খাদ্যে ভেজালকারীদের ফাঁসি হওয়া উচিত : র‌্যাব ডিজি

জাতীয়

খাদ্যে ভেজালকারীদের ‘খুনি’ বলে অ্যাখ্যা দিয়েছেন র‍্যাবের মহাপরিচালক বেনজীর আহমেদ। তিনি এদের ফাঁসি দিতে হবে বলে মন্তব্য করে আইনের সংস্কারও চেয়েছেন। তিনি বলেছেন, ‘নিত্য প্রয়োজনীয় পণ্যের দাম বৃদ্ধির সংস্কৃতি ভেঙে ফেলতে হবে। সভ্য সংস্কৃতিতে প্রবেশ করার সময় এসেছে। আর যারা খাদ্যে ভেজাল মেশাবে তাদের বিরুদ্ধে মৃত্যুদণ্ডের বিধান করতে হবে।’

মঙ্গলবার রোজার প্রথম দিন রাজধানীর কারওয়ান বাজারে ‘পরিমিত ক্রয় ক্যাম্পেইন প্রোগ্রাম-২০১৯’র উদ্বোধন অনুষ্ঠানে র‌্যাব প্রধান এই কথা বলেন। তিনি ব্যবসায়ীদের উদ্দেশ্যে বলেন, ‘কারও ঘাড়ে কোনো অভিযোগ দেবেন না। কোথাও অন্যায্য কিছু হলে আমরা ব্যবস্থা নেবো। খাদ্যে ভেজাল মেশালে তাদের ফাঁসির সাজা হওয়া উচিত। ব্যবসায়ীরা কাউকে চাঁদা দেবেন না। সৎ ব্যবসায়ীর সঙ্গে আমরা আছি। অসৎ ব্যবসায়ীদের সঙ্গে আমরা নেই। সৎ ব্যবসায়ীরা কোনো ভয় পাবেন না।’
এ বছর দ্রব্যমূল্য নিয়ে বিড়ম্বনা এড়িয়ে জনমনে স্বস্তি দিতে বাংলাদেশ দোকান মালিক সমিতি ও ঢাকা মহানগর দোকান মালিক সমিতি আয়োজন করে এ ক্যাম্পেইনের। ক্যাম্পেইনে রমজান মাসে নিত্যপণ্যের দাম সহনীয় রাখতে ব্যবসায়ীদের প্রতি আহবান জানান বিশিষ্টজনরা। এ সময় ভেজালকারীদের ছাড় দেয়া হবে না বলে হুঁশিয়ার করেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল।

ক্যাম্পেইনে অংশ নিয়ে এফবিসিসিআই সভাপতি শফিউল ইসলাম মহিউদ্দিন বলেন, ‘রমজানে বাজার মূল্য সবার জন্য সহনীয় হবে এটাই প্রত্যাশা। ডিএনসিসি মেয়র আতিকুল ইসলাম রমজানে নিত্য পণ্যের দাম নিয়ন্ত্রণে রাখতে ব্যবসায়ীদের প্রতি আহবান জানান। তিনি বলেন বলেন, ঈমানের অঙ্গ হিসেবে রমজান মাসে খাদ্যের দাম নিয়ন্ত্রণে রাখা উচিত।

Leave a Reply