এরশাদের অবস্থা একেবারেই খারাপের দিকে

প্রকাশিত: ১:৫৭ পূর্বাহ্ণ, জুলাই ৫, ২০১৯

এরশাদের অবস্থা একেবারেই খারাপের দিকে

এ মুহূর্তে একেবারেই খারাপের দিকে জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের শারীরিক অবস্থা। এরশাদের চিকিৎসক ও দলীয় সূত্রে জানা গেছে, তিনি এখন জীবন-মৃত্যুর সন্ধিক্ষণে।

বৃহস্পতিবার (৪ জুলাই) দুপুরে এরশাদকে সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে (সিএমএইচ) লাইফ সাপোর্টে নেওয়া হয়েছে।

চিকিৎসক সূত্রে জানা গেছে, এরশাদের শারীরিক অবস্থা একেবারেই খারাপের দিকে। তিনি জীবন-মৃত্যুর সন্ধিক্ষণে আছেন। সৃষ্টিকর্তার বিশেষ রহমত ছাড়া তার এই যাত্রায় বেঁচে যাওয়া হয়তো আর হবে না।

হুসেইন মুহম্মদ এরশাদকে দেখতে সিএমএইচে গেছেন তার স্ত্রী ও সিনিয়র কো চেয়ারম্যান এবং বিরোধী দলীয় উপনেতা বেগম রওশন এরশাদ, দলের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান গোলাম মোহাম্মদ (জিএম) কাদের ও এরশাদের ছেলে সাদ এরশাদ।

এছাড়া শুক্রবার মসজিদ, মন্দির, গির্জা, প্যাগোডাসহ দেশের সব ধর্মীয় উপসনালয়ে এরশাদের রোগমুক্তি এবং সুস্থতা কামনায় দোয়া করতে অনুরোধ জানিয়েছেন রওশন।

গত ২২ জুন সকালে গুরুতর অসুস্থ অবস্থায় সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে ভর্তি করার পর এরশাদের ফুসফুস ও কিডনিতে সংক্রমণের বিষয়টি ধরা পড়ে।

জাপার মহাসচিব মসিউর রহমান রাঙ্গাঁ বুধবার বিকালে এক ব্রিফিংয়ে বলেন, চেয়ারম্যানের অসুস্থতার কারণে ‘জরুরি প্রয়োজন ছাড়া’ জাতীয় পার্টির সব সাংগঠিন কার্যক্রম আপাতত স্থগিত রাখা হয়েছে।

এরশাদের সুস্থতা কামনায় জাতীয় পার্টি শুক্রবার দেশের সব মসজিদ, মন্দির, প্যাগোডা, গির্জাসহ অন্যান্য ধর্মীয় প্রতিষ্ঠানে দোয়া ও প্রার্থনার আয়োজন করবে বলেও জানান তিনি।

১০ ডিসেম্বর চিকিৎসার জন্য সিঙ্গাপুরে যান এরশাদ। ভোটের মাত্র ৩ দিন আগে ২৬ ডিসেম্বর দেশে ফিরলেও নির্বাচনি ক্যাম্পেইনে যোগ দেননি। এমনকি নিজের ভোটও দিতে যেতে পারেননি সাবেক এ রাষ্ট্রপতি। এরপর ২০ জানুয়ারি আবারও সিঙ্গাপুরে যান চিকিৎসা নিতে। সেখান থেকে ফেরেন ৪ ফেব্রুয়ারি। তবে এখনো কোনো রাজনৈতিক কর্মসূচিতে তাকে দেখা যায়নি। সংসদ অধিবেশনে মাত্র একদিনের জন্য হাজির হয়েছিলেন তাও হুইল চেয়ারে ভর করেই।

  •  

সর্বমোট পাঠক


বাংলাভাষায় পুর্নাঙ্গ ভ্রমণের ওয়েবসাইট