হাড় কাঁপানো শীতে কাঁপছে চুয়াডাঙ্গা

প্রকাশিত: ১২:৪৬ অপরাহ্ণ, ডিসেম্বর ২২, ২০১৯

হাড় কাঁপানো শীতে কাঁপছে চুয়াডাঙ্গা

চুয়াডাঙ্গায় মৃদু শৈত্যপ্রবাহে স্থবির জনজীবন। গতকাল থেকে সূর্যের দেখা মেলেনি এ জেলায়। এ সপ্তাহের দুদিন দেশের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে চুয়াডাঙ্গায়। তাপমাত্রা উঠা নামা করায় বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছে এখানকার জনজীবন।

রবিবার (২২ ডিসেম্বর) সকালে জেলার সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে ৯.৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস। তবে, তাপমাত্রা আরও কমতে পারে বলে জানান চুয়াডাঙ্গা আবহাওয়া অফিসের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা সামাদুল হক।

ঘন কুয়াশা আর হিমেল হাওয়ায় কমছে না শীতের তীব্রতা। দিনের তাপমাত্রা কিছুটা সহনীয় হলেও হ্রাস পাচ্ছে রাতের তাপমাত্রা। শীতল বাতাস বাড়িয়ে দিচ্ছে মানুষের ভোগান্তি। সবচেয়ে বেশি দুর্ভোগে পোহাতে হচ্ছে খেটে খাওয়া ছিন্নমূল মানুষদের। খড়কুটো জ্বালিয়ে শীত নিবারণ করতে দেখা গেছে এসব মানুষগুলোকে।

এ দিকে চুয়াডাঙ্গা এখন পর্যন্ত ২০ হাজার কম্বল এসে পৌঁছেছে বলে জানিয়েছে জেলা প্রশাসন। গত কয়েকদিন ধরে জেলার চারটি উপজেলার ছিন্নমূল মানুষের মধ্যে বিতরণ শুরু হয়েছে। তবে জেলার প্রায় ১৮ লক্ষ মানুষের বসবাস এতে কম্বলের স্বল্পতা রয়ে গেছে।

গত কয়েকদিন ধরে জেলার নিম্ন আয়ের মানুষদের পুরনো কাপড়ের দোকানগুলোতেও ভিড় লক্ষ করা গেছে। এছাড়া হাসপাতালগুলোতে ঠাণ্ডাজনিত রোগীর সংখ্যা বাড়ছে।

  •  

সর্বমোট পাঠক


বাংলাভাষায় পুর্নাঙ্গ ভ্রমণের ওয়েবসাইট