সিলেট নগরবাসীর প্রতি মহানগর পুলিশের আহবান

প্রকাশিত: ২:০৫ পূর্বাহ্ণ, আগস্ট ১১, ২০১৯

সিলেট নগরবাসীর প্রতি মহানগর পুলিশের আহবান

১১ আগস্ট ২০১৯, রোববার : ঈদ-উল-আযহা উপলক্ষে ঈদের আনন্দ ও শান্তি শৃংখলা অটুট রাখতে মহানগরীর বাসিন্দাদের প্রতি সহযোগিতা কামনা করেছে সিলেট মহানগর পুলিশ।

সিলেট মহানগর পুলিশের অতিরিক্ত উপ-কমিশনার (মিডিয়া) মুহাম্মদ আবদুল ওয়াহাবের পাঠানো এক গণ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, সকলে সার্বিক নিরাপত্তা ও শান্তি শৃংখলা বজায় রাখতে কয়েকটি বিষয় মেনে চলার অনুরোধ করা হয়েছে তা নিচে তুলে ধরা হলো:-

১। কোরবানীর পশু সিটি কর্পোরেশন কর্তৃক নিদিষ্ট স্থানে এবং ইউনিয়ন এলাকায় নিদিষ্ট স্থানে জবাই করার জন্য অনুরোধ করা হল। পশু জবাইয়ের বর্জ্য নিদিষ্ট জায়গায় রাখার জন্য অনুরোধ করা হল। এ ক্ষেত্রে স্থানীয় ওয়ার্ড কাউন্সিলর এর সাথে যোগাযোগ করে অস্থায়ী পশু জবাই এর স্থান সর্ম্পকে জানার জন্য অনুরোধ করা গেল।

২। প্রতিটি পশুর হাটে জাল টাকা সনাক্তে সিলেট মেট্টোপলিটন পুলিশের বুুথে জাল টাকা সনাক্ত করণ মেশিন দ্বারা টাকা পরীক্ষা করার অনুরোধ করা হল।

৩। ঈদগাহে যাওয়ার সময় নগদ অর্থ, মোবাইল ফোন বহন করার ক্ষেত্রে সর্তক থাকুন।

৪। ঈদ উপলক্ষে বাসা/বাড়িতে গৃহকর্মী নিযুক্ত করলে তাদের প্রতি বিশেষ নজর রাখুন, ঈদগাহ্ মাঠে প্রবেশের সময় জায়নামাজ ব্যতীত অন্য কোন বস্তুু না নেওয়ার জন্য সকলকে নিরুৎসাহিত করা হল।

৫। ট্রাফিক আইন মেনে চলুন। ঈদগাহ্ মাঠের যানযট নিরসণকল্পে ব্যক্তিগত গাড়ী ঈদগাহ্ মাঠ হতে দূরে পার্কিং এর জায়গায় রাখুন।

৬। ঈদ উপলক্ষে ছুটিতে গেলে বা বাসা ত্যাগ করলে আপনার বাসার দরজা-জানালা সঠিকভাবে তালাবন্ধ করুন, আপনার বাসা/ অফিসে ক্লোজ সার্কিট ক্যামেরা ব্যবহার করুন, দরজায় নিরাপত্তা এলার্মযুক্ত তালা ব্যবহার করুন, মহল্লা ও বাড়ির সামনে সন্দেহজনক কাউকে/ দুস্কৃতিকারীকে ঘোরাফেরা করতে দেখলে স্থানীয় পুলিশ ফাঁড়ি ও থানা পুলিশকে অবহিত করুন।

৭। ঈদ উপলক্ষে বাসা ছেড়ে যাওয়ার আগে ফ্রিজ বন্ধ রাখুন। বালতি, গামলা, বদনা ইত্যাদি পানি শূন্য করে উপুড় করে রাখুন ও ডেঙ্গু রোগের বাহক এডিস মসার বংশ বিস্তার রোধে সহযোগিতা করুন।

৮। ঈদের আগে/পরে সময় নিয়ে ভ্রমন পরিকল্পনা করুন। শেষ মূর্হুতে ট্রেন ও বাসের মারাত্মক ভিড় এড়িয়ে চলুন। জীবনের ঝুঁকি নিয়ে অতিরিক্ত যাত্রী ট্রেন ও বাসে চলাচল করবেন না। ট্রেন ও বাসের ছাদে এবং ট্রাকে ভ্রমন বিপদজনক।

৯। পুরুষ ও নারী পকেটমার এবং প্রতারক হতে সর্তক থাকুন। বাস টার্মিনাল সমূহে, রাস্তায় ও হাটে আগত ক্রেতা বিক্রেতাগণ কোন অপরিচিত ব্যক্তি, অজ্ঞান পার্টির নিকট হতে কোন খাদ্যদ্রব্য গ্রহণ না করার জন্য অনুরোধ করা হল।

১০। রাত্রিকালে জনবহুল রাস্তা দিয়ে চলাচল করার চেষ্টা করুন। রাস্তায় চলাচলের সময় সঙ্গে থাকা মূল্যবান সামগ্রী বা টাকা পয়সা সম্পর্কে সাবধানতা অবলম্বন করুন এবং মধ্য কিংবা শেষ রাতে বাসস্ট্যান্ডে নামলে সতর্কতার সাথে চলাচল করুন, প্রয়োজনে পুলিশের সহায়তা নিন।

১১। ট্যাক্সি/অটোরিক্স্রা বা ভাড়ায় চালিত অন্যান্য গাড়ি ভাড়া করার সময় গাড়ির রেজিস্ট্রেশন নম্বর এবং ড্রাইভারের নাম ঠিকানা লিখে নিন, যাত্রী সাধারণকে ট্রাকে করে ঈদ ভ্রমণ না করার জন্য অনুরোধ করা হল।

১২। সন্দেহজনক কোন ব্যক্তি বা বস্তু প্রত্যক্ষ করলে অথবা আপনার যে কোন মতামত/ অভিমত/ অভিযোগ জানাতে নি¤েœ বর্ণিত নাম্বার সমূহে অবহিত করার জন্য বিশেষভাবে অনুরোধ করা হল।

এছাড়া যেকেনো প্রয়োজনে নিম্নের নাম্বারগুলোতে যোগাযোগ করতেও অনুরোধ করা হয়েছে। 

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

সর্বমোট পাঠক


বাংলাভাষায় পুর্নাঙ্গ ভ্রমণের ওয়েবসাইট