এডোরা চাইল্ড ডেভেলপম্যান্ট কেয়ারের যাত্রা শুরু জানুয়ারি

প্রকাশিত: ১০:৩৬ পূর্বাহ্ণ, ডিসেম্বর ৪, ২০২০

এডোরা চাইল্ড ডেভেলপম্যান্ট কেয়ারের যাত্রা শুরু জানুয়ারি

সিলেট নগরীর আখালিয়ায় এডোরা চাইল্ড ডেভেলপম্যান্ট কেয়ারের যাত্রা শুরু হচ্ছে। আগামী জানুয়ারি থেকে প্রতিষ্ঠানটির কার্যক্রম আনুষ্ঠানিকভাবে শুরু হবে। বর্তমানে এ প্রতিষ্ঠানে ভর্তির রেজিস্ট্রেশন চলছে।
জানা গেছে, মাউন্ট এডোরা হাসপাতাল সংলগ্ন নেহারিপাড়ায়( বাসা নং-৮) শুরু হচ্ছে প্রতিষ্ঠানের কার্যক্রম। প্রতিবন্ধী ও অটিস্টিক শিশুদের পাশে দাঁড়ানোই এ প্রতিষ্ঠানের মূল লক্ষ্য।
সংশ্লিষ্টরা জানান, জন্মের পর থেকে ৬ বছর বয়সের মধ্যেই শিশু বিকাশের বেশিরভাগ মাইলফলক অর্জিত হবার কথা। কিন্তু, নানাবিধ জন্মগত, পরিবেশগত ও অসুস্থতাজনিত কারণে তা যথাসময়ে অর্জিত হয় না। ফলে ঐসব শিশু তাদের সমবয়সী অন্য শিশুদের তুলনায় পিছিয়ে পড়ে। কিন্তু, যথাসময়ে শিশুর সমস্যা চিহ্নিত করে দ্রæত ব্যবস্থা গ্রহণ করতে পারলে তাদেরকে এগিয়ে আনা সম্ভব। শিশুদের দ্রæত সমস্যা চিহ্নিত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের মাধ্যমে বয়সোপযোগী পর্যায়ে এগিয়ে আনার নামই শিশুবিকাশ সেবা।
আলোচনা সভা-র‌্যালি: সুরমা হোল্ডিংস লিমিটেড এর অন্যতম প্রতিষ্ঠান এডোরা ফিজিওথেরাপী এন্ড রিহ্যাবিলিটেশন এর উদ্যোগে ২৯তম আন্তর্জাতিক প্রতিবন্ধী দিবস ও ২২ তম জতীয় প্রতিবন্ধী দিবস উপলক্ষে বৃহস্পতিবার এক আলোচনা সভা ও র‌্যালির আয়োজন করা হয়। এতে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় সিলেট সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী এ ধরণের প্রতিষ্ঠান স্থাপনের প্রয়োজনীয়তার ওপর গুরুত্বারোপ করে বলেন, সিলেটে প্রতিবন্ধী শিশুর অভিভাবকদের প্রত্যাশা পূরণে এ প্রতিষ্ঠান সহায়ক হবে। এ প্রতিষ্ঠান স্থাপনের উদ্যোগ নেয়ায় তিনি এডোরা পরিবারকে ধন্যবাদ জানান এবং সব সময় পাশে থাকার প্রত্যাশা ব্যক্ত করেন।
অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্যে সুরমা হোল্ডিংস লিমিটেড এর চেয়ারম্যান ও সিলেটের প্রথিতযশা হৃদরোগ বিশেষজ্ঞ অধ্যাপক ডাঃ কে এম আখতারুজ্জামান বলেন, সিলেটবাসীর স্বাস্থ্য সেবায় বরাবরের ন্যায় আমাদের নতুন উদ্যোগেও মানুষ উপকৃত হবেন। প্রতিবন্ধিতা কোন পাপ বা অভিশাপ নয়; আমাদের পারস্পারিরক সার্বিক সহযোগিতায় সকল প্রকার প্রতিবন্ধকতা জয় করা সম্ভব।
মূল প্রবন্ধে সিলেট এমএজি ওওসমানী মেডিকেল কলেজের সহকারি অধ্যাপক ও বিশিষ্ট শিশু রোগ বিশেষজ্ঞ ডাঃ আখলাক আহমেদ প্রতিবন্ধিতার বিভিন্ন দিক তুলে ধরেন। তিনি বলেন, বেশির ভাগ প্রতিবন্ধিতাই সঠিক সময়ে নির্ণয় ও প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের মাধ্যমে স্বাভাবিক অবস্থায় নিয়ে আসা সম্ভব। এ লক্ষ পূরণের জন্যই প্রতিবন্ধী ও অটিস্টিক শিশুদের পাশে দাঁড়ানোর প্রয়াসে আগামী ১ জানুয়ারী থেকে শুরু হচ্ছে এডোরা শিশু বিকাশ কেন্দ্রের যাত্রা ।
অনুষ্ঠানের সভাপতি ডাঃ সৈয়দ মাহমুদ হাসান বলেন, সিলেটে প্রতিবন্ধী ও অটিস্টিক শিশুদের জন্য এ রকম একটি প্রতিষ্ঠান থাকা জরুরী। সামাজিক দায়বদ্ধতা থেকে আমাদের পাশাপাশি সরকারের সহযোগিতা প্রত্যাশা করেন। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন- সিলেট প্রেসক্লাব সভাপতি ইকবাল সিদ্দিকী, সিলেট চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রির সভাপতি আবু তাহের মোঃ শোয়েব এবং ৯ নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর আলহাজ¦ মোঃ মখলিসুর রহমান কামরান।
আলোচনায় বিশেষজ্ঞ প্যানেলে ছিলেন- আনোয়ার খান মডার্ন মেডিকেল কলেজ হসপিটালের অধ্যক্ষ ও শিশু রোগ বিশেষজ্ঞ অধ্যাপক ডাঃ এম এখলাসুর রহমান, সিলেট নর্থইষ্ট মেডিকেল কলেজ এর অধ্যক্ষ অধ্যাপক ডাঃ এম মনোজ্জির আলী, মাউন্ট এডোরা নিউরোলজির চীফ্ কনসালটেন্ট ও বিশিষ্ট নিউরোলজিস্ট অধ্যাপক ডাঃ মো মতিউর রহমান, সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ এর মানসিক রোগ বিভাগের বিভাগীয় প্রধান ডাঃ আর.কে.এস রয়েল, সিলেট উইমেন্স মেডিকেল কলেজ এর ফিজিক্যাল মেডিসিন বিভাগের প্রধান ডাঃ চৌধুরী মোঃ ওয়ালীদ, ক্লিনিক্যাল সাইকোলজিস্ট (শাবিপ্রবি) অধ্যাপক ফজিলাতুন্নেসা। অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন প্রতিষ্ঠানের সমন্বয়ক ফাতেমা-তুজ-জোহরা।


 

  •  

সর্বমোট পাঠক


বাংলাভাষায় পুর্নাঙ্গ ভ্রমণের ওয়েবসাইট