শোক দিবসকে ঘিরে নিরাপত্তা হুমকি নেই, তবে ব্যাগ বহন নিষিদ্ধ : ডিএমপি কমিশনার

প্রকাশিত: ২:৩২ অপরাহ্ণ, আগস্ট ১৪, ২০১৮

শোক দিবসকে ঘিরে নিরাপত্তা হুমকি নেই, তবে ব্যাগ বহন নিষিদ্ধ : ডিএমপি কমিশনার

ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) কমিশনার আসাদুজ্জামান মিয়া বলেছেন, জাতীয় শোক দিবসকে ঘিরে কোনো নিরাপত্তা হুমকি নেই। বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা নিবেদন উপলক্ষ্যে ধানমন্ডি ৩২ নম্বর ও আশপাশের সড়কে প্রয়োজনীয় নিরাপত্তা ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে। তবে যেকোনো ধরনের ব্যাগ বহন নিষিদ্ধ করা হয়েছে।

মঙ্গলবার সকালে প্রেস ব্রিফিংয়ে তিনি এসব কথা বলেন।

এর আগে ১১ আগস্ট ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) কমিশনার আসাদুজ্জামান মিয়া বলেন, নিরাপদ সড়কের দাবিতে আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা পুলিশের বিবেককে নাড়া দিতে পেরেছে।

শনিবার দুপুরে ট্রাফিক সপ্তাহ-২০১৮ উপলক্ষে শেষ দিন এক সংবাদ সম্মেলনে ঢাকা মহানগর পুলিশের প্রধান এ কথা বলেন। এ সময় আসাদুজ্জামান মিয়া আরো জানান, চলতি ট্রাফিক সপ্তাহের কর্মসূচি আরো তিনদিন বাড়ানো হয়েছে।

আসাদুজ্জামান মিয়া বলেন, ‘আমরা এই ট্রাফিক সপ্তাহে ব্যক্তি, পেশা, তার অবস্থান নির্বিশেষে সবাইকে এই বার্তা দিতে পেরেছি যে, ট্রাফিক আইন অমান্য করলে কাউকে ছাড় দেওয়া হবে না। নিরাপদ সড়কের দাবিতে আন্দোলন করে কোমলমতি শিশু-কিশোররা আমাদের বিবেককে নাড়া দিয়েছে। তাদের দাবি যৌক্তিক, ন্যায্য। আমরা তাদের চেতনাকে অন্তরে ধারণ করি।’

ডিএমপি কমিশনার বলেন, ‘শিক্ষার্থীদের আন্দোলনের তৃতীয় দিনে স্বার্থান্বেষী মহল প্রপাগান্ডা ছড়ান। হত্যা, ধর্ষণ ও চোখ তুলে ফেলার মতো গুজব ছড়িয়ে মিথ্যাচার করেন। আন্দোলনের সময় আমরা দেখেছি, গাউসিয়া-নিউ মার্কেটে স্কুলড্রেস বানানোর হিড়িক পড়ে যায়। ভুয়া আইডি কার্ডও তৈরি হয়।’

‘সাংবাদিকের ওপর হামলাকারীদের বিরুদ্ধে পুলিশ কোনো ব্যবস্থা নিয়েছে কি না’- জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘সেদিনের ঘটনা দুঃখজনক। ওই ঘটনায় কেউ যদি আমাদের কাছে অভিযোগ করেন আমরা মামলা নেবো। পাশাপাশি ওই ঘটনা নিয়ে পুলিশের তথ্য অনুযায়ী আইনি ব্যবস্থা নেয়া হবে।’

এ সময় ডিএমপি কমিশনার ট্রাফিক সপ্তাহ উপলক্ষে ছয় দিনে পুলিশের অভিযানের কিছু তথ্য তুলে ধরেন। তিনি বলেন, এই সময়ে ট্রাফিক আইন অমান্য করায়, মোট ৫২ হাজার মামলা হয়েছে। লাইসেন্স না থাকায় মোট ১১ হাজার ৪০২ জন চালকের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে। ফিটনেস না থাকায় ডাম্পিং করা হয়েছে পাঁচ হাজার ৫৭২টি গাড়ি আর এই সময়ে জরিমানা আদায় করা হয়েছে তিন কোটি টাকার বেশি।

  •