হত্যা চেষ্টা মামলায় সিলেটে হাসপাতালের অফিস সহকারী নূর মোহাম্মদ জেলে

প্রকাশিত: ১:৫১ পূর্বাহ্ণ, জুলাই ৮, ২০২০

হত্যা চেষ্টা মামলায় সিলেটে হাসপাতালের অফিস সহকারী নূর মোহাম্মদ জেলে

সিলেট সংবাদ ডেস্ক :: সিলেটে হত্যা চেষ্টা ও মারধরের মামলায় দক্ষিণ সুরমা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের অফিস সহকারী ও শামীমাবাদ এলাকার বাসিন্ধা মুসলিম খলিফার ছেলে নূর মোহাম্মদ (৩৩) জেলে পাঠিয়েছেন আদালত। দীর্ঘদিন পলাতক থাকার মঙ্গলবার (৭ জুলাই) আদালতে হাজির হয়ে জামিনের জন্য আবেদন করেন। আদালত তার নামঞ্জুর করে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন। হত্যা চেষ্টা ও মারধরের মামলায় প্রধান আসামি ছিলেন অফিস সহকারী নূর মোহাম্মদ। যার মামলা নং- কোতোয়ালী সি আর ৫৫৪/১৯। ওই মামলায় আসামিরা হলেন, সিলেট সিলেট এম এ জি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের সাবেক অফিস সহকারী বর্তমান দক্ষিণ সুরমা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে কর্মরত নূর মোহাম্মদ, সিনিয়র স্টাফ নার্স তাজুল ইসলাম, রেজাউল করিম, স্টাফ নার্স নূরুল ইসলাম ও অফিস সহকারী ওয়াহিদুর রহমানসহ একটি চক্র। এদের মধ্যে রেজাউল ওসমানী হাসপাতালে এবং বাকি তিনজন ওসমানীর আওতাধীন সদর ও সংক্রামক ব্যাধি হাসপাতালে কর্মরত আছেন। নূর মোহাম্মদ দক্ষিণ সুরমা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে। এদের মধ্যে সিনিয়র স্টাফ নার্স তাজুল ইসলাম, রেজাউল করিমকে গত ৫ মার্চ বৃহস্পতিবার রাতে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে কোতোয়ালী থানা পুলিশ অভিযান চালিয়ে গ্রেফতার করে। পরের দিন শুক্রবার আদালতে তাদের হাজির করা হয়। পরে আদালত এই দুই নার্স কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন। স্টাফ নার্স নূরুল ইসলাম ও অফিস সহকারী ওয়াহিদুর রহমানকে আদালতে হাজির হলে আদালত তাদের জামিন মঞ্জর করেন।

  •  

সর্বমোট পাঠক


বাংলাভাষায় পুর্নাঙ্গ ভ্রমণের ওয়েবসাইট