চট্টগ্রাম-৮ উপনির্বাচনে শাসকদলের প্রার্থী নির্বাচিত

প্রকাশিত: ১১:৩৮ অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ১৩, ২০২০

চট্টগ্রাম-৮ উপনির্বাচনে শাসকদলের প্রার্থী নির্বাচিত

চট্টগ্রাম-৮ (বোয়ালখালী-চান্দগাঁও) সংসদীয় আসনের উপ-নির্বাচনে শাসকদল আওয়ামী লীগের প্রার্থী মোছলেম উদ্দিন আহমদ নৌকা প্রতীক নিয়ে ৮৭ হাজার ২৪৬ ভোট পেয়ে বেসরকারিভাবে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হয়েছে।

সোমবার রাত পৌনে ৯টায় ১৭০টি কেন্দ্রের ফলাফল প্রকাশ করা হয়েছে। প্রাপ্ত ফলাফলে আওয়ামী লীগের নৌকা প্রতীকের প্রার্থী মোছলেম উদ্দিন আহমদ পেয়েছেন ৮৭ হাজার ২৪৬ ভোট। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বি বিএনপি’র ধানের শীষ প্রতীকের প্রার্থী মো: আবু সুফিয়ান পেয়েছেন ১৭ হাজার ৯৩৫ ভোট।

সোমবার সন্ধ্যার পর হতে চট্টগ্রাম আঞ্চলিক নির্বাচন কর্মকর্তা ও রিটার্নিং অফিসার মোহাম্মদ হাসানুজ্জামান নগরীর জিমনেশিয়াম মাঠের অস্থায়ী কার্যালয়ে এ ফলাফল ঘোষণা করেন।

ঘোষিত ফলাফলে মোছলেম উদ্দিন ও আবু সুফিয়ান ছাড়া অন্য প্রার্থীদের মধ্যে বাংলাদেশ ন্যাশনালিস্ট ফ্রন্ট (বিএনএফ) চেয়ারম্যান এস এম আবুল কালাম আজাদ টেলিভিশন প্রতীক নিয়ে ১ হাজার ১৮৫ ভোট, ইসলামিক ফ্রন্ট বাংলাদেশের সৈয়দ মোহাম্মদ ফরিদ উদ্দিন চেয়ার প্রতীক নিয়ে ৯৯২ ভোট, ন্যাপের বাপন দাশগুপ্ত কুঁড়েঘর প্রতীক নিয়ে ৬৫৬ ভোট এবং স্বতন্ত্র প্রার্থী মোহাম্মদ এমদাদুল হক আপেল প্রতীক নিয়ে ৫৬৭ ভোট পেয়েছেন।

এদিকে, ভোট শেষ হবার প্রায় ৫ ঘন্টা আগেই দুপুর থেকে বিএনপি’র প্রার্থী নিজেদের এজেন্ট বের করে দেয়া, ঢুকতে না দেয়াসহ সিংহভাগ ভোট কেন্দ্রে অনিয়মের অভিযোগ এনে পুনরায় নির্বাচন দাবি করে আসছিলেন। ১২০টি কেন্দ্রে অনিয়মের অভিযোগ এনে ভোট স্থগিতের দাবিতে কমিশনে লিখিত অভিযোগ দেন বিএনপি’র প্রার্থী।

উল্লেখ্য, ইতোপূর্বে সর্বশেষ ২০১৮ সালের ৩০ ডিসেম্বরের একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনেও এই আসে নৌকা প্রতীক নিয়ে মঈন উদ্দিন খান বাদল ২ লাখ ৭২ হাজার ৮৩৮ ভোটে বিজয়ী হয়েছিলেন। আর নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী বিএনপি’র ধানের শীষের প্রার্থী আবু সুফিয়ান ৫৯ হাজার ১৩৫ ভোট পেয়েছিলেন। সেই হিসেবে এবারের উপনির্বাচনে ভোটার উপস্থিতি অস্বাভাবিক কমে গেছে।

  •  

সর্বমোট পাঠক


বাংলাভাষায় পুর্নাঙ্গ ভ্রমণের ওয়েবসাইট