রোহিঙ্গাদের ইন্ধনদাতারা আসবে আইনের আওতায়

প্রকাশিত: ১:২৪ পূর্বাহ্ণ, আগস্ট ৩১, ২০১৯

পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. একে আব্দুল মোমেন বলেছেন, যারা রোহিঙ্গাদের নানাভাবে ইন্ধন দিচ্ছেন তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

শুক্রবার (৩০ আগস্ট) সন্ধ্যায় সিলেটে শোক দিবসের আলোচনা সভা শেষে সাংবাদিকদের মন্ত্রী এ কথা বলেন।

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৪তম শাহাদাৎ বার্ষিকী উপলক্ষে নগরীর হাফিজ কমপ্লেক্সে এক আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিলের আয়োজন করেন মন্ত্রী পত্নী সেলিনা মোমেন।

আব্দুল মোমেন বলেন, বিভিন্ন এনজিও প্রতিষ্ঠান রোহিঙ্গাদের নানাভাবে ইন্দন দিচ্ছেন বলে যে অভিযোগ ওঠেছে তা খতিয়ে দেখা হবে। যারা রোহিঙ্গাদের নানাভাবে ইন্দনে সহযোগিতা করছে তাদের চিহ্নিত করে আইনের আওতায় আনা হবে।

তিনি আরও বলেন, রোহিঙ্গারা শুধু বাংলাদেশের সমস্যা নয় সারা বিশ্বের সমস্যা। এ সমস্যা দীর্ঘস্থায়ী হলে কারো লাভ হবে না, সকলেই ক্ষতিগ্রস্ত হবেন। তাই, এ বিষয়ে বিশ্বের অন্যান্য দেশগুলোর সোচ্চার ভূমিকা আশা করছি।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, মিয়ানমার নিশ্চিত করেছে, রোহিঙ্গারা ফিরে গেলে নিশ্চিন্তে বসবাস করতে পারবে। তাদেরকে কেউ অত্যাচার করবে না। কিন্তু তারা একথা রোহিঙ্গাদের বিশ্বাস করাতে ব্যর্থ হয়েছে।

তিনি বলেন, আমরা মিয়ানমার কর্তৃপক্ষকে বলেছি, আরাকানের পরিবেশের বিষয়ে বিশ্বাসযোগ্যতা অর্জনের জন্য রোহিঙ্গা নেতাদের কয়েকজনকে সেখানে নিয়ে যাও যাতে তারা পুনরায় এসে বাংলাদেশে অবস্থানরত রোহিঙ্গাদের বোঝাতে সক্ষম হয়। কিন্তু তারা সেটা করেনি।

মহানগর আওয়ামী লীগের শিক্ষা বিষয়ক সম্পাদক সিটি কাউন্সিলর আজাদুর রহমান আজাদের পরিচালনায় অনুষ্ঠানে সাবেক সংসদ সদস্য সৈয়দা জেবুন্নেছা হক, সিটি কাউন্সিলর তারেক উদ্দিন তাজ বক্তব্য রাখেন।

এর আগে মন্ত্রী সিলেট সদর উপজেলার মোগলগাঁও ইউনিয়নে বিভিন্ন উন্নয়ন প্রকল্পের উদ্বোধন করেন। এসময় তিনি জানান, সরকারের পক্ষ থেকে সিলেটের উন্নয়ন নিয়ে নানা প্রকল্প গ্রহণ করা হয়েছে। সিলেটের ৬০টি স্কুলের নতুন ভবনের কাজ শুরু হয়েছে। বাসস।

  •  

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

সর্বমোট পাঠক


বাংলাভাষায় পুর্নাঙ্গ ভ্রমণের ওয়েবসাইট