মানবতার হাত বাড়িয়ে অর্ধশত পরিবারের পাশে পররাষ্ট্রমন্ত্রীর

প্রকাশিত: ১০:২৫ অপরাহ্ণ, মে ২১, ২০২০

মানবতার হাত বাড়িয়ে অর্ধশত পরিবারের পাশে পররাষ্ট্রমন্ত্রীর

এবার পবিত্র ঈদুল ফিতরের আগে অর্ধশত পরিবারে ‘ঈদের খুশি’ পৌঁছে দিলেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. মোমেন। বৃহস্পতিবার বিকেলে সিলেট সার্কিট হাউসে তার স্বেচ্ছাতহবিল থেকে ৪৯ জনের হাতে তুলে দেওয়া হয়েছে ৫ লাখ ২০ হাজার টাকার অনুদানের চেক। অসুস্থ, অসহায় ও দরিদ্র মানুষেরা এই উপহার পেয়ে কৃতজ্ঞতা জানান পররাষ্ট্রমন্ত্রীর প্রতি।

সার্কিট হাউসে অনুদানের চেক বিতরণী অনুষ্ঠানে ভিডিও কনফারেন্সে বক্তব্য রাখেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আবদুল মোমেন। এসময় করোনা পরিস্থিতি মোকাবেলায় সিলেটের জেলা প্রশাসন, পুলিশ প্রশাসন ও স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতাদের ভূমিকার প্রশংসা করেন তিনি। মন্ত্রী বলেন, করোনাভাইরাস পরিস্থিতিতে সিলেটে সরকারের দেয়া ত্রাণ বিতরণ সুষ্টুভাবে হচ্ছে। স্থানীয় প্রশাসন ও জনপ্রতিনিধিরা খুবই আন্তরিকতার সাথে কাজ করছেন। এটা প্রশংসার দাবি রাখে।

ঘুর্ণিঝড় আম্ফানে খুব বেশি ক্ষতি না হওয়ায় বাংলাদেশকে সৌভাগ্যবান উল্লেখ করে মন্ত্রী বলেন, করোনার মধ্যে এই প্রাকৃতিক দুর্যোগ ভয়ের সঞ্চার করেছিল। দেশের উপকূলবর্তী অন্যান্য এলাকার মতো ভাসানচরে আশ্রয় নেওয়া রোহিঙ্গাদের নিয়ে অনেক দু:শ্চিন্তা ছিল। কিন্তু শেষ পর্যন্ত আল্লাহর অশেষ রহমতে বাংলাদেশের খুব ক্ষতি করতে পারেনি আম্ফান। এজন্য তিনি আল্লাহর শুকরিয়া আদায় করেন।

জেলা প্রশাসকের এম. কাজী এমদাদুল ইসলামের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে মন্ত্রীর পক্ষে স্বেচ্ছাতহবিলের চেক উপকারভোগীদের মধ্যে তুলে দেন সিলেট মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি বীরমুক্তিযোদ্ধা মাসুক উদ্দিন আহমদ, সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক জাকির হোসেন, সিলেট জেলা প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক শাহ্ দিদার আলম নবেল, সিলেট মহিলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি সালমা বাছিত, ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক হেলেন আহমদ।

এছাড়াও অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন, পররাষ্ট্রমন্ত্রীর ব্যক্তিগত কর্মকর্তা শফিউল আলম জুয়েল ও আবুল হোসেনসহ জেলা প্রশাসনের কর্মকর্তারা।

পররাষ্ট্রমন্ত্রীর ব্যক্তিগত কর্মকর্তা শফিউল আলম জুয়েল জানান, এর আগে করোনার কারণে সংকটে পড়া লোকজনের মধ্যে মন্ত্রী তার স্বেচ্ছা তহবিল থেকে আরও প্রায় ৫ লাখ টাকা অনুদান বিতরণ করেন।


  •