বিএনপির জেলা কমিটি পুনর্গঠনের পরই জাতীয় কাউন্সিল : মির্জা ফখরুল

রাজনীতি

নিজাম ইউ জায়গীরদার : বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, বিএনপির জেলা কমিটি পুনর্গঠনের পর জাতীয় কাউন্সিল অনুষ্ঠিত হবে। আজ শনিবার রাজধানীর চন্দ্রিমা উদ্যানে শহীদ রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের সমাধিতে পুষ্পমাল্য অর্পণ শেষে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি এ কথা বলেন।

এর আগে বিএনপির জাতীয় স্থায়ী কমিটির নতুন নির্বাচিত দুজনসহ অন্য সদস্যদের নিয়ে দলের প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমানের কবর জিয়ারত করেন মির্জা ফখরুল। এ সময় দলটির অঙ্গ-সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

মেয়াদোত্তীর্ণ কমিটিতে কেন স্থায়ী কমিটির নতুন সদস্য মনোনয়ন দেওয়া হলো এবং বিএনপির কাউন্সিল নিয়ে আপনাদের পরিকল্পনা কি- এই প্রশ্নের জবাবে ফখরুল বলেন, ‘জাতীয় স্থায়ী কমিটিতে যেকোনো সময় নিয়োগ এবং সদস্য নির্বাচিত করা যায়। আর কাউন্সিলের প্রস্তুতি আমরা নিচ্ছি। এজন্য ইতিমধ্যে আমাদের কার্যক্রম শুরু হয়েছে। আর জেলাগুলোতে আমরা পুনর্গঠনের কাজ শুরু করেছি।’

স্থায়ী কমিটিতে আরও তিনটি শূন্য পদ আছে- এ বিষয়ে দৃষ্টি আকর্ষণ করা হলে বিএনপি মহাসচিব বলেন, সেগুলোতেও প্রয়োজনে যথাসময়ে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

বিএনপির নির্বাহী কমিটি থেকে অনেকে চলে যাচ্ছে- সেক্ষেত্রে কি কাউন্সিলের আগেই সেগুলো পূরণ করা হবে- এই প্রশ্নের জবাবে ফখরুল বলেন, ‘এটা আমরা দলের স্থায়ী কমিটির বৈঠকে সিদ্ধান্ত নেবো।
এ সময় নজরুল ইসলাম খান, ইকবাল হাসান মাহমুদ টুকু, বেগম সেলিমা রহমান, হাবিবুর রহমান হাবিব, মুজিবুর রহমান সারোয়ার, শামা ওবায়েদ, অ্যাডভোকেট মাসুদ আহমেদ তালুকদার, শিরিন সুলতানা প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

কেন্দ্রীয় যুবদলের শোডাউন

এদিকে নতুন দুই স্থায়ী কমিটির সদস্যের মাজার জিয়ারত ঘিরে বিশাল শোডাউন করেছে কেন্দ্রীয় যুবদল। বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী যুবদলের সভাপতি সাইফুল আলম নীরব, সি‌নিয়র সহ-সভাপ‌তি মোরতাজুল ক‌রিম বাদরু ও ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক নূরুল ইসলাম নয়নের নেতৃত্বে বিশাল মিছিল সহকারে অংশ নেন নতুন দুই স্থায়ী কমিটির সদস্যের মাজার জিয়ারত কর্মসুচিতে।

এসময় স্লোগান স্লোগানে তারা মাতিয়ে তুলে পুরো এলাকা। মিছিলে বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে বিভিন্ন স্লোগান দেয় যুবদল নেতাকর্মীরা।

Leave a Reply