বিসিএস দেয়া হলো না ডা. অন্তরার, সড়কে প্রাণ গেলো স্বামীর

প্রকাশিত: ১২:০১ পূর্বাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ২৭, ২০২১

বিসিএস দেয়া হলো না ডা. অন্তরার, সড়কে প্রাণ গেলো স্বামীর

সিলেট উইমেন্স মেডিক্যাল কলেজের ফরেনসিক বিভাগের শিক্ষক ডা. ইমরান খান রুমেল। তার স্ত্রী অন্তরা খানও একজন চিকিৎসক, যিনি চিকিৎসকদের জন্য ৪২তম বিশেষ বিসিএস পরীক্ষার্থী ছিলেন।

শুক্রবার (২৬ ফেব্রুয়ারি) বিকেলে ঢাকায় যখন ৪২তম বিশেষ বিসিএস পরীক্ষা চলছে, তখন হাসপাতালের বিছানায় মৃত্যুর সাথে লড়ছেন অন্তরা খান। আর দুর্ঘটনায় প্রাণ হারিয়ে এখন পরপারে ডা. ইমরান।

নিহত ব্যক্তির পরিবার সূত্রে জানা গেছে, ৪২তম (বিশেষ) বিসিএসের প্রিলিমিনারি পরীক্ষায় অংশ নিতে দুই মেয়েকে সিলেটে রেখে শুক্রবার সকাল ছয়টার বাসে করে ঢাকায় যাচ্ছিলেন চিকিৎসক দম্পতি ডা. অন্তরা ও আল মাহমুদ ইমরান খান।

তবে সিলেট থেকে রওনা হওয়ার আধা ঘণ্টার মধ্যে ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের রশীদপুরে তাদের বহন করা এনা পরিবহনের বাসের সঙ্গে ঢাকা থেকে সিলেটমুখী লন্ডন এক্সপ্রেস বাসের মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়।

এতে ঘটনাস্থলেই প্রাণ হারান ইমরান। আহত হন শারমিন আক্তার। ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের কর্মীদের মাধ্যমে খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে যান চিকিৎসক দম্পতির পরিবারের সদস্যরা।

ডা. ইমরানের বাবা প্রখ্যাত প্যাথলজিস্ট অধ্যাপক ডা. আমজাদ হোসেন। সিলেট নগরীর ফাজিলচিশত এলাকার তাদের বাসা।

সিলেটের দক্ষিণ সুরমা থানায় ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মনিরুল ইসলাম বলেন, সকাল টার দিকে সিলেটগামী লন্ডন এক্সপ্রেস (ঢাকা মেট্রো-ব ১৫-৩১৭৬) ও ঢাকাগামী এনা পরিবহনের (ঢাকা মেট্রো ব ১৪-৭৩১১) মধ্যে সংঘর্ষ ঘটে। এতে ঘটনাস্থলেই ৪ জন মারা যান। এছাড়া হাসপাতালে নেওয়ার পর আরও ৪ জন মারা যান বলে শুনেছি। এই দুর্ঘটনায় অন্তত ১৫ জন আহত হয়েছেন।

নিহতরা হলেন-সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুর উপজেলার সালমান খান (২৮), ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সরাইলের নুরুল আমিন (৫০), সাগর (১৯), সিলেটের ওসমানী নগরের মঞ্জুর আহমদ মঞ্জু(৩৫), একই উপজেলার জাহাঙ্গির হোসেন (৩০), ডা. ইমরান খান রুমেল (৪৮), সিলেট নগরের আখালিয়ার শাহ কামাল (৪৫) ও ছাতকের রহিমা।


 

  •  

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

সর্বমোট পাঠক


বাংলাভাষায় পুর্নাঙ্গ ভ্রমণের ওয়েবসাইট