সিলেটে চাঁদাবাজি মামলায় ইউপি মেম্বার গ্রেপ্তার

প্রকাশিত: ১২:০৬ পূর্বাহ্ণ, এপ্রিল ৯, ২০১৯

সিলেটে চাঁদাবাজি মামলায় ইউপি মেম্বার গ্রেপ্তার

চাঁদাবাজী ও সন্ত্রাসী হামলাসহ বাসার মালামাল লুটপাঠের ঘটনায় দায়ের করা একটি মামলায় সিলেট সদর উপজেলার ৫নং টুলটিকর ইউনিয়নের ৭নং ওয়ার্ড মেম্বার গিয়াস আহমদকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

আটককৃত গিয়াস নগরীর উত্তর বালুচর এলাকার বাসিন্ধা। তার বিরুদ্ধে এসএমপির বিভিন্ন থানায় একাধিক মামলা রয়েছে।

শাহপরান থানার পুলিশ ও মামলা সূত্রে জানা যায়, গত ২৬শে মার্চ রাত ১০টার দিকে ১০/১২ জনের একটি সঙ্গবদ্ধ দল দেশি বিদেশী অস্ত্রে সজ্জিত হয়ে বালুচর এলাকার রহমান প্যালেসের বাসিন্ধা বদরুল হকের ছেলে আনাস হকের বাসায় গিয়ে মোটা অংকের টাকা চাঁদা দাবী করে। এসময় চাঁদা না পেয়ে সন্ত্রাসীরা বাসার লোকজনের উপর হামলা করে নগদ টাকাসহ প্রায় ৫০ হাজার টাকার মালামাল লুট করে নিয়ে যায়। ওই বাসার একাধিক বাসিন্ধাকে আহত করে।

তারা সিলেট ওসমানী হাসপাতালে চিকিৎসা নিলেও এ ঘটনায় শাহপরাণ থানার পুলিশ মামলা গ্রহন না করায় আনাস হক (২৫) বাদী হয়ে ১১ জনের নাম উল্লেখ করে ২ এপ্রিল সিলেট মেট্টোপলিটন ম্যাজিষ্ট্রেট ১ম আদালতে একটি মামলা দায়ের করেন । মামলা নং ০৩(৪)১৯ । পরে আদালতের নির্দেশে ৬/৪/২০১৯ ইং শাহপরাণ থানা মামলাটি এফআইআর করে। শাহপরান থানার মামলা নং ৬(৬)২০১৯ইং।

এই মামলার আসামীদের গ্রেফতারে গত রোববার রাতে অভিযান চালায় পুলিশ। গোপন সংবাদের ভিত্তিতে রাত ১১টার দিকে আসামীরা বালুচর এলাকায় অবস্থান করছে খবর পেয়ে পুলিশ সেখানে অভিযানে গেলে আসামীরা পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে পালিয়ে গেলেও মামলার ১০নং আসামী গিয়াসকে গ্রেফতার করে পুলিশ।

আটক গিয়াস আহমদকে আজ সোমবার আদালতের মাধ্যমে কারাগারে প্রেরণ করা হয়েছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

  •  

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

সর্বমোট পাঠক


বাংলাভাষায় পুর্নাঙ্গ ভ্রমণের ওয়েবসাইট