সারাদেশে বন্দুকযুদ্ধে নিহত ১২

প্রকাশিত: ৪:৫৮ অপরাহ্ণ, মে ২৮, ২০১৮

সারাদেশে বন্দুকযুদ্ধে নিহত ১২

সারাদেশে রবিবার দিবাগত রাতে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ ১২জন নিহত হয়েছেন। কুমিল্লা, সাতক্ষীরা ও পিরোজপুরে ছয়জন এবং ঢাকা, চাঁদপুর, ঝিনাইদহ, পাবনা, মুন্সীগঞ্জ ও নাটোরে একজন করে নিহত হয়েছেন বলে পুলিশ জানিয়েছে।

ঢাকা : মিরপুরের রূপনগরে রবিবার দিবাগত রাতে ডিবি পুলিশের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ ইয়াবা ব্যবসায়ী নজু মারা গেছেন। তার কাছ থেকে ইয়াবা পাওয়া গেছে।

কুমিল্লা : দেবিদ্বারের পশ্চিম ভিংলাবাড়ি এবং সদর দক্ষিণ উপজেলার গলিয়ারা এলাকায় রবিবার দিবাগত রাতে মাদক ব্যবসায়ীদের সঙ্গে পুলিশের বন্দুকযুদ্ধের ঘটনা ঘটেছে। এতে দুইজন মারা গেছেন। তারা হলেন- দেবিদ্বার উপজেলার ভিংলাবাড়ি (মির্জানগর) গ্রামের মৃত আবদুল্লাহ ভূইয়ার ছেলে এনামুল হক (দোলন) ভূইয়া (৩৫) এবং সদর দক্ষিণের কালিকাপুর গ্রামের আবদুল কাদেরের ছেলে নুরু (৫৫)।

চাঁদপুর : ফরিদগঞ্জ উপজেলার গুপ্টি পূর্ব ইউনিয়নে পুলিশের সঙ্গে ‌’বন্দুকযুদ্ধে’ মাদক ব্যবসায়ী আবু সাঈদ বাদশা ওরফে লাল বাদশা (৪৫) নিহত হয়েছেন। রবিবার দিবাগত রাত ২টার দিকে ওই ইউনিয়নের বৈচাতলী এলকায় এ ঘটনা ঘটে। বাদশা উপজেলার পূর্ব গোবিন্দপুর গ্রামের আব্দুর রশিদ ছৈয়ালের ছেলে। ফরিদগঞ্জ থানার ওসি শাহ্ আলম জানান, বাদশার বিরুদ্ধে ১০টি মাদক মামলা রয়েছে।

ঝিনাইদহ : সদর উপজেলার জারগ্রামে রবিবার দিবাগত রাতে পুলিশের সঙ্গে ‘গোলাগুলিতে’ ফরিদ হোসেন (৪২) নাম একজন নিহত হয়েছেন। পুলিশ বলেছে তিনি শীর্ষ মাদক ব্যবসায়ী ছিলেন এবং তার বিরুদ্ধে ৯টি মাদক মামলা রয়েছে। ফরিদ জেলা শহরের পাগলা কানাই এলাকার মুহম্মদ আলির ছেলে।

পিরোজপুর : রবিবার দিবাগত রাতে পৃথক ‘বন্দুকযুদ্ধে’ দুইজন মারা গেছেন। তারা হলেন- সদর উপজেলার দক্ষিণ কৌড়িখারা সোহাগদল গ্রামের মৃত আব্দুর রহমান খানের ছেলে অহিদুজ্জামান অহিদ এবং মঠবাড়িয়ার দাউদখালী ইউনিয়নের মো. মিজান। পিরোজপুরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার জিএম আবুল কালাম আজাদ ও মঠবাড়িয়া থানার ওসি মো. গোলাম ছরোয়ার মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

মুন্সীগঞ্জ : সদর উপজেলার মুরমা গ্রামে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ একজন নিহত হয়েছেন। তার নাম সুমন বিশ্বাস (৩৬)। তিনি ওই এলাকার বাবুল বিশ্বাসের ছেলে। সদর থানার ওসি গাজী সালাউদ্দিন জানান, সুমন ২৫টি মামলার আসামি ছিলেন।

সিংড়া (নাটোর) সংবাদদাতা : সিংড়ায় র‌্যাবের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ আব্দুল খালেক নামে এক মাদক ব্যাবসায়ী নিহত হয়েছেন। এ সময় উদ্ধার করা হয়েছে পিস্তল, কয়েক রাউন্ড গুলি ও বেশ কিছু মাদক দ্রব্য। রবিবার দিবাগত রাত ২টার দিকে উপজেলার ভাগনাগরকান্দি গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। আব্দুল খালেক সিংড়ার বড় চৌগ্রামের আজাহার আলীর ছেলে। র‌্যাব-৫ এর সিপিসি-২ কোম্পানি কমান্ডার মেজর শিবলী মোস্তফা বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

বেড়া (পাবনা) : ১৪ মামলার আসামি ইজ্জত আলী রবিবার দিবাগত রাতে পুলিশের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত হয়েছেন। বেড়া মডেল থানার ওসি মোজাফ্ফর হোসেন জানান, ইজ্জতের লাশ ময়না তদন্তের জন্য পাবনা মর্গে পাঠানো হয়েছে।

সাতক্ষীরা : সাতক্ষীরা-ভোমরা সড়কের বাঁকালের আগুনপুর গ্রাম থেকে সোমবার ভোরে দুই ব্যক্তির গুলিবিদ্ধ লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। পুলিশের দাবি তারা মাদক ব্যবসায়ী। মাদক ভাগাভাগি নিয়ে নিজেদের মধ্যে গোলাগুলিতে তারা নিহত হয়েছেন। তারা হলেন- সাতক্ষীরা শহরের মধুমোল্লারডাঙ্গি এলাকার মৃত এরাদ আলী মিস্ত্রীর ছেলে ইমদাদুল হক ও সদর উপজেলার ভোমরা ইউনিয়নের লক্ষ্মীদাড়ি গ্রামের আজগর আলীর ছেলে খলিলুর রহমান পুটে।

  •