বিএনপি কি জামায়াতকে সিলেট সিটি ছেড়ে দিচ্ছে ?

প্রকাশিত: ১০:২৬ অপরাহ্ণ, জুন ২৫, ২০১৮

বিএনপি কি জামায়াতকে সিলেট সিটি ছেড়ে দিচ্ছে ?
সিলেট সিটি করপোরেশন নির্বাচনে বিএনপিদলীয় মেয়র প্রার্থী হচ্ছেন কে, তা নিয়ে চলছে নানা গুঞ্জন। আওয়ামী লীগের মেয়র প্রার্থী যেখানে আনুষ্ঠানিকভাবে নির্বাচনী কার্যক্রম শুরু করে দিয়েছেন, সেখানে বিএনপি নেতাকর্মীরা অধীর আগ্রহে চেয়ে আছেন দলের কেন্দ্রীয় নীতিনির্ধারকদের দিকে।

কিন্তু বিএনপি কি সিলেটে মেয়র পদে প্রার্থী দেবে, এ নিয়ে শুরু হয়েছে নানামুখী গুঞ্জন, দেখা দিয়েছে প্রশ্ন।

আগামী ৩০ জুলাই সিলেট, বরিশাল ও রাজশাহী সিটিতে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। রবিবার বিকেলে বরিশাল সিটিতে মেয়র পদে বিএনপির কেন্দ্রীয় যুগ্ম মহাসচিব মজিবুর রহমান সরোয়ার এবং রাজশাহী সিটিতে বর্তমান মেয়র মোসাদ্দেক হোসেন বুলবুলের নাম ঘোষণা করা হয়েছে। বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর তাদের নাম ঘোষণা করেন।

মির্জা ফখরুল জানান, আজ সোমবার সিলেট সিটিতে প্রার্থীর নাম ঘোষণা করা হবে।

সিলেট বিএনপির নেতাকর্মীরা প্রশ্ন তুলছেন, একইদিনে তিন সিটিতে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে, অথচ দুটিতে প্রার্থীর নাম ঘোষণা করা হলো, কিন্তু সিলেটে প্রার্থী ঘোষণা করা হলো না! এটা কি সিলেটে বিএনপির প্রার্থী না দেয়ার ইঙ্গিত?

সিলেট সিটি নির্বাচনে জামায়াত প্রার্থী দিতে তৎপর। সিলেট মহানগর জামায়াতের আমির এহসানুল মাহবুব জুবায়ের গত কিছুদিন ধরে নিজেকে সম্ভাব্য মেয়র প্রার্থী হিসেবে প্রচারণায় আছেন। জামায়াত বিএনপির জোটসঙ্গী।

সিসিকের গত নির্বাচনে জামায়াত সিলেটে প্রার্থী দিতে চেয়েছিল। তখন যুদ্ধাপরাধে অভিযুক্ত এ দলটিকে নিবৃত্ত করা হয়। এবারও জামায়াত মেয়র পদে প্রার্থী দিতে চায়। এ লক্ষ্যে তারা বিএনপির সাথে দেনদরবার চালিয়ে আসছে।

রাজশাহী, বরিশাল ও সিলেট-এই তিন সিটির মধ্যে একটিতে নিজেদের নেতাকে মেয়র পদে প্রার্থী করতে বিএনপির সাথে দেনদরবার করে জামায়াত। কিন্তু রাজশাহী ও বরিশালে জামায়াতকে সুযোগ দেয়নি বিএনপি। এখন রইলো বাকি সিলেট। এখানেই জামায়াতকে সেই সুযোগ দেয়া হয় কিনা, এ নিয়ে শঙ্কায় আছেন স্থানীয় বিএনপি নেতাকর্মীরা।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে সিলেট মহানগর বিএনপির এক নেতা বলেন, ‘বিএনপি যদি সিলেটে জামায়াতকে প্রার্থীতার সুযোগ দেয়, তবে ভুল করবে। এখানে বর্তমান মেয়র আরিফের জয়ের প্রবল সম্ভাবনা আছে।

  •  

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

সর্বমোট পাঠক


বাংলাভাষায় পুর্নাঙ্গ ভ্রমণের ওয়েবসাইট