একদিনেই সড়কে ২২ লাশের মিছিল

প্রকাশিত: ১২:০৫ পূর্বাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ২৭, ২০২১

একদিনেই সড়কে ২২ লাশের মিছিল

দেশের সাত জেলায় পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় একদিনে ২২ জন নিহত হয়েছেন। ভয়াবহ এসব দুর্ঘটনায় আরও অন্তত ৫৬ জন আহত হন।

শুক্রবার (২৬ ফেব্রুয়ারি) সিলেট, বগুড়া, শেরপুর, চুয়াডাঙ্গা, ময়মনসিংহ, বরিশাল ও হবিগঞ্জ জেলায় পৃথক এই প্রাণহানির ঘটনা ঘটে।

এরমধ্যে শুক্রবার সকালেই সিলেটে দুই বাসের মুখোমুখি সংঘর্ষে নয়জন নিহত হন। সকাল ৭টার দিকে সিলেটের দক্ষিণ সুরমা থানার রশিদপুর নামক স্থানে ভয়াবহ ওই সংঘর্ষে প্রায় অর্ধশতাধিক যাত্রী আহত হয়।

ঢাকা থেকে ছেড়ে আসা লন্ডন এক্সপ্রেস ও সিলেট থেকে ছেড়ে যাওয়া ঢাকামুখী এনা পরিবহনের সংঘর্ষে এই হতাহতের ঘটনা ঘটে। পরে পুলিশ লাশ উদ্ধার করে এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজের মর্গে পাঠায়। পাশাপাশি হতাহতদের চিকিৎসার জন্য দ্রুত হাসপাতালে পাঠানো হয়।

নিহতদের মধ্যে সাতজনের পরিচয় মিলেছে। তারা হলেন, এনা গাড়ির ড্রাইবার মঞ্জু (৩৫), সোপার বাইজার সালমান, হেলপার জাহাঙ্গীর, শরাইলের আলি আয়দার মেম্বার বাড়ির নুরুল আমিন (৫০), সাগর (২৯), সিলেট ওমেন্স মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের প্রভাষক ডা. আল মাহমুদ সাদ (২৯) ও শাহ কামাল।

এ দিকে, ভয়াবহ এই দুর্ঘটনার এক ঘণ্টা আগে বগুড়ায় যাত্রীবাহী বাসের চাপায় সিএনজি চালিত অটোরিকশার চার যাত্রী নিহত হয়েছেন। এ দিন ভোর ৬টার দিকে বগুড়ার শাজাহানপুর উপজেলাধীন ঢাকা-বগুড়া মহাসড়কের মাঝিড়া এলাকার এমপি চেকপোস্টের সামনে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহত চারজনের মধ্যে এখন পর্যন্ত দু’জনের পরিচয় জানা গেছে। তারা হলেন, অটোরিকশার চালক ধুনট উপজেলার বাসিন্দা শাহ জামাল (৩৪), শাজাহানপুর উপজেলার ডেমাজানি গ্রামেন কালিদাস (৭২), সুদয় কুমার মহন্ত (৪০) ও মো. হারেজ (৪০)।

বগুড়া ফায়ার সার্ভিস ও পুলিশ জানায়, যাত্রীবাহী অটোরিকশাটি শেরপুর উপজেলা থেকে বগুড়া শহরের দিকে যাচ্ছিল। পথে এমপি চেকপোস্টের সামনে শাওন পরিবহনের একটি বাস অটোরিকশাটিকে চাপা দেয়। এতে ঘটনাস্থলেই মারা যান অটোরিকশার তিন যাত্রী। এ সময় আরও এক যাত্রী গুরুতর আহত হন। পরে দ্রুত আহত যাত্রীকে উদ্ধার করে বগুড়ার শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ (শজিমেক) হাসপাতালে নেওয়া হলে চিকিৎসক তাকেও মৃত ঘোষণা করেন।

এ দিকে, একই দিন বগুড়ার দুপচাঁচিয়াতে ট্রাকের চাপায় ব্যাটারিচালিত ইজি বাইকের চালকসহ ২ জন নিহত হয়েছেন। শুক্রবার বেলা আড়াইটার দিকে বগুড়া-নওগাঁ সড়কের টিশিগারি নামক স্থানে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

দুর্ঘটনায় নিহতরা হলেন, দুপচাঁচিয়ার মোড় গ্রামের আব্দুল কাদের এর ছেলে চালক রাসেল (৩৫) ও বেলাইল গ্রামের ফজলুর রহমানের ছেলে মুক্তার হোসেন (৩৫)।

বগুড়ার দুপচাঁচিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা হাসান আলী জানান, দুপুর আড়াইটার দিকে ব্যাটারিচালিত ইজিবাইক নওগাঁ-বগুড়া সড়কে পৌঁছার পর পেছন থেকে আসা একটি ট্রাক ইজিবাইকটিকে ধাক্কা দেয়। এতে ইজিবাইক দুমরে মুচড়ে ঘটনাস্থলেই ওই দুইজনের মৃত্যু হয়।

অন্যদিকে, শুক্রবার সকালে শেরপুরে ট্রাকচাপায় পারভীন (৪০) নামে এক নারী পথচারী নিহত হয়েছেন। সকালে শেরপুর শহরের চাপাতলী এলাকার সার্কিট হাউসের সামনে এ দুর্ঘটনা ঘটে। নিহত নারী বাসস্ট্যান্ড এলাকার নূর আলম সিদ্দিকের স্ত্রী।

পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, শেরপুর শহরের বাগরাকসা সুতানালী দিঘীর পাড় এলাকার নূর আলম সিদ্দিকের স্ত্রী ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণে প্রতিদিন সকালে নিয়মিত ওই সড়কে হাঁটেন। প্রতিদিনের মতো শুক্রবারও তিনি ভোরে বাড়ি থেকে বের হয়ে ওই সড়ক ধরে হাঁটাহাঁটি করছিলেন। হাঁটাহাঁটি শেষে বাড়ি ফেরার পথে চাপাতলী এলাকার সার্কিট হাউসের সামনে এলে পানবোঝাই একটি ট্রাক নিয়ন্ত্রণ ওই নারীকে চাপা দিয়ে উল্টে যায়। এতে ঘটনাস্থলেই আমেনার মৃত্যু হয়। পরে পুলিশ গাড়িটি জব্দ করলেও চালক ও সহকারী পালিয়ে যায়।

এ ঘটনায় মরদেহটি ময়না তদন্তের জন্য শেরপুর জেলা হাসপাতাল মর্গে রাখা হয়েছে। পাশাপাশি বিষয়টিতে প্রয়োজনীয় আইনি ব্যবস্থা গ্রহণের প্রস্তুতি চলছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

এ দিকে, শুক্রবার চুয়াডাঙ্গার আলমডাঙ্গা উপজেলায় পাখিভ্যান খাদে পড়ে একজন নিহত হয়েছেন। একই দুর্ঘটনায় আহত হয়েছেন আরও দুইজন।

নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে পাখিভ্যানটি খাদে পড়ে গেলে এই হতাহতের ঘটনা ঘটে। এ দুর্ঘটনায় নিহত শিপন আলী (৩৭) আলমডাঙ্গা উপজেলার পাইকপাড়া গ্রামের ইদ্রিস আলীর ছেলে।

অপরদিকে আহতরা হলেন- শিপনের ছোট ভাই রিপন ও পাখিভ্যান চালক ইকরামুল কবির।

শুক্রবার সকালে আলমডাঙ্গা উপজেলার লক্ষ্মীপুর গ্রামের কাছারিপাড়া ভূমি অফিসের সামনে এ দুর্ঘটনা ঘটে। আহত দুইজন চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। আর নিহতের লাশ সদর হাসপাতাল মর্গে রাখা আছে।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, সকাল ৮টার দিকে শিপন ও রিপন ব্যাটারিচালিত পাখিভ্যানযোগে পাইকপাড়া থেকে ঢেউটিন কেনার জন্য চুয়াডাঙ্গার সরোজগঞ্জ বাজারে আসছিলেন। পথে লক্ষ্মীপুর গ্রামে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ভ্যানটি রাস্তার পাশের একটি খাদে পড়ে যায়।

পরে স্থানীয়রা আহতাবস্থায় তিনজনকে উদ্ধার করে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে নিলে শিপনকে মৃত ঘোষণা করেন জরুরি বিভাগের চিকিৎসক।

এছাড়া, ময়মনসিংহে ট্রাকচাপায় শহিদুল ইসলাম কায়সার রনি (৩০) ও জাহিদ হাসান রাসেল (২৮) নামে মোটরসাইকেলের দুই আরোহী নিহত হয়েছেন।

শুক্রবার (২৬ ফেব্রুয়ারি) সকাল সাড়ে ১০টার দিকে জেলার ধোবাউড়া-হালুয়াঘাট সড়কের মেকিয়ারকান্দা বাজারের ডোমঘাটা এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহত শহিদুল ইসলাম কায়সার রনি বাঘবেড় উপজেলার বাঘবেড় গ্রামের বাসিন্দা ও জাহিদ হাসান রাসেল উপজেলার খড়িয়া গ্রামের বাসিন্দা।

এ বিষয়ে ধোবাউড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবুল কালাম আজাদ বলেন, সকালে রনি ও রাসেল মোটরসাইকেল করে হালুয়াঘাট যাওয়ার পথে মেকিয়ারকান্দা বাজারের ডোমঘাটা এলাকায় পৌঁছালে অপরদিক থেকে আসা একটি ট্রাক তাদের চাপা দেয়। এতে ঘটনাস্থলেই জাহিদ হাসান রাসেল মারা যান।

পরে স্থানীয়রা শহিদুল ইসলাম কায়সার রনিকে গুরুতর অবস্থায় উদ্ধার করে হালুয়াঘাট উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যাওয়ার পথেই মারা যান তিনি। লাশগুলো উদ্ধার করা হয়েছে। এ ঘটনায় আইনি ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন আছে বলেও জানান ওসি আবুল কালাম আজাদ।

এ দিকে, হবিগঞ্জে বাসের চাপায় আবেদুর রহমান সোহাগ (১৮) নামে এক ইজিবাইকচালকের মৃত্যু হয়েছে। এ দুর্ঘটনায় আহত হয়েছেন আরও তিনজন যাত্রী।

শুক্রবার সকাল সাড়ে ১০টায় হবিগঞ্জ-শায়েস্তাগঞ্জ সড়কের জগতপুর এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে। নিহত সোহাগ জেলার চুনারুঘাট উপজেলার হাঁসারগাঁও গ্রামের আব্দুল আজিদের ছেলে।

শায়েস্তাগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) অজয় চন্দ্র দেব জানান, লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য হবিগঞ্জ ২৫০ শয্যা আধুনিক জেলা সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। পাশাপাশি আহতরা একই হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। এ ঘটনায় পুলিশ গাড়ি দু’টি জব্দ করেছে।


 

  •  

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

সর্বমোট পাঠক


বাংলাভাষায় পুর্নাঙ্গ ভ্রমণের ওয়েবসাইট