ঈদযাত্রার ভোগান্তি সহনীয় পর্যায়ে থাকবে : কাদের

প্রকাশিত: ৬:১৩ অপরাহ্ণ, মে ২২, ২০১৮

ঈদযাত্রার ভোগান্তি সহনীয় পর্যায়ে থাকবে : কাদের

মুন্সীগঞ্জ: সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, আসন্ন ঈদযাত্রা হয়তো ভোগান্তিমুক্ত হবে না তবে তা সহনীয় পর্যায়ে থাকবে। মন্ত্রী মঙ্গলবার মহাসড়কের মুন্সীগঞ্জের গজারিয়া অংশের মেঘনা সেতু সংলগ্ন জামালদিতে ব্রিজ কর্তৃপক্ষের অস্থায়ী কার্যালয়ে আসন্ন ঈদযাত্রা নির্বিঘ্ন করা ও টোল প্লাজা ব্যবস্থাপনা নিয়ে সংশ্লিষ্ট স্টেক-হোল্ডারদের সঙ্গে মতবিনিময় সভায় এ কথা বলেন।

মঙ্গলবার সকালে মহাসড়কের সার্বিক অবস্থা পরিদর্শনে আসেন সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। এ সময় মহাসড়কের মুন্সীগঞ্জের গজারিয়া অংশের মেঘনা সেতু এলাকায় আসন্ন ঈদ যাত্রা নির্বিঘ্ন করা ও টোল প্লাজা ব্যবস্থাপনা নিয়ে সংশ্লিষ্ট স্টেক-হোল্ডারদের সঙ্গে মতবিনিময় সভা করেন তিনি। মন্ত্রী বলেন, আসন্ন ঈদযাত্রা হয়তো ভোগান্তিমুক্ত হবে না তবে তা সহনীয় পর্যায়ে থাকবে।

এছাড়া আগামী ৮ জুনের মধ্যে সব রাস্তার প্রস্তুতি সম্পন্ন করার নির্দেশ দেন সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

মুন্সীগঞ্জের গজারিয়া এলাকায় দ্বিতীয় মেঘনা সেতুর নির্মাণ সাইটে ঢাকা-চট্টগ্রাম জাতীয় মহাসড়কে যানজট নিরসনকল্পে করণীয় নির্ধারণবিষয়ক এক সভায় তিনি এ নির্দেশ দেন।

এ সময় তিনি বলেন, যেখানে রিপেয়ার (মেরামত) দরকার, সেটা এর মধ্যে করতে হবে। রাস্তা সংস্কারে উদাসীনতা সহ্য করা হবে না।

রাস্তা সংস্কারের ক্ষেত্রে বৃষ্টি যেন অজুহাত না হয়। বৃষ্টি হলেও কাজ শেষ করার ব্যবস্থা যেন রাখা হয়- সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের এই নির্দেশও দেন মন্ত্রী।

এ সময় মন্ত্রী ঈদযাত্রার পথে কোনোভাবেই যাতে বিশৃঙ্খলা বা যানজট না হয়, সেদিকে নজর রাখতে পুলিশ এবং সড়ক-মহাসড়ক বিভাগের কর্মকর্তা-কর্মচারীর প্রতি আহ্বান জানান।

এছাড়া পুলিশের কর্মকর্তাদের উদ্দেশে তিনি বলেন, এমপি-মন্ত্রী হোক, যে কোনো ভিআইপি হোক, কোনো অবস্থাতেই রং সাইডে চলতে দেয়া হবে না। মুখের দিকে তাকাবেন না, ধরে ফেলবেন। সঙ্গে সঙ্গে ব্যবস্থা।

১৬ জুন ঈদ হতে পারে ধরে নিয়ে এবার রোজার ঈদের সরকারি ছুটি ঠিক করা হয়েছে ১৫-১৭ জুন। ঈদের ছুটি শুরুর কয়েক দিন আগে থেকেই মহাসড়কে শুরু হয়ে যাবে ঈদযাত্রার ভিড়।

ওবায়দুল কাদের বলেন, এবার রোজার ঈদ ঘিরে ৯ দিন দেশের সব সিএনজি ফিলিং স্টেশন ২৪ ঘণ্টা খোলা থাকবে। ঈদের দিন, তার আগের চার দিন এবং পরের চার দিন সিএনজি ফিলিং স্টেশন ২৪ ঘণ্টা খোলা থাকবে।

তিনি বলেন, ঈদের চার দিন পর থেকে আবারও আগের নিয়মে বিকাল ৫টা থেকে রাত ৯টা পর্যন্ত সিএনজি স্টেশন বন্ধ থাকবে। এটি আমাদের সিদ্ধান্ত। বিদ্যুৎ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ বিপুর সঙ্গে কথা হয়েছে। হয়তো তিনি আনুষ্ঠানিকভাবে জানাবেন।

  •  

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

সর্বমোট পাঠক


বাংলাভাষায় পুর্নাঙ্গ ভ্রমণের ওয়েবসাইট