখোঁজ হন। কিন্তু ঠিক কোথা থেকে নিখোঁজ হয়েছেন- এই প্রশ্ন তুলে ঢাকার মিরপুর এলাকার দু’টি থানায় প্রথমে তাদের জিডিও নেয়া হয়নি।
শেষ পর্যন্ত ঘটনার পর দিন শুক্রবার নিখোঁজ আদনানের মা ও স্ত্রী রংপুরে থানায় গিয়ে দু’টি জিডি করেছিলেন।
রংপুর মহানগর পুলিশের উপকমিশনার আবু মারুফ হোসেন বলেছেন, ঢাকার কাছাকাছি এলাকা থেকে নিখোঁজ হওয়ার ব্যাপারে তারা নিশ্চিত হয়েছেন। তবে এখনো ঘটনার কোনো সূত্র পাওয়া যায়নি। তিনি বলেন, আসলে তিনি নিখোঁজ হয়েছেন ঢাকা থেকে। আমাদের কাছে দু’টি জিডি হয়েছে। গাড়িচালক ও আদনান ও তার দু’জন সহকর্মীসহ চারজন নিখোঁজ হয়েছে। তারা ভাড়া করা গাড়িতে একইসাথে ছিলেন।
পুলিশ কর্মকর্তা আবু মারুফ হোসেন আরো বলেন, সর্বশেষ যোগাযোগ অনুযায়ী, তারা ঢাকার গাবতলী পার হয়ে মিরপুর ১১ নম্বরের কাছাকাছি ছিলেন। সেখান থেকে তার পরিবারের সাথে কথা হয়েছে। তিনি বলেছেন, তারা আর ১০ বা ১৫ মিনিটের মধ্যে পৌঁছে যাবেন। কিন্তু এরপর থেকেই তারা ডিসকানেক্টেড হয়ে যান। তাদের আর ট্রেস পাওয়া যায়নি।
আবু ত্ব-হা মুহাম্মদ আদনানের স্ত্রী সাবেকুন নাহার গত সোমবার মিরপুরের পল্লবী থানায় লিখিত অভিযোগ করেছেন। তবে পল্লবী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) বলেছেন, ঢাকা থেকে নিখোঁজ হওয়ার ব্যাপারে তারা এখনো নিশ্চিত হতে পারেননি।
তিনি জানিয়েছেন, অভিযোগ এখনো মামলা হিসেবে তারা গ্রহণ করেননি। কিন্তু তারা অভিযোগ খতিয়ে দেখছেন বলে তিনি দাবি করেছেন।
ইসলামী বক্তা আদনানের একটি ইউটিউব চ্যানেল রয়েছে। সেখানে তিনি ইসলাম সম্পর্কে বক্তব্য দিতেন। এ ছাড়া তিনি দেশের বিভিন্ন জায়গায় ধর্মীয় সমাবেশে যেতেন বক্তা হিসেবে। কুরআন শিক্ষা দেয়ার জন্য তার একটি মাদরাসা রয়েছে। তার পরিবারের কাছ থেকে এসব তথ্য পাওয়ার কথা জানিয়েছে পুলিশ।
পুলিশ কর্মকর্তা আবু মারুফ হোসেন বলেছেন, আদানানের কর্মকাণ্ড, ব্যক্তিগত ও পারিবারিক জীবন সম্পর্কে তথ্য সংগ্রহ করে এসবের ওপর ভিত্তি করে তারা অনুসন্ধান কার্যক্রম চালাচ্ছেন। তিনি বলেন, তার পেশাগত কিছু বিষয় থাকতে পারে বা ব্যক্তিগত জীবন- কোথাও কোনো বিরোধ ছিল কি না- এসব আমরা খতিয়ে দেখছি।

আদনানের স্ত্রী বলেছেন, তার স্বামীর নিখোঁজ হওয়ার পেছনে কি কারণ থাকতে পারে- সেটা তারা ধারণা করতে পারছেন না। একইসাথে তিনি ঘটনা সম্পর্কে বলেছেন, উনি (আদনান) আসলে রংপুর থেকে বগুড়ায় একটা প্রোগ্রামে আলোচক হিসেবে গিয়েছিলেন। সেই প্রোগ্রামটি কোনো কারণে হয়নি। সেখান থেকে দু’জন সহকর্মীসহ গাড়িতে ঢাকা আসছিলেন। উনি টেলিফোনে আমাকে বলেছিলেন যে দু’টি মোটরসাইকেলে দু’জন লোক তাদের অনুসরণ করছিল। একপর্যায়ে অনুসরণকারীদের তারা আর দেখতে পায়নি। তবে নিখোঁজ হওয়ার কোনো কারণ আমি বুঝতে পারছি না।
পুলিশ কর্মকর্তারা সব বিষয়ই খতিয়ে দেখার কথা বলছেন।
সূত্র : বিবিসি


 

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

সর্বমোট পাঠক


বাংলাভাষায় পুর্নাঙ্গ ভ্রমণের ওয়েবসাইট