হবিগঞ্জে ছাত্রলীগের দু’গ্রুপের সংঘর্ষে আহত ২৫

প্রকাশিত: ২:০৪ পূর্বাহ্ণ, জুলাই ১, ২০১৮

হবিগঞ্জে ছাত্রলীগের দু’গ্রুপের সংঘর্ষে আহত ২৫

হবিগঞ্জে ছাত্রলীগের দু’গ্রুপের দফায় দফায় সংঘর্ষে পথচারীসহ অন্তত ২৫ জন আহত হয়েছেন।

শনিবার (৩০ জুন) দুপুরে হবিগঞ্জ সরকারি বৃন্দাবন কলেজ ক্যাম্পাসে এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এসময় কলেজ ক্যাম্পাসের বিভিন্ন কক্ষে ব্যাপক ভাঙচুর চালানো হয়।

জানা যায়, কলেজে একাদশ শ্রেণিতে আগে শিক্ষার্থী ভর্তি নিয়ে ছাত্রলীগের দুই কর্মীর মধ্যে কথা কাটাকাটি হয়। এর জের ধরে উভয় পক্ষ দেশীয় অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। দফায় দফায় চলা এ সংঘর্ষ ছড়িয়ে পড়লে কলেজের আশপাশ রণক্ষেত্রে পরিণত হয়।

খবর পেয়ে হবিগঞ্জ সদর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ইয়াছিনুল হকের নেতৃত্বে একদল পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

এ ঘটনায় আহত হোন বৃন্দাবন কলেজ ছাত্রলীগ নেতা মো. আফরোজ হোসেন, ছাত্রলীগকর্মী সাহান মিয়া, হাফিজ উদ্দিন, শাহনুর আহমেদ, সুমেল মিয়া, মনির হোসেন, নিয়ল মিয়া, ছারোয়ার হোসেন, মোমিন মিয়া, আফজল মিয়া, শিপন মিয়া, রাসেল মিয়া, আরিফুর রহমান, করিম আহমেদ ও আব্দুল্লাহ। তাদেরকে হবিগঞ্জ সদর আধুনিক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। বাকিদের বিভিন্ন প্রাইভেট ক্লিনিকে ভর্তি করে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে।

সংঘর্ষের ঘটনায় কলেজ ক্যাম্পাস এলাকায় থমথমে পরিস্থিতি বিরাজ করছে।

এ ঘটনায় বৃন্দাবন কলেজের অধ্যক্ষ মো. ইলিয়াছ হোসেন জানান, তারা সবাই ছাত্রলীগের কর্মী। হঠাৎ তারা সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। আমার মনে হচ্ছে নতুন শিক্ষার্থীদের কাছে নিজেদের শক্তি প্রদর্শনের জন্যই এমনটি করেছে তারা। অবশ্য বিষয়টি আগে থেকে টের পেয়ে আমরা পুলিশকে অবগত করে রেখেছিলাম।

হবিগঞ্জ সদর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ইয়াছিনুল হক জানান, ছাত্রলীগের দুই পক্ষ নতুন শিক্ষার্থীদের নিজেদের শক্তি প্রদর্শনের জন্য ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ায় লিপ্ত হয়েছে।

কলেজ ক্যাম্পাস এলাকায় বর্তমানে পরিস্থিতি শান্ত রয়েছে। ফের সংঘর্ষ এড়াতে সেখানে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে বলেও জানান তিনি।

হবিগঞ্জ জেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক মহিবুর রহমান মাহী জানান, কলেজে দুই দল ছাত্রের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। হবিগঞ্জের ছাত্রলীগের মধ্যে কোন গ্রুপিং নেই। এছাড়াও কলেজে এ ঘটনার সঙ্গে কারা কারা জড়িত তা দেখা হচ্ছে।

  •  

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

সর্বমোট পাঠক


বাংলাভাষায় পুর্নাঙ্গ ভ্রমণের ওয়েবসাইট