ফেসবুক-ইনস্টাগ্রামে নতুন নীতিমালা

প্রকাশিত: ৫:০২ অপরাহ্ণ, জুলাই ১৪, ২০২০

ফেসবুক-ইনস্টাগ্রামে নতুন নীতিমালা

সম্প্রতি ফেসবুক ও ইনস্টাগ্রামে নতুন নীতিমালা যোগ হয়েছে। ফেসবুকের কনটেন্ট পলিসিতে পরিবর্তনের ফলে নতুন নীতিমালায় লিঙ্গ পরিবর্তন বা রূপান্তরিত হওয়ার ক্ষেত্রে কোনো উস্কানিমূলক পোস্ট দেওয়া যাবে না।

ফেসবুক ও ইনস্টাগ্রামের ক্ষেত্রে এই নিয়ম মানতে হবে। আর এই নিয়ম অমান্য করলে ব্যবহারকারীর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলেও জানিয়েছে ফেসবুক।

এ প্রসঙ্গে ফেসবুক প্রধান মার্ক জুকারবার্গ জানিয়েছেন, ‘গে কনভার্শন থেরাপি’ বা যৌন রূপান্তরের বিষয়ে সব ধরণের পোস্ট ‘নিষিদ্ধ’ করা হয়েছে।

ইনস্টাগ্রামের পাবলিক পলিসির পরিচালক তারা হপকিন্স জানান, ইনস্টাগ্রামে কেউ কারো যৌন দৃষ্টিভঙ্গি অথবা পরিচিতি নিয়ে কোনো রকম আক্রমণের মুখে পড়ুক তা আমরা কখনই চাই না। কোনো ব্যবহারকারী যাতে এ রকম কাজ করতে না পারে, তার জন্যই নিয়মে পরিবর্তন এনে এই বিষয়ের পোস্টের ওপর নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে।

জিনিউজের দাবি, সম্প্রতি ‘কোর ইস্যুস ট্রাস্ট’ নামের ব্রিটেনের একটি ধর্মীয় গ্রুপের পক্ষ থেকে ‘গে কনভার্শন থেরাপি’ বা যৌন রূপান্তরের বিষয়ে ইনস্টাগ্রামে বিভিন্ন ধরণের পোস্ট করা হয়েছিল। এরই মধ্যে ওই সব পোস্ট সরিয়ে দেওয়া হয়েছে।

এ দিকে, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ১৯টি রাজ্যে ‘গে কনভার্শন থেরাপি’ নিষিদ্ধ করা হয়েছে। আফ্রিকা, ইউরোপ ও আমেরিকাতে ‘গে কনভার্শন থেরাপি’ বা যৌন রূপান্তর নিয়ে বেশ চর্চা হয় তরুণ-তরুণীদের মধ্যে। তাদের মধ্যে এই বিষয়ে উৎসাহ অনেকটাই বেশি। তবে অধিকাংশ ক্ষেত্রেই তারা পরবর্তীকালে চূড়ান্ত হতাশাগ্রস্ত হয়ে পড়েন।

যাদের অনেকের মধ্যেই আত্মহত্যার প্রবণতাও দেখা দেয়। এই বিষয়গুলি চিন্তায় রেখেই ফেসবুক ও ইনস্টাগ্রামে ‘গে কনভার্শন থেরাপি’ বা যৌন রূপান্তরের বিষয়ে সব পোস্টের উপরেই নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে।

তথ্যসূত্র : সিএনএন


  •  

সর্বমোট পাঠক


বাংলাভাষায় পুর্নাঙ্গ ভ্রমণের ওয়েবসাইট