মহাসচিবের আমন্ত্রণেই জাতিসংঘে গিয়ে সার্বিক অবস্থা তুলে ধরা হয়েছে : ফখরুল

প্রকাশিত: ১১:২৭ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ১৭, ২০১৮

মহাসচিবের আমন্ত্রণেই জাতিসংঘে গিয়ে সার্বিক অবস্থা তুলে ধরা হয়েছে : ফখরুল

বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, জাতিসংঘ মহাসচিবের আমন্ত্রণেই যুক্তরাষ্ট্রে গিয়ে দেশের সার্বিক অবস্থা তুলে ধরা হয়েছে।

যুক্তরাষ্ট্র থেকে লন্ডনে তারেক রহমানের সঙ্গে দেখা করে দেশে ফেরার এক দিন পর সোমবার রাতে দলের স্থায়ী কমিটির সদস্যদের নিয়ে বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে তিনি এ কথা বলেন।

নির্বাচনের আগে বাংলাদেশে বর্তমান অবস্থা তুলে ধরে জাতিসংঘের সুদৃষ্টি পাওয়ার প্রতিশ্রুতি পেয়েছেন বলেও দাবি করেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল।

তিনি বলেন, ‘জাতিসংঘের কাছে দেশের বর্তমান রাজনৈতিক পরিস্থিতি তুলে ধরেছি। তারা এ ব্যাপারে কিছু জানতে চেয়েছে, সেগুলো আমরা জানিয়েছি।’

আওয়ামী লীগের শাসনে দেশে ‘গণতন্ত্র নেই’এবং তাদের নেত্রী খালেদা জিয়াকে সরকার ‘অন্যায়ভাবে’কারারুদ্ধ করে রেখেছে বলেও জাতিসংঘকে অবহিত করা হয়েছে।

জাতিসংঘের মনোভাব কেমন দেখেছেন এমন প্রশ্নের জবাবে মির্জা ফখরুল বলেন, ‘আলোচনা করেছি, সমস্ত বলেছি। ওনারা বিষয়গুলো দেখবেন বলেছেন।’

লন্ডনে দলের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানে সঙ্গে বৈঠকের বিষয়ে তিনি বলেন, ‘আলোচনা হয়েছে দেশের পরিস্থিতি সম্পর্কে।’

এর আগে গুলশানে বিএনপি চেয়ারপারসনের কার্যালয়ে স্থায়ী কমিটির বৈঠকের পর বিএনপি মহাসচিব সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেন।

বৈঠকে স্থায়ী কমিটির সদস্য খন্দকার মোশাররফ হোসেন, মওদুদ আহমদ, মাহবুবুর রহমান, রফিকুল ইসলাম মিয়া, মির্জা আব্বাস, গয়েশ্বর চন্দ্র রায়, আবদুল মঈন খান, নজরুল ইসলাম খান, আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী উপস্থিত ছিলেন।

এর আগে যুক্তরাষ্ট্র সফর শেষে রবিবার সন্ধ্যা ৭টায় দেশে ফিরেন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

রবিবার সন্ধ্যা ৭টার দিকে তিনি হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে এসে পৌঁছান। এর আগে জা‌তিসংঘ, ওয়া‌শিংটন ও মা‌র্কিন পররাষ্ট্র দপ্তরে বৈঠ‌কের বিস্তা‌রিত দ‌লের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান‌ তারেক রহমানকে অবহিত করতে যুক্তরাষ্ট্র থেকে লন্ডনে গিয়ে তারেক রহমানের সাথে বৈঠক করেন তিনি।

এর আগে গত মঙ্গলবার দিবাগত রাতে জাতিসংঘ মহাসচিব অ্যান্তোনিও গুতেরেসের আমন্ত্রণে নিউইয়র্ক যান বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। রাত আড়াইটায় এমিরেটস এয়ারলাইনসের একটি ফ্লাইটে তিনি ঢাকা ত্যাগ করেন। যুক্তরাষ্ট্র সফরে মির্জা ফখরুলের সঙ্গে যান বিএনপির নির্বাহী কমিটির সদস্য তাবিথ আউয়াল। এরপর যুক্তরাজ্য থেকে বিএনপির আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক হুমায়ুন কবির তাদের সঙ্গে যোগ দেন।

বাংলাদেশের জাতীয় সংসদ নির্বাচন সামনে রেখে সার্বিক রাজনৈতিক পরিস্থিতি নিয়ে আলোচনা করতে সংস্থাটির সদর দপ্তরে বৃহস্পতিবার জাতিসংঘের রাজনৈতিকবিষয়ক সহকারী মহাসচিব মিরোস্লাভ জিনাকের সঙ্গে একটি বৈঠকে মিলিত হন ফখরুল। এ ছাড়া তিনি যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্র দপ্তরের কর্মকর্তাদের সঙ্গেও বৈঠক করেন। আলোচনার বিষয়বস্তু আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচন হলেও দেশের সার্বিক অবস্থা তুলে ধরে বিএনপির প্রতিনিধিদল।

যুক্তরাজ্য বিএন‌পির একা‌ধিক দা‌য়িত্বশীল সূত্র রবিবার সকালে জানায়, জা‌তিসংঘ সদর দফতর, মা‌র্কিন পররাষ্ট্র দফত‌র ও ওয়া‌শিংট‌নের প্রাতরাশ বৈঠক শে‌ষে বৈঠ‌কের সাম‌গ্রিক বিষয় ও দে‌শের প‌রি‌স্থি‌তি‌তে ভ‌বিষ্যত কর্মপ‌রিকল্পনা সম্প‌র্কে দ‌লের ভারপ্রাপ্ত চেয়‌ারম্যান তা‌রেক রহমান‌কে অব‌হিত কর‌তে শ‌নিবার অা‌মে‌রিকা থে‌কে লন্ড‌নে অা‌সেন দ‌লের মহাস‌চিব মির্জা ফখরুল ইসলাম অালমগীর।

দ‌লের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তা‌রেক রহমা‌নের সা‌থে লন্ড‌নে বিএন‌পির মহাস‌চিবের নেতৃ‌ত্বে প্র‌তি‌নি‌ধিদল‌টি শ‌নিবার সন্ধ্যায় বৈঠক ক‌রেন। প্র‌তি‌নি‌ধি দ‌লে ছি‌লেন দ‌লের কেন্দ্রীয় অার্ন্তজা‌তিক সম্পাদক, লন্ডন প্রবাসী হুমায়ুন কবীর ও দ‌লের নির্ব‌াহী সদস্য তা‌বিথ অাউয়‌াল। বৈঠক শে‌ষে শ‌নিবার লন্ডন সময় রাত দশটা পাচঁ মি‌নি‌টে এ‌মি‌রেটস এয়ারও‌য়ে‌জের এক‌টি ফ্লাইট‌যো‌গে দেশের প‌থে রওনা দেন বিএন‌পি মহাস‌চিব।

  •  

সর্বমোট পাঠক


বাংলাভাষায় পুর্নাঙ্গ ভ্রমণের ওয়েবসাইট