সিসিক প্রার্থীদের প্রচারণায় মুখর নগরী

প্রকাশিত: ১২:৪৩ অপরাহ্ণ, জুলাই ১৫, ২০১৮

সিসিক প্রার্থীদের প্রচারণায় মুখর নগরী

আসন্ন সিলেট সিটি করপোরেশন নির্বাচনকে ঘিরে প্রার্থীদের প্রচারণায় সরগরম হয়ে উঠেছে নগরী। প্রার্থীরা চষে বেড়াচ্ছেন নির্বাচনী এলাকার অলি গলিতে। প্রার্থীদের পাশাপাশি তাদের পক্ষে প্রচারণায় নেমেছেন দলীয় অথবা পরিবারের সদস্যরাও।

শনিবার বিএনপি মনোনীত মেয়র প্রার্থীর ধানের শীষ প্রতীকের প্রচারণায় বের হয়েছেন আরিফপত্নী শামা হক চৌধুরী। তিনি দক্ষিণ সুরমার কুশিঘাট, গোটাটিকর, হবিনন্দীসহ আশেপাশের কয়েকটি এলাকায় আরিফের পক্ষে গণ সংযোগ করেন। এসময় তিনি বলেন, আরিফুল হক জনতার মেয়র ছিলেন, সিলেটের জনগণ তাকে ৫ বছরের জন্য মনোনীত করলেও সরকারের রোষানলে পড়ে তাঁকে মিথ্যা মামলায় কারাগারেই ৩ বছর কাটাতে হয়েছে। তারপরেও ২ বছর সময় পেয়ে তিনি যা করেছেন, তা দৃশ্যমান। তিনি আরো বলেন, নগরীর প্রতি তার মায়া দেখে আমিও তার পক্ষে প্রচারণা চালাতে বেরিয়েছি। সবার কাছেই অভাবনীয় সাড়া পাচ্ছি, আমার দৃঢ় বিশ্বাস জনতার রায়ে আমাদের বিজয় হবেই।

একই সময়ে আরিফ নিজে গণসংযোগ করেছেন, নগরীর দরগা মহল্লা, মীরের ময়দান, মাদ্রাসারা পশ্চিম এলাকায়। এসময় আরিফ বলেন, নগরীর রাস্তাঘাট সংস্কার করেছি, ছড়া-খাল উদ্ধার করেছি, যা করেছি সবই বৃহত্তর উন্নয়নের স্বার্থে। নিজের জন্য কিছুই করিনি। শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত আমার সকল উন্নয়ন কর্মকান্ডের সাথে জনসম্পৃক্ততা ছিলো। সবাই অবলোকন করেছেন। জনগণের জন্য কাজ করেছিলাম বলে আমাকে জনগণ থেকে বিচ্ছিন্ন করে দেয়ার ষড়যন্ত্র হয়েছে। কিন্তু এই পুণ্যভুমির জনগণের দোয়ায় সকল ষড়যন্ত্র নস্যাৎ হয়ে গেছে।

গণসংযোগে আরিফুল হক চৌধুরীর সাথে আরো উপস্থিত ছিলেন নেজামী ইসলাম পার্টির চেয়ারম্যান এডভোকেট আব্দুর রকিব, সিলেট জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক আলী আহমদ, মহানগর খেলাফত মজলিসের সহ সভাপতি আব্দুল হান্নান তাপাদার, মহানগর বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক মিফতা সিদ্দিকী ও মাহবুব চৌধুরী, জেলা বিএনপি নেতা আবুল কাশেম, ছাত্রদলের সাবেক কেন্দ্রীয় সহ সভাপতি মাহবুবুল হক চৌধুরী, ১ নম্বর ওয়ার্ড বিএনপির সভাপতি রায়হান উদ্দিন মুন্না, সাধারণ সম্পাদক জেবুল হোসেন ফাহিম, বিএনপি নেতা মুফতি বদরুন নূর সায়েক, মাসুদ আহমদ আফতাব, সৈয়দ মুজিব, ছাদিক মিয়া, জাহাঙ্গীর আহমদসহ বিএনপি ও সহযোগী সংগঠনের সংখ্যক নেতাকর্মীরা।

বদর উদ্দিন কামরান দলীয় নেতাকর্মীদের নিয়ে কামালগড় এলাকায় গণসংযোগ করেন। এসময় কামরান এলাকার সকলের কাছে দোয়া চান। গণসংযোগকালে কামরানের সাথে ছিলেন, যুবলীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য অ্যাডভোকেট বেলাল হোসাইন, প্রেসিডিয়াম সদস্য শাহজাহান ভূইয়া মাখন, সাংগঠনিক সম্পাদক ও সিলেটের দায়িত্বপ্রাপ্ত নেতা ফজলুল হক আতিক, আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক সাজ্জাদ হায়দার লিটন, কেন্দ্রীয় যুবলীগ নেতা আতাউর রহমান সেলিম, এমআই আহমদ শওকত, জেলা যুবলীগের সভাপতি শামীম আহমদ, মহানগর যুবলীগের আহবায়ক আলম খান মুক্তি, যুগ্ম আহবায়ক মুশফিক জায়গীরদার, জেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক খন্দকার মহসিন কামরান প্রমুখ।

এছাড়া বিএনপির বিদ্রোহীপ্রার্থী বদরুজ্জামান সেলিম গণসংযোগ করেছেন দক্ষিণ সুরমার বাবনা পয়েন্ট, মারকাজ পয়েন্ট ওটেকনিক্যাল এলাকায়। এসময় সেলিম বরাবরের মতোই পুর্বকার মেয়রদের ব্যর্থ উল্লেখ করে বলেন, ‘একজন যোগ্য জনপ্রতিনিধিকে সবার আগে সৎ ও ন্যায়পরায়ণ হতে হবে। তাহলে নাগরিকগণ তাদের প্রকৃত সুবিধা ভোগ করতে পারেন। আমি জীবনের শেষ দিন পর্যন্ত নিজের সততা, মেধা ও যোগ্যতা দিয়ে নগরবাসীর সেবায় নিজেকে উৎসর্গ করতে চাই।’

অপরদিকে, সিপিবি-বাসদ মনোনীত মেয়র প্রার্থী আবু জাফর গণসংযোগ করেছেন আম্বরখানা এলাকায়। এসময় তার সাথে সিপিবি-বাসদের সিলেটের নেতৃবৃন্দ।

  •  

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

সর্বমোট পাঠক


বাংলাভাষায় পুর্নাঙ্গ ভ্রমণের ওয়েবসাইট