১০টি ঘুমের ট্যাবলেট খাইয়ে এডভোকেট আনোয়ারকে হত্যা করেন শিপা

প্রকাশিত: ৬:৪৫ অপরাহ্ণ, জুন ১৩, ২০২১

১০টি ঘুমের ট্যাবলেট খাইয়ে এডভোকেট আনোয়ারকে হত্যা করেন শিপা

আইনজীবী এডভোকেট আনোয়ার হোসেনকে ১০টি ঘুমের ট্যাবলেট খাইয়ে হত্যা করেন স্ত্রী শিপা বেগম।

সিলেট মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট সুমন ভুইয়ার আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দিতে এমন তথ্য দিয়েছেন শিপা বেগম। ৫ দিনের রিমান্ডশেষে রবিবার তাকে আদালতে তোলা হলে তিনি আদালতে ফৌজদারি কার্যবিধির ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেন।

কোতয়ালী থানার ওসি (তদন্ত) ইয়াসিন আলী এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

জবানবন্দিতে তিনি জানান, খালাতো ভাই ও পরকীয়া প্রেমিক শাহজাহানের সাথে পরিকল্পনা করে ৩০ এপ্রিল রাতে ১০টি ঘুমের ট্যাবলেট খাইয়ে স্বামী আনোয়ার হোসেনকে হত্যা করেন তিনি। পরে স্বজনদের তিনি জানান ডায়বেটিস কমে গিয়ে হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে তার স্বামীর মৃত্যু হয়েছে।

ওসি (তদন্ত) জানান, আদালত আগামী বুধবার নিহত আইনজীবী আনোয়ার হোসেনের লাশ উত্তোলনের আদেশ দিয়েছেন।

এর আগে, গত রবিবার রবিবার (৬ জুন) সিলেট মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট সাইফুর রহমান তার ৫ দিনের  রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

উল্লেখ্য, গত ১ মে নগরের তালতলা এলাকার বাসিন্দা আইনজীবী আনোয়ার হোসেনের মৃত্যুর খবর জানতে পারেন তার স্বজনরা। ওইদিন বেলা সাড়ে তিনটার দিকে আনোয়ার হোসেনের স্ত্রী শিপা বেগম স্বজনদের জানান, ৩০ এপ্রিল সেহরি খাওয়ার পর ঘুমিয়ে পড়েন আনোয়ার। পরদিন দুপুরে বিছানায় মৃত অবস্থায় তাকে দেখতে পান তিনি। তখন স্বজনরা  স্বাভাবিক মত্যু ভেবে ওই রাতেই তার দাফন করেন।

তবে আনোয়ারের মৃত্যুর  ১০ দিন পরই শিপা বেগম তার খালাত ভাই শাহজাহান চৌধুরীকে বিয়ে করেন।  এতে পরিবারের সদস্যদের মধ্যে সন্দেহ হয়। এর জের ধরে পরিবারের পক্ষ থেকে মামলা করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। পরে আদালতের মাধ্যমে নির্দেশনা পেয়ে পুলিশ হত্যা মামলা নথিভুক্ত করে। মামলায় পরকীয়া প্রেমের জেরে হত্যার অভিযোগ আনা হয়। এতে শিপা বেগম ও তার বর্তমান স্বামী শাহজাহান চৌধুরীসহ অজ্ঞাত কয়েকজনকে আসামি করা হয়।


 

  •