জাবিতে বিশ্ব স্বাস্থ্য দিবস পালিত

প্রকাশিত: ১০:১১ অপরাহ্ণ, এপ্রিল ৭, ২০১৯

জাবিতে বিশ্ব স্বাস্থ্য দিবস পালিত

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়য়ের পাবলিক হেলথ এন্ড ইনফরমেটিক্স বিভাগের আয়োজনে “বিশ্ব স্বাস্থ্য দিবস” পালিত হয়েছে।

রবিবার (০৭ এপ্রিল) “সমতা ও সংহতি নির্ভর সর্বজনীন প্রাথমিক স্বাস্থ্যসেবা” এই প্রতিপাদ্যে দিনব্যাপী কর্মসূচির মধ্য দিয়ে দিবসটি পালন করা হয়।

সকাল সাড়ে ১১টায় বিশ্ববিদ্যালয় চিকিৎসা কেন্দ্রোর সামনে বেলুন উড়িয়ে বিশ্ব স্বাস্থ্য দিবস উপলক্ষে নানা আয়োজনের উদ্বোধন করেন বিশ্ববিদ্যালয় উপাচার্য অধ্যাপক ফারজানা ইসলাম।

উদ্বোধনী বক্তব্যে তিনি স্বাস্থ্য সম্পর্কে সকলে সচেতন হতে বলেন। একই সঙ্গে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা যাতে বিশ্ববিদ্যালয় চিকিৎসা কেন্দ্র থেকে সর্বোচ্চ সেবাটা নিতে পারে, সে ব্যাপারে বিশ্ববিদ্যালয়ের চিকিৎসা কেন্দ্রে কর্মরত ডাক্তারদের জোর তাগাদা দেন এবং স্বাস্থ্য বিষয়ে সচেতনা বৃদ্ধির জন্য বিভিন্ন সেমিনার, সিম্পজিয়ামের আয়োজন করতে বলেন।

এই সময় উপাচার্য আরো বলেন, যারা স্বাস্থ্য সুবিধা থেকে বঞ্চিত তাদের সর্বজনীন স্বাস্থ্য সুরক্ষা সম্পর্কে জানানো এবং সর্বজনীন স্বাস্থ্য সুরক্ষার লক্ষ্য অর্জনে তোমাদের করণীয় নির্ধারন করতে হবে।

এ সময় বিশ্ববিদ্যালয় উপ-উপাচার্য অধ্যাপক মো. নুরুল আমল, কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক শেখ মনজুরুল হক, অধ্যাপক মোহাম্মদ হানিফ আলী, অধ্যাপক এটিএম আতিকুর রহমান, প্রধান মেডিক্যাল অফিসার ডা. মো. শামছুর রহমানসহ বিভিন্ন বিভাগের শিক্ষক, মেডিক্যালে কর্মরত ডাক্তার, কর্মকর্তা-কর্মচারী প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

উদ্বোধন শেষে একটি র‌্যালী বের হয়। র‌্যালীটি ক্যাম্পাসে গুরুত্বপূর্ণ সড়ক প্রদক্ষিণ করে। র‌্যালীতে সুস্বাস্থ্য সকল সুখের মুল, মায়ের দুধের বিকল্প নাই, সর্বজনীন স্বাস্থ্য সুরক্ষা সবার জন্য সর্বত্র, প্রতিকারের চেয়ে প্রতিরোধ উত্তম, বিশ্ব স্বাস্থ্য দিবস সফল হোক, সুস্থ্য থাকুন চিকিৎসা কেন্দ্রে সেবা নিন, চিকিৎসকের পরামর্শে এন্টিবায়োটিক ব্যবহারকরবেন ইত্যাদি স্লোগান সম্বলিত প্লাকার্ড দেখতে পাওয়া যায়।

এদিকে বিভাগটির শিক্ষার্থীরা বিশ্ববিদ্যালয়ের মুন্নি চত্বরে দিনব্যাপী প্রাথমিক স্বাস্থ্যসেবারও আয়োজন করেছে।

কর্মসূচিতে সভাপতিত্ব করেন পাবলিক হেলথ এন্ড ইনফরমেটিক্স বিভাগের চেয়ারম্যান প্রফেসর ড. তাজউদ্দীন সিকদার। তিনি তার বক্তব্যে বলেন, “আমরা পাবলিক হেলথ বিভাগ জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় কমিউনিটিকে প্রাথমিক স্বাস্থ্যসেবার আওতায় নিয়ে এসে সবাইকে সেবা দিতে অাগ্রহী এবং এই ক্ষেত্রে তিনি বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন এবং উপাচার্য মহোদয়ের কাছে আকুল আবেদন জানান।”

এছাড়া কর্মসূচিতে বিভাগের অন্যান্য শিক্ষকগনও উপস্থিত ছিলেন।

  •  

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

সর্বমোট পাঠক


বাংলাভাষায় পুর্নাঙ্গ ভ্রমণের ওয়েবসাইট