ভারতে মুসলিম পুলিশদের দাড়ি রাখতে নিষেধাজ্ঞার জেরে তোলপাড়

আন্তর্জাতিক

ভারতের রাজস্থানে আলওয়ার জেলায় পুলিশ বাহিনীর নয় জন মুসলিম সদস্যকে দাড়ি কেটে ফেলার নির্দেশ দেয় পুলিশ প্রশাসন। এই ঘটনায় ব্যাপক আলোচনা সমালোচনার জেরে এর একদিন পরে সেই নির্দেশ প্রত্যাহার করা হয়।

গত বৃহস্পতিবার পুলিশ কর্তৃপক্ষের সেই আদেশে বলা হয়েছে, নয়জন পুলিশ সদস্যকে তাদের দাড়ি কাটতে বলা হয় যাতে তাদের “নিরপেক্ষ” মনে হয়।

এমন সংবাদ ছড়িয়ে পরার পর বিভ্নি স্থানে এর প্রতিক্রিয়া শুরু হলে আদেশ প্রদানের একদিন পর শুক্রবার আলওয়ারের পুলিশ সুপার অনিল প্যারিস দেশমুখ এ আদেশ প্রত্যাহার করে নেন।

পুলিশ জানিয়েছে, এর আগে ৩২ জন মুসলিম পুলিশকে দাড়ি রাখার অনুমতি দিয়েছিল। বৃহস্পতিবারের আদেশে তাদের ভেতর থেকে নয়জনের জন্য এই অনুমতি প্রত্যাহার করেছে। তবে বাকী ২৩ পুলিশ সদস্যকে দাড়ি রাখার অনুমতি দেয়া হয়েছিল।

এসপি দেশমুখ সাংবাদিকদের বলেছিলেন, পুলিশ সদস্যদের কেবল নিরপেক্ষভাবে কাজ করা উচিত নয়, তাদের দেখলেও যেন নিরপেক্ষ মনে হয়।

তিনি বলেন, রাজ্য সরকারের একটি বিধান রয়েছে যেখানে পুলিশ প্রধান দাড়ি রাখার অনুমতি দিতে পারেন। এই বিধানের আওতায় ৩২ পুলিশ সদস্যকে অনুমতি দেওয়া হয়েছিল। আবার পরে নয় জন পুলিশ সদস্যের অনুমতি বাতিল করা হয়েছে।

শুক্রবার এই আদেশ প্রত্যাহার করা হয়।

এসময়, পুলিশ সুপার দেশমুখ বলেছিলেন, এটি প্রশাসনিক আদেশ ছিল যা পুলিশ সদস্যদের মানসিকভাবে দ্বন্দ্বে ফেলে দিয়েছিল। যার ফলে তা প্রত্যাহার করা হয়েছে। হিন্দুস্থান টাইমস।

Leave a Reply