নৌমন্ত্রীর পদত্যাগসহ ৯ দফা দাবি মেনে নিন : যুক্তফ্রন্ট

প্রকাশিত: ১:১৯ পূর্বাহ্ণ, আগস্ট ২, ২০১৮

নৌমন্ত্রীর পদত্যাগসহ ৯ দফা দাবি মেনে নিন : যুক্তফ্রন্ট

অবিলম্বে নৌপরিবহনমন্ত্রীর পদত্যাগসহ শিক্ষার্থীদের ৯ দফা দাবি মেনে নেয়ার জন্য সরকারের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন যুক্তফ্রন্ট নেতারা।

বুধবার গণমাধ্যমে পাঠানো এক যুক্ত বিবৃতিতে ফ্রন্টের চেয়ারম্যান ও বিকল্পধারা বাংলাদেশের প্রেসিডেন্ট সাবেক রাষ্ট্রপতি অধ্যাপক একিউএম বদরুদ্দোজা চৌধুরী, জেএসডি সভাপতি আ স ম আবদুর রব ও নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক মাহমুদুর রহমান মান্না এ আহ্বান জানান।

বিবৃতিতে নেতারা বলেন, ৯ দফা দাবিতে ছাত্র বিক্ষোভে রাজধানী ঢাকা যখন উত্তাল তখন শনির আখড়ায় আবারো একটি ট্রাকের চাকায় পিষে আরও একজন ছাত্রকে গুরুতর জখম করা হয়েছে। এখন যেন মৃত্যুর মিছিল চলছে।

বিবৃতিতে তারা আরও বলেন, ছাত্রসহ অন্যদের বাস-ট্রাকের চাকায় পিষে মারার ঘটনা ঠেকানোর কোনো চেষ্টাই এই সরকার করছে না। এই সংকটের মূলে আছে নৌপরিবহনমন্ত্রী ও তথাকথিত শ্রমিক নেতার সড়ক পরিবহন সেক্টরে চাঁদাবাজি ও নৈরাজ্য।

যুক্তফ্রন্ট নেতারা বলেন, আমরা অবিলম্বে শিক্ষার্থীদের ন্যায়সংগত ৯ দফা দাবিদাওয়া মেনে নেয়ার জন্য সরকারের প্রতি আহ্বান জানাচ্ছি। অন্যথায় উদ্ভূত পরিস্থিতির জন্য সরকারই দায়ী থাকবে।

গত রবিবার দুপুরে রাজধানীর কুর্মিটোলায় বিমানবন্দর সড়কে বাসের চাপায় দুই কলেজ শিক্ষার্থী নিহত হয়। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, জাবালে নূর পরিবহনের দুটি বাস প্রতিযোগিতা করে মিরপুর থেকে রাষ্ট্রপতি মো. জিল্লুর রহমান ফ্লাইওভারের ওপর দিয়ে আসছিল। এ সময় ফ্লাইওভারের শেষ দিকে, রাস্তার পাশেই দাঁড়িয়ে ছিল একদল শিক্ষার্থী। এর মধ্যে একটি বাস ফ্লাইওভার থেকে নেমেই দাঁড়িয়ে থাকা শিক্ষার্থীদের চাপা দেয়। এতে ঘটনাস্থলেই দুই শিক্ষার্থীর মৃত্যু হয়। এ ছাড়া আহত হয় বেশ কয়েকজন।

নিহতরা হলো শহীদ রমিজ উদ্দিন ক্যান্টনমেন্ট কলেজের একাদশ শ্রেণির ছাত্রী দিয়া খানম মিম ও দ্বাদশ শ্রেণির ছাত্র আবদুল করিম।

ওই ঘটনার পর থেকেই বিমানবন্দর সড়কসহ বিভিন্ন এলাকায় স্কুল-কলেজের শিক্ষার্থীরা সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ করে। গতকাল মঙ্গলবার এই বিক্ষোভের জেরে রাজধানীর ঢাকা প্রায় অচল হয়ে যায়।

এর মধ্যেই গতকাল মঙ্গলবার প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের সভাকক্ষে সড়ক পরিবহন ও মহাসড়ক বিভাগ, বিআরটিএ ও বিআরটিসিসহ সংশ্লিষ্ট সব প্রতিষ্ঠানকে নিয়ে একটি সভা হয়। সেখান থেকে ঢাকায় গণপরিবহনে অপ্রাপ্তবয়স্ক ও ড্রাইভিং লাইসেন্সবিহীন চালকদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে নির্দেশ দেওয়া হয়।

  •