দুর্নীতিবাজ দল বিএনপির মুখে স্বর্ণের দুর্নীতির কথা মানায় না : কাদের

প্রকাশিত: ১:৪৭ অপরাহ্ণ, জুলাই ১৯, ২০১৮

দুর্নীতিবাজ দল বিএনপির মুখে স্বর্ণের দুর্নীতির কথা মানায় না : কাদের

আত্মস্বীকৃত দুর্নীতিবাজ দল বিএনপির মুখে স্বর্ণের দুর্নীতির কথা মানায় না। স্বর্ণ ক্যারিকাল এরোর। তারপরও তদন্ত চলছে। দোষী প্রমাণিত হলে কঠোর ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের।বৃহস্পতিবার (১৯ জুলাই) দুপুরে একটি অনুষ্ঠানে সেতুমন্ত্রী একথা বলেন।

বিস্তারিত আসছে…

আরো পড়ুন…
প্রধানমন্ত্রীর দেওয়া বিএমডব্লিউ ফেরত দিলেন ওবায়দুল কাদের
ঢাকা: প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উপহার হিসেবে বরাদ্দ পাওয়া বিএমডব্লিউ গাড়ি ফেরত দিয়েছেন সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

কৃষিমন্ত্রী বেগম মতিয়া চৌধুরীর পর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরও বিলাসি গাড়িটি ফেরত দিয়েছেন।

সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র তথ্য কর্মকর্তা মো. আবু নাছের বুধবার এক বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানিয়েছেন।

বিজ্ঞপ্তিতে নাছের জানিয়েছেন, সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের এমপি’র অনুকূলে সরকারি যানবাহন অধিদফতর হতে সম্প্রতি বরাদ্দ দেয়া বিএমডব্লিউ গাড়িটি (ঢাকা-মেট্রো-ভ-১১-১৯৪৭) তিনি ফেরত দিয়েছেন।

‘বিএমডব্লিউ’টি প্রত্যাহার করে আগের ব্যবহৃত গাড়িটি বরাদ্দ দিতে মঙ্গলবার মন্ত্রীর দফতর থেকে সরকারি যানবাহন অধিদফতরের পরিবহন কমিশনার বরাবর পত্র পাঠানো হয়েছে’।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আওয়ামী লীগের ও সরকারের হয়ে দীর্ঘ অবদান রাখার জন্য সম্প্রতি সরকারের কয়েকজন সিনিয়র মন্ত্রীকে বিএমডব্লিউ গাড়ি উপহার দিয়েছেন বলে জানা যায়।

বাংলাদেশে অরগানাইজেশন অব ইসলামিক কো-অপারেশন (ওআইসি) ভুক্ত দেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রীদের সম্মেলনের সময় নিয়ে আসা বিএমডব্লিউ গাড়িগুলো অব্যবহৃত হিসেবে ছিল। সরকারি কোম্পানি থেকে কেনা গাড়িগুলোর প্রতিটির মূল্য ৭০ থেকে ৮০ লাখ টাকা।

বিএমডব্লিউ উপহার পেয়েছিলেন, অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত, শিল্পমন্ত্রী আমির হোসেন আমু, বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ, গণপূর্তমন্ত্রী ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসেন, আইনমন্ত্রী আনিসুল হক, কৃষিমন্ত্রী বেগম মতিয়া চৌধুরী, সড়ক পরিবহন মন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরসহ কয়েকজন।

কৃষিমন্ত্রী মতিয়া চৌধুরী এরই মধ্যে তার গাড়িটি ফেরত দিয়ে সাধারণ গাড়ি ব্যবহার করছেন বলে জানা যায়।

  •  

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

সর্বমোট পাঠক


বাংলাভাষায় পুর্নাঙ্গ ভ্রমণের ওয়েবসাইট