নবীগঞ্জ উপজেলায় সাফল্যের শীর্ষে আউশকান্দি রাশিদিয়া ও দিনারপুর হাই স্কুল

প্রকাশিত: ৩:০৫ অপরাহ্ণ, জুন ১, ২০২০

নবীগঞ্জ উপজেলায় সাফল্যের শীর্ষে আউশকান্দি রাশিদিয়া ও দিনারপুর হাই স্কুল

নবীগঞ্জ উপজেলার কয়েকটি র্শীষ স্থানীয় স্কুলকে পিছনে ফেলে আউশকান্দি রাশিদিয়া উচ্চ বিদ্যালয়ে ১৪ জন ও দিনারপুর পরগনার দিনার উচ্চ বিদ্যালয়ের ১০ জন ছাত্র-ছাত্রী জিপিএ-৫ পেয়ে উপজেলার শীর্ষে অবস্থান করছে।

জিপিএ-৫ প্রাপ্ত শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলো হচ্ছে আউশকান্দি রাশিদিয়া উচ্চ বিদ্যালয় ১৪ জন, দিনারপুর উচ্চ বিদ্যালয় ১০ জন, নবীগঞ্জ জে.কে মডেল সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ে ৮ জন, হোমল্যান্ড আইডিয়াল স্কুল ৮ জন ও হীরা মিয়া বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের ৬ জন, রাগীব রাবেয়া উচ্চ বিদ্যালয়ে ৪ জন, নাদামপুর উচ্চ বিদ্যালয় ৪ জন , ইনাতগঞ্জ উচ্চ বিদ্যালয়ে ৪ জন, বাগাউড়া উচ্চ বিদ্যালয়ে ৪ জন, শাহ্ তাজ উদ্দিন কুরিশি উচ্চ বিদ্যালয়ে ৩ জন, রাজরানী শুভাষিনী বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ে ৩ জন, জগন্নাথপুর এস.এন.পি উচ্চ বিদ্যালয়ে ১জন, আজিজ হাবিব উচ্চ বিদ্যালয়ে ১ জন, গোপলা বাজার উচ্চ বিদ্যালয়ে ১ জন ও ঘোলডুবা উচ্চ বিদ্যালয়ে ১জনসহ উপজেলায় এবার এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষায় নবীগঞ্জ উপজেলার বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ৭৬ জন ছাত্র-ছাত্রী জিপিএ-৫ পেয়েছে।

পাশের দিক থেকে ৯৩ দশমিক ৯৪ শতাংশ নিয়ে সবার উপরে আবস্থান করছে ঘোলডুবা উচ্চ বিদ্যালয়।

নবীগঞ্জ শিক্ষা অফিস সূত্রে জানা যায়, উপজেলায় ২ হাজার ৯০৫ জন শিক্ষার্থী এসএসসি পরীক্ষায় অংশগ্রহন করেন। এর মধ্যে পাশ করেছেন ২ হাজার ২৮৯ জন। জিপিএ-৫ পেয়েছে ৬৮জন। পাশের হার ৭৯ দশমিক ৩১ শতাংশ। এবার স্কুল পর্যায়ে কোন প্রতিষ্ঠান শতভাগ পাশ করতে পারেনি। তবে মাদ্রাসা পর্যায়ে ৩টি প্রতিষ্ঠান শতভাগ পাশের গৌরব অর্জন করতে পেরেছে।

এব্যপারে নবীগঞ্জ উপজেলা মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মো. সাদেক হোসন জানান, নবীগঞ্জ উপজেলায় গতবারের তুলনায় এবার পাসের হার ও জিপিএ-৫ বেড়েছে। ২০১৯ সালে নবীগঞ্জ উপজেলায় পাসের হার ছিল ৭০ দশমিক ৮৩ এবং জিপিএ-৫ ছিল ৬০ জন আর এবার পাশের হার ৭৯ দশমিক ৩১ শতাংশ এবং জিপিএ-৫ পেয়েছে ৬৮ জন। আর এবার উপজেলা শহরতলীর স্কুলগুলোর চেয়ে শহরের বাইরের স্কুলগুলো আনুপাতিক হার ভালো ফলাফল করেছে।


  •