রোহিঙ্গা সংকট সমাধানে বিএনপির ১০ দফা

প্রকাশিত: ১২:২৩ পূর্বাহ্ণ, আগস্ট ২৯, ২০১৯

রোহিঙ্গা সংকট সমাধানে বিএনপির ১০ দফা

আবারও জাতীয় ঐক্যের আহ্বান জানিয়ে রোহিঙ্গা সংকট সমাধানে সরকারকে ১০ দফা সুপারিশ দিয়েছে বিএনপি।

বুধবার (২৮ আগস্ট ) বিকালে রাজধানীর গুলশানে একটি হোটেলে ‘রোহিঙ্গা সংকট ও বাংলাদেশের ভূমিকা’ শীর্ষক এক গোলটেবিল আলোচনায় বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর এ আহ্বান জানান। বিএনপি আয়োজিত এ আলোচনায় বিভিন্ন দেশের কূটনীতিকরা অংশ নেন।

বিএনপির ১০ দফা সুপারিশে রয়েছে— জাতীয় ঐক্য সৃষ্টি, রোহিঙ্গাদের নিজ দেশে প্রত্যাবাসনে তাদের নাগরিকত্ব, নিজের মাতৃভূমিতে অবাধ চলাচল নিশ্চিত, নিরাপত্তা, বন্ধুপ্রতিম রাষ্ট্রগুলোকে নিয়ে রোহিঙ্গা সংকট সমাধানে মিয়ানমার সরকারকে চাপে রাখা, প্রত্যাবাসনের আগে-পরে জাতিসংঘের তত্ত্বাবধানের মিয়ানমারের পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণে সুযোগ সৃষ্টি করা, রোহিঙ্গা ইস্যু ঘিরে যেন জঙ্গি ও সন্ত্রাসবাদ সৃষ্টি না হয় সে বিষয়ে সরকারকে যথাযথ ব্যবস্থা নেওয়া প্রভৃতি।

বিএনপির মহাসচিব বলেন, আমরা এ আলোচনার মধ্য দিয়ে সরকারের কাছে পৌঁছাতে চাই। জনগণের কাছে পৌঁছাতে চাই, বিশ্বমানবতার কাছে পৌঁছাতে চাই। পাশাপাশি আমরা আন্তর্জাতিক সংস্থাগুলোকে, জাতিসংঘকে, আন্তর্জাতিক বিশ্বকে আহ্বান জানাচ্ছি, মানবিক যে অবস্থা সৃষ্টি হয়েছে তা সমাধানের জন্য তারা তাদের ভূমিকা পালন করবে। এ সরকারের নৈতিক কোনো অবস্থান নেই। এ সরকার অনির্বাচিত। তাই তাদের বিশ্বজনমত সৃষ্টি করতে হলে সমগ্র জনগণকে সামনে নিয়েই অভাবটা পূরণ করতে হবে।

বিএনপির গোলটেবিল আলোচনায় উপস্থিত ছিলেন- যুক্তরাজ্য, যুক্তরাষ্ট্র, কানাডা, অস্ট্রেলিয়া,ফ্রান্স, জাপান, নরওয়ে, সুইডেন, সুইজারল্যান্ড, আফগানিস্তান, তুরস্ক, চীন, ভারত, পাকিস্তান, জাতিসংঘ, ডেমোক্রেসি ইন্টারন্যাশনাল প্রভৃতি দেশ ও সংগঠনের কূটনীতিকরা। কূটনীতিকরা আলোচনায় অংশ নিয়ে আলোচকদের বক্তব্য নোট করেছেন, কিন্তু বক্তব্য দেননি।

আলোচনায় বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ও পররাষ্ট্র কমিটির চেয়ারম্যান আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী রোহিঙ্গা শরণার্থীদের ওপর মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন। এতে রোহিঙ্গাদের আগমনের প্রেক্ষাপট, জাতিসংঘের সাবেক মহাসচিব কফি আনামের প্রতিবেদন এবং রোহিঙ্গাদের প্রত্যাবাসনে তাদের নাগরিকত্ব ও নিরাপত্তা নিশ্চিত করেই করণীয় বিষয়গুলো তুলে ধরা হয়।

বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য আবদুল মইন খান, গণস্বাস্থ্য সংস্থার ট্রাস্টি ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী, সাবেক প্রধানমন্ত্রীর পররাষ্ট্র বিষয়ক উপদেষ্টা রিয়াজ রহমান, অর্থনীতিবিদ অধ্যাপক মাহবুবউল্লাহ, সাবেক সচিব এএইচএম মোফাজ্জল করীম, সাবেক রাষ্ট্রদূত সিরাজুল ইসলাম, শিক্ষাবিদ অধ্যাপক দিলারা চৌধুরী ও অধ্যাপক সুকোমল বড়ুয়া গোল টেবিলে বক্তব্য দেন।

বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক শ্যামা ওবায়েদের পরিচালনায় গোল টেবিল আলোচনায় দলের স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায়, সেলিমা রহমান, ইকবাল হাসান মাহমুদ টুকু, ভাইস চেয়ারম্যান কামাল ইবনে ইউসুফ, হাফিজ উদ্দিন আহমেদ, আলতাফ হোসেন চৌধুরী, আবদুল মান্নান, রুহুল আলম চৌধুরী, আবদুল আউয়াল মিন্টু, জয়নাল আবেদীন, অধ্যাপক এজেডএম জাহিদ হোসেন প্রমূখ উপস্থিত ছিলেন।

  •  

সর্বমোট পাঠক


বাংলাভাষায় পুর্নাঙ্গ ভ্রমণের ওয়েবসাইট