করোনায় এ পর্যন্ত নিউইয়র্কে ৯ বাংলাদেশির মৃত্যু

প্রকাশিত: ১২:৩২ অপরাহ্ণ, মার্চ ২৫, ২০২০

করোনায় এ পর্যন্ত নিউইয়র্কে ৯ বাংলাদেশির মৃত্যু

প্রাণঘাতী করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে নিউইয়র্কে একদিনেই পাঁচ প্রবাসী বাংলাদেশির মৃত্যু হয়েছে।

স্থানীয় সময় মঙ্গলবার এলমাস্ট হাসপাতাল ও প্লেইনভিউ হসপিটাল নর্থওয়েলে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান তাঁরা। মৃতরা তিনজন নারী এবং দুজন পুরুষ।

এলমাস্ট হাসপাতালে যাঁরা মারা গেছেন তাঁরা হলেন আব্দুল বাতেন (৬০), নূরজাহান বেগম (৭০) এবং ৪২ বছরের এক নারী রয়েছেন। আর প্লেইনভিউ হসপিটাল নর্থওয়েলে মারা গেছেন এ টি এম সালাম (৫৯)। দুই হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের হিউম্যান রিসোর্স এই তথ্য নিশ্চিত করেছে। এছাড়া অপর একটি সূত্রে জানা যায়, নিউ ইয়র্ক ওজন পার্কের জসিম উদ্দিন আহমেদের স্ত্রী মারা গেছেন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে।

আব্দুল বাতেনের বাড়ি নোয়াখালী জেলার সুনাইমুড়ি। তিনি ব্রুকলিনে বসবাস করতেন। মৃত ৪২ বছরের নারীর বাড়ি মৌলভীবাজার জেলায়। তিনি এস্টোরিয়ায় বসবাস করতেন। রংপুরের এ টি এম সালাম ছিলেন ওয়েস্টর বে লং ল্যান্ড এলাকায় থাকতেন। নূরজাহান বেগমের বাড়ি ঢাকার মোহাম্মদপুরে। তিনি থাকতেন নিউ ইয়র্কের এলমাস্ট এলাকায়।

করোনায় নিউ ইয়র্কে এ পর্যন্ত ৯ বাংলাদেশির মৃত্যু হলো।

নিউইয়র্কের বোর্ড অব ইলেকসনের সদস্য মাজেদা আক্তার বলেন, ‘মেয়র অফিস থেকে আমাদের জানানো হয়েছে আক্রান্তদের বেশিরভাগই ট্যাক্সিচালক এবং ডেলিভারি কাজে নিয়োজিত ছিলেন। তাদের মাধ্যমে পরিবারের সদস্যরাও আক্রান্ত হয়েছেন।’

এদিকে, একদিন আগেই ২৩ মার্চ মারা গেছেন ৩৮ বছরের আমিনা ইন্দ্রালিব তৃশা এবং ৬৯ বছরের মোহাম্মদ ইসমত। আগের সাপ্তাহে মারা গেছেন মোতাহের হোসেন ও মোহাম্মদ আলী নামের দুইজন বাংলাদেশি। প্রবাসী বাংলাদেশিদের মধ্যে প্রতিনিয়ত আক্রান্তের সংখ্যা বাড়ছে। ফলে মানুষের মধ্যে দেখা দিয়েছে ভয় আর আতঙ্ক। অনেকে আবার করোনায় আক্রান্ত হয়ে লুকিয়ে থাকার চেষ্টা করছেন বলে জানা গেছে। এতে পরিস্থিতি আরো নাজুক হয়ে পড়ার আশঙ্কা করা হচ্ছে।

  •  

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

সর্বমোট পাঠক


বাংলাভাষায় পুর্নাঙ্গ ভ্রমণের ওয়েবসাইট