দেশে আরও অর্ধশত মৃত্যু, শনাক্তে নতুন রেকর্ড

প্রকাশিত: ৪:৩০ অপরাহ্ণ, এপ্রিল ২, ২০২১

দেশে আরও অর্ধশত মৃত্যু, শনাক্তে নতুন রেকর্ড

মহামারি করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে আরও ৫০ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে মোট মৃত্যু হয়েছে ৯ হাজার ১৫৫ জনের।

একই সময়ে নতুন করে ৬৮৩০ জনসহ এখন পর্যন্ত মোট শনাক্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৬ লাখ ২৪ হাজার ৫৯৪ জনে।

শুক্রবার (২ এপ্রিল) বিকালে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের পরিচালক (কোভিড ইউনিট) ডা. মো. ইউনুস স্বাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

এর আগে গতকাল বৃহস্পতিবার (১ এপ্রিল) করোনায় আক্রান্ত হয়ে দেশে সর্বোচ্চ ৫৯ জনের মৃত্যু হয়। ২৪ ঘণ্টার হিসেবে গত নয় মাসে এ দিন সর্বোচ্চ শনাক্তও হয়েছে। তার আগের দিন বুধবার (৩১ মার্চ) ৫২ জনের মৃত্যু হয়েছিল।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, ঢাকা সিটিসহ দেশের বিভিন্ন হাসপাতালে ও বাড়িতে উপসর্গবিহীন রোগীসহ গত ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়েছেন দুই হাজার ৪৭৩ জন। এ নিয়ে এখন পর্যন্ত মোট সুস্থ হয়েছেন পাঁচ লাখ ৪৭ হাজার ৪১১ জন।

সারাদেশে সরকারি ও বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় ২২৬টি ল্যাবে নমুনা সংগ্রহ ও পরীক্ষা হয়েছে। এরমধ্যে আরটি-পিসিআর ল্যাব ১২০টি, জিন-এক্সপার্ট ৩৩টি, র‌্যাপিড অ্যান্টিজেন ৭৩টি। এসব ল্যাবে ২৪ ঘণ্টায় নমুনা সংগ্রহ হয়েছে ৩০ হাজার ২৯৩টি। আগে নমুনাসহ মোট নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে ২৯ হাজার ৩৩৯টি। এ নিয়ে এখন পর্যন্ত নমুনা পরীক্ষা হয়েছে ৪৭ লাখ ২৮ হাজার ১১৩টি।

বিজ্ঞপ্তিতে ডা. মো. ইউনুস জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় নমুনা পরীক্ষায় শনাক্তের হার ২৩ দশমিক ২৮ শতাংশ। এ নিয়ে এখন পর্যন্ত নমুনা পরীক্ষা বিবেচনায় শনাক্তের হার ১৩ দশমিক ২১ শতাংশ এবং শনাক্ত বিবেচনায় সুস্থতার হার ৮৭ দশমিক ৬৪ শতাংশ। এছাড়া শনাক্ত বিবেচনায় মৃত্যুর হার এক দশমিক ৪৭ শতাংশ।

এ দিকে, ২৪ ঘণ্টায় মারা যাওয়া ৫০ জনের মধ্যে ৪০ জন পুরুষ, ১০ জন নারী। তাদের মধ্যে ঢাকা বিভাগে ৩৬ জন, চট্টগ্রাম সিলেট বিভাগে সাত জন, খুলনা বিভাগে তিনজন রয়েছেন। এছাড়া রাজশাহী ও সিলেট বিভাগে দুইজন করে চারজন রয়েছেন। তাদের মধ্যে হাসপাতালে মারা গেছেন ৪৯ জন এবং বাড়িতে একজন মারা গেছেন।

মৃতদের বয়স বিশ্লেষণে দেখা যায়, ৬০ বছরে ঊর্ধ্বে ৩২ জন, ৫১ থেকে ৬০ বছরের মধ্যে ১১ জন, ৪১ থেকে ৫০ বছরের মধ্যে চারজন, ৩১ থেকে ৪০ বছরের মধ্যে দুইজন, ২১ থেকে ৩০ বছরের মধ্যে একজন রয়েছেন।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের বিজ্ঞপ্তি অনুযায়ী, গত ২৪ ঘণ্টায় আইসোলেশনে এসেছেন ৫০০ জন ও আইসোলেশন থেকে ছাড় পেয়েছেন ১০৫ জন। এ নিয়ে এখন পর্যন্ত আইসোলেশনে এসেছেন এক লাখ পাঁচ হাজার ৭৭৫ জন। আর আইসোলেশন থেকে ছাড়পত্র নিয়েছেন ৯৩ হাজার ৪১৩ জন। এছাড়া বর্তমানে আইসোলেশনে আছেন ১১ হাজার ৩৬২ জন।

উল্লেখ্য, গত বছরের ৮ মার্চ দেশে করোনা ভাইরাসে সংক্রমিত (কোভিড-১৯) প্রথম রোগী শনাক্ত হয়। এর ১০ দিন পর ১৮ মার্চ করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে প্রথম একজনের মৃত্যু হয়।

  •